উচ্ছেদ হচ্ছে রেললাইনের পাশের সব অবৈধ স্থাপনা

  সংসদ রিপোর্টার ১৭ জুলাই ২০১৯, ১৯:৫৮ | অনলাইন সংস্করণ

রেললাইনের পাশে অবৈধ স্থাপনা
রেললাইনের পাশে অবৈধ স্থাপনা। ফাইল ছবি

রাজধানী ঢাকাসহ দেশের সব বড় বড় শহরগুলোর রেললাইনের পাশে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে।

বুড়িগঙ্গা ও তুরাগ নদীর অবৈধ দখল মুক্ত করার মতো রেলের জমিও মুক্ত করা হবে। এজন্য সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি শামসুল হক টুকুর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, আফছারুল আমীন, হাবিবর রহমান, সামছুল আলম দুদু, কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, পীর ফজলুর রহমান এবং সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ অংশ নেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি সাংবাদিকদের বলেন, বিভিন্ন স্থানে রেলওয়ের কোটি কোটি টাকার জায়গা দখল করে নিয়েছে ভূমি দস্যুরা। রেলওয়ের কিছু অসৎ কর্মকর্তার যোগসাজশে এটি করা হয়েছে। তাই রেলের ধারে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের সুপারিশ করেছে কমিটি।

কমিটির সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ বলেন, নৌ মন্ত্রণালয় যেভাবে নদী দখলমুক্ত করছে সেই ভাবে রেলেও জমিও উদ্ধারের সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে জানানো হয়, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কর্তৃক ‘মাদকাসক্ত সনাক্তকরণ ডোপ টেস্ট প্রবর্তন’ শীর্ষক প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।

উক্ত প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে সরকারি চাকরিতে প্রবেশকালে বাধ্যতামূলক ডোপটেস্ট করা হবে। সঠিকভাবে ডোপটেস্ট অব্যাহত রাখার পরামর্শ প্রদান করা হয়।

বৈঠকে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর কার্যক্রমের উপর প্রতিবেদন উপস্থাপন ও আলোচনা করা হয়। ব্যাটালিয়ন আনসার ফোর্স মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে অন্তর্ভুক্তকরণের সুপারিশ করা হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×