তারা কেউ ভিআইপি নন, সার্ভেন্ট অব দ্য স্টেট: হাইকোর্ট

  যুগান্তর রিপোর্ট ৩১ জুলাই ২০১৯, ১৭:১১ | অনলাইন সংস্করণ

হাইকোর্ট
হাইকোর্ট। ফাইল ছবি

এক যুগ্ম সচিবের অপেক্ষায় প্রায় তিন ঘণ্টা ফেরি না ছাড়ায় স্কুলছাত্র তিতাস ঘোষের মৃত্যুর ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট।

আদালত বলেছেন, আমরা ঘটনাটি জানি। তারা (যুগ্ম সচিব) কেউ ভিআইপি নন, তারা সার্ভেন্ট অব দ্য স্টেট। সারা বিশ্বে অ্যাম্বুলেন্স, অগ্নিনির্বাপণে ফায়ার সার্ভিস ও নিরাপত্তার জন্য পুলিশের গাড়ি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যেতে দেয়া হয়। আর এখানে তার উল্টোটা ঘটছে।

এক রিটের শুনানিতে বুধবার বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন।

আদালত আরও বলেন, ভিআইপি কারা সেটা আইনে বলা আছে। বিশেষ করে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার জন্য যে কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়া যেতে পারে। কিন্তু তা অন্য কারও ক্ষেত্রে নয়। ভিআইপি থাকলেও অ্যাম্বুলেন্সকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে আগে যেতে দেয়া হয়। কারণ এর সঙ্গে একজন মানুষের জীবন-মৃত্যুর বিষয়টি জড়িয়ে থাকে।

স্কুলছাত্র তিতাস ঘোষের মৃত্যুর ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

শুনানি শেষে তিতাসের পরিবারকে তিন কোটি টাকা কেন ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে না এবং তদন্তপূর্বক দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নয়, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

সংশোধনী: এর আগে নিউজটিভিআইপি শুধু রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী, বাকিরা রাষ্ট্রের চাকর’ শিরোনামে প্রকাশ হয়েছিল। তবে প্রকৃতপক্ষে ভিআইপি প্রটোকল বিষয়ে হাইকোর্ট বলেছিলেন, ‘তারা (যুগ্ম সচিব) কেউ ভিআইপি নন, তারা সার্ভেন্ট অব দ্য স্টেট’। অনাকাঙ্ক্ষিত এ ভুলের জন্য আমরা দুঃখিত ও ক্ষমাপ্রার্থী।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×