শেখ হাসিনার শাসনামল গণমাধ্যমের জন্য স্বর্ণালী অধ্যায়: গণপূর্তমন্ত্রী

  পিরোজপুর প্রতিনিধি ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:৪৩ | অনলাইন সংস্করণ

অনুসন্ধানীমূলক রিপোর্টিং প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম
অনুসন্ধানীমূলক রিপোর্টিং প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম

গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, শেখ হাসিনার শাসনামল গণমাধ্যমের জন্য স্বর্ণালী অধ্যায়। কারণ তার আমলে গণমাধ্যম যতটা বিকশিত, শক্তিশালী ও স্বাধীন হয়েছে বিগত কোনো সরকারের সময় ততটা হয়নি।

মন্ত্রী স্বাধীন গণমাধ্যমের কথা উল্লেখ করে একজন বিএনপি নেতার টেলিভিশনে ‘টক-শোর’ উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, তিনি বলেছেন (বিএনপি নেতা) শেখ মুজিবকে যেভাবে হত্যা করা হয়েছে, শেখ হাসিনাও সেভাবে হত্যা হবে, প্রকাশ্যে টেলিভিশনে এ কথাগুলো বলেছেন। আর এটা বলা সম্ভব হয়েছে কেবল শেখ হাসিনার সরকারের সময়। কারণ শেখ হাসিনা কারও টুটিচেপে ধরেন না, তিনি চান তথ্যের অবাধ প্রবাহ থাক।

পিরোজপুরে বাংলাদেশ প্রেস ইন্সটিটিউট পিআইবি কর্তৃক আয়োজিত জেলার সাংবাদিকদের জন্য তিন দিনব্যাপী অনুসন্ধানীমূলক রিপোর্টিং প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

পিরোজপুর জেলা সার্কিট হাউস মিলনায়তনে পিআইবির মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদের সভাপতিত্বে এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন, পিআইবির পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ও যুগান্তরের বিশেষ সংবাদদাতা শেখ মামুনুর রশিদ এবং পিরোজপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি জহিরুর হক টিটু।

এর আগে মন্ত্রী, পিআইবির মহাপরিচালক ও অতিথিবৃন্দকে প্রেস ক্লাব সদস্যরা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

প্রশিক্ষণে পিরোজপুর প্রেস ক্লাবের মোট ৪০ জন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেন।

প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্বোধনের আগে বঙ্গোপসাগরে ঝড়ের কবলে পড়ে পিরোজপুরের নিহত ছয়জন জেলে পরিবারের সদস্যদের মাঝে তার ব্যক্তিগত অনুদান হিসেবে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা এবং জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রত্যেককে নগদ ১০ হাজার টাকা ও চাল সাহায্য হিসেবে দেয়া হয়।

এ সময় মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, উপকূলবর্তী জনপদ পিরোজপুর জেলাকে প্রকৃতির সঙ্গে যুদ্ধ করে বেঁচে থাকতে হয়। সিডর ও আইলার মতো প্রলয়ংকারী ঘূর্ণিঝড়কে মোকাবেলা করে এ জেলার মানুষ বেঁচে ছিল। দুর্যোগের কারণে ঘর-বাড়ি, জীবনহাণি এমনকি শেষ অবলম্বনটুকুও আমাদের হারাতে হচ্ছে। কিন্তু বর্তমান সরকারের সময় দেখা গেছে প্রাকৃতিক দুর্যোগ আসার আগেই আমাদের পূর্ব প্রস্তুতিসহ দুর্যোগকালীন ও পরবর্তী করণীয় সব ধরনের প্রস্তুতি থাকায় এখন আর সেই ধরনের ক্ষয়-ক্ষতির আশংকা থাকে না।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×