প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ না পেলে আমরণ অনশনের হুমকি শিক্ষকদের

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১৩:৪১ | অনলাইন সংস্করণ

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে না দিলে আমরণ অনশনের হুমকি শিক্ষকদের
অনশনে বসা নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের নেতাকর্মীর। ছবি-যুগান্তর

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে না দেয়া হলে আগামীকাল শুক্রবার থেকে আমরণ অনশন পালন করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা।

এমপিও নীতিমালা সংশোধনের দাবিতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আমরণ অনশন পালনের ঘোষণা দিয়েছিলেন সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। পরে এ সিদ্ধান্তে পরিবর্তন আনেন তারা। আজ দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য গণভবনে যাবেন বলে জানানো হয়েছে সংগঠনটি থেকে।

সেই কর্মসূচি অনুযায়ী আজ (বৃহস্পতিবার) প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য বেলা সাড়ে ১১টা থেকে পায়ে হেঁটে গণভবনে যাবেন শিক্ষক-কর্মচারীরা।

তবে এ কর্মসূচিতে কোনোরূপ বাধা দেয়া হলে শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) থেকে আমরণ অনশন পালন করা হবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

গণভবনের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার আগে এ বিষয়ে ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মাহামুদুন্নবী ডলার বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ পেলে নন-এমপিও শিক্ষকদের সব দুঃখ-দুর্দশা কেটে যাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। উনিই এর সমাধান দেবেন। সে উদ্দেশ্যে আমরা গণভবনের উদ্দেশ্যে রওনা হব। তবে আমাদের এ কার্যক্রমে বাধা দিলে ফিরে এসে আমরা কঠিন কর্মসূচি দেব।

কী সেই কর্মসূচি, জানতে চাইলে তিনি বলেন, শুক্রবার থেকে সারা দেশের স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা রাজপথে নেমে আমরণ অনশন পালন করবেন।

কী কী দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করতে চান, জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে আমরা এমপিও নীতিমালায় অসঙ্গতি ও বৈষম্যসহ সার্বিক বিষয় তুলে ধরব। এর পর এ নীতিমালা সংশোধনের দাবি জানাব।

এ ছাড়া স্তরভিত্তিক প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত বাতিল ও স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সব প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তি করার দাবি করা হবে সংগঠনটির পক্ষ থেকে।

অধ্যক্ষ মাহামুদুন্নবী ডলার আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য গত তিন দিন ধরে প্রায় ১০ হাজার শিক্ষক জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে। কিন্তু বিষয়টি কর্তৃপক্ষ আমলে নিচ্ছে না। আমাদের দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাসও দেয়নি। তিনি অভিযোগ করেন, সরকারের আমলারা নিজেদের স্বার্থে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ভুল তথ্য তুলে ধরছেন। প্রধানমন্ত্রীর দেখা পেলে আমাদের মানবেতন জীবনযাপন ও অসঙ্গতিপূর্ণ নীতিমালার সার্বিক বিষয়ে সঠিকভাবে উপস্থাপন করব।

আন্দোলনরত শিক্ষকদের দাবি অনুযায়ী এমপিওভুক্তি নীতিমালায় নতুনভাবে এমপিওভুক্তি করার জন্য বেশ কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। এতে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত অনেক যোগ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তালিকা থেকে বাদ পড়েছে।

এর প্রতিবাদে ৩২ বারের মতো প্রেসক্লাবের সামনে আন্দোলনে জড়ো হয়েছেন নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×