‘ভোলায় নিহতদের মধ্যে ২ জনের মাথা থ্যাতলানো’

  যুগান্তর রিপোর্ট ২০ অক্টোবর ২০১৯, ২২:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

ভোলায় সংঘর্ষে আহত
ভোলায় সংঘর্ষে আহত। ছবি: স্টার মেইল

ভোলার বোরহানউদ্দিনে সংঘর্ষে নিহতদের মধ্যে চারজনের মধ্যে ২ জনের মাথা ভোতা অস্ত্র দ্বারা থ্যাতলানো বলে কর্তব্যরত চিকিৎসকের বরাত দিয়ে পুলিশ সদর দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

রোববার রাতে পুলিশ সদর দফতরের পক্ষ থেকে পাঠানো একটি ব্যাখ্যায় এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, ভোলার বোরহানউদ্দিনে যে ঘটনা ঘটেছে তার সুষ্ঠু তদন্তে ডিআইজি বরিশাল রেঞ্জকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এই কমিটিতে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, এসবি, পিবিআই এবং জেলা পুলিশ হতে একজন করে মোট চারজন কর্মকর্তা সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। কমিটিকে সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মেসেঞ্জার রসূল (সঃ) কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মেসেজ পাঠায়। এ নিয়ে আজ রোববার বেলা ১১টার দিকে বোরহানউদ্দিন ঈদগাহ মাঠে সর্বস্তরের তৌহীদি জনতার ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা হয়।

এ বিক্ষোভ মিছিলটি না করার জন্য বোরহানউদ্দিন ঈদগাহ মসজিদের ইমাম মাওলানা জালাল উদ্দিন, বাজার মসজিদের ইমাম মাওলানা মিজানকে পুলিশ অনুরোধ জানায়। সাধারণ মানুষ আসার আগে বিক্ষোভটি বন্ধ ঘোষণা করতে বলেন। তাদের অনুরোধে এ দুই ইমাম সকাল ১০টার দিকেই যে সব লোক আসছে তাদের নিয়ে দোয়া মোনাজাতের মাধ্যমে বিক্ষোভ মিছিলটি সমাপ্ত করেন।

কিন্তু ততক্ষণে বোরহানউদ্দিনের বিভিন্ন গ্রাম থেকে হাজার হাজার লোক এসে ঈদগাহে জড়ো হয়। একপর্যায়ে তারা ওই দুই ইমামের ওপর ক্ষিপ্ত হয়। সেখানে থাকা পুলিশের ওপর চড়াও হয়। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে ওই মসজিদের ইমামের রুমে আশ্রয় নেয়। একপর্যায়ে উত্তেজিত জনতা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। তারা নিজেদের বাঁচানোর জন্য উত্তেজিত মুসল্লীদের ওপর ফাঁকা গুলি ছুড়ে।

এতে সেখানে থাকা মুসল্লীরা আরও উত্তেজিত হয়ে পুলিশের ওপর আক্রমণ চালায়। সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত দফায় দফায় পুলিশের সঙ্গে মুসল্লীদের সংঘর্ষ হয়। এতে চার মুসল্লী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ১০ পুলিশ সদস্যসহ প্রায় দেড় শতাধিক মুসল্লী।

ভোলায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে হজরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কূটুক্তি করার অভিযোগ উঠেছে বিপ্লব চন্দ্র শুভ নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। বিপ্লব চন্দ্র শুভ বোরহানউদ্দিন উপজেলার কাচিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের চন্দ্র মোহন বৈদ্দের ছেলে।

শুক্রবার বিকালে তার ফেসবুক আইডি থেকে তার বেশ কয়েকজন বন্ধুর কাছে আল্লাহ এবং রাসূল (সা.) কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ভাষায় গালাগালের ম্যাসেজ আসে।

একপর্যায়ে কয়েকটি আইডি থেকে ম্যাসেজগুলোর স্ক্রিনশট নিয়ে ফেসবুকে কয়েকজন প্রতিবাদ জানালে বিষয়টি সবার নজরে আসে। এমনকি বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে প্রতিবাদের ঝড় উঠে। এ অবস্থায় সন্ধ্যার পর বিপ্লব চন্দ্র বোরহানউদ্দিন থানায় আইডি হ্যাক হয়েছে মর্মে জিডি করতে আসলে পুলিশ বিষয়টি তদন্ত ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিপ্লব চন্দ্রকে তাদের হেফাজতে রাখেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর পুলিশ এক হ্যাকারকে আটক করে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×