আইনমন্ত্রীর সঙ্গে আবরারের বাবার সাক্ষাৎ
jugantor
আইনমন্ত্রীর সঙ্গে আবরারের বাবার সাক্ষাৎ

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২১ নভেম্বর ২০১৯, ১৯:১৪:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

আইনমন্ত্রীর সঙ্গে আবরারের বাবার সাক্ষাৎ
আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ। ছবি: সংগৃহীত

হত্যাকাণ্ডের শিকার বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের বাবা বরকত উল্লাহ আইনমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন।  বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে পরিবারের আরও দুইজন সদস্যসহ গুলশানে মন্ত্রীর বাসায় যান তিনি।  সেখানে প্রায় আধঘণ্টা আইনমন্ত্রীর সঙ্গে একান্তে কথা বলেন তারা।

আইনমন্ত্রীর জনসংযোগ কর্মকর্তা ড. মো. রেজাউল করিম যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।  তিনি বলেন, ‘হত্যা মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে দেয়ার জন্য আইনমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানান আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ।  আইনমন্ত্রী সে ব্যাপারে আশ্বাস দেন।  একই সঙ্গে বিচার প্রসিকিউশন টিমে পরিবারের পছন্দ অনুযায়ী দুইজন আইনজীবীও রাখার ব্যাপারে মত দিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।  যত দ্রুত সম্ভব এই হত্যা মামলার বিচার সম্পন্ন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

পরে আইনমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আমরাও চাই এই মামলার দ্রুত ন্যায়বিচার নিশ্চিত হোক।  অত্যন্ত বর্বরোচিত ও নির্মম এ হত্যাকাণ্ডের দায়ে আসামিরা সর্বোচ্চ সাজা পাক।  এ বিষয়টি নিয়ে সমগ্র দেশবাসীর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীও অত্যন্ত সচেতন রয়েছেন।  হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই সরকার এ বিষয়টি বেশ গুরুত্ব দিয়ে আসছে।  আসামিদের অধিকাংশই ধরা পড়েছে।  অপর আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। আমরা আশা করছি, এ মামলায় আসামিরা সর্বোচ্চ শাস্তি পাবে। 

আইনমন্ত্রীর সঙ্গে আবরারের বাবার সাক্ষাৎ

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২১ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আইনমন্ত্রীর সঙ্গে আবরারের বাবার সাক্ষাৎ
আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ। ছবি: সংগৃহীত

হত্যাকাণ্ডের শিকার বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের বাবা বরকত উল্লাহ আইনমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে পরিবারের আরও দুইজন সদস্যসহ গুলশানে মন্ত্রীর বাসায় যান তিনি। সেখানে প্রায় আধঘণ্টা আইনমন্ত্রীর সঙ্গে একান্তে কথা বলেন তারা।

আইনমন্ত্রীর জনসংযোগ কর্মকর্তা ড. মো. রেজাউল করিম যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘হত্যা মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে দেয়ার জন্য আইনমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানান আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ। আইনমন্ত্রী সে ব্যাপারে আশ্বাস দেন। একই সঙ্গে বিচার প্রসিকিউশন টিমে পরিবারের পছন্দ অনুযায়ী দুইজন আইনজীবীও রাখার ব্যাপারে মত দিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। যত দ্রুত সম্ভব এই হত্যা মামলার বিচার সম্পন্ন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

পরে আইনমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আমরাও চাই এই মামলার দ্রুত ন্যায়বিচার নিশ্চিত হোক। অত্যন্ত বর্বরোচিত ও নির্মম এ হত্যাকাণ্ডের দায়ে আসামিরা সর্বোচ্চ সাজা পাক। এ বিষয়টি নিয়ে সমগ্র দেশবাসীর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীও অত্যন্ত সচেতন রয়েছেন। হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই সরকার এ বিষয়টি বেশ গুরুত্ব দিয়ে আসছে। আসামিদের অধিকাংশই ধরা পড়েছে। অপর আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। আমরা আশা করছি, এ মামলায় আসামিরা সর্বোচ্চ শাস্তি পাবে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : বুয়েট ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০