কোটি কোটি টাকা চাঁদা কতটা পরিবহন শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় হয়?
jugantor
কোটি কোটি টাকা চাঁদা কতটা পরিবহন শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় হয়?

  যুগান্তর রিপোর্ট  

৩০ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:৩৩:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

কোটি কোটি টাকা চাঁদা কতটা পরিবহন শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় হয়?

নতুন পরিবহন আইন নিয়ে আন্দোলন করা শ্রমিকদের কাছে প্রশ্ন রেখে নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন বলেছেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আপনারা মারা গেলে আপনাদের জন্য মালিকরা কী করে?

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে নিরাপদ সড়ক চাই’র ২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

পরিবহন শ্রমিকদের উদ্দেশে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, যারা পরিবহন শ্রমিকদের ব্যবহার করে ফায়দা লুটছে, কোটি কোটি টাকা চাঁদা আদায় করছে- তারা কতটা শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় করে? আপনাদের সুরক্ষার জন্য মালিক কি কোনো টাকা ব্যয় করেন? আপনাদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য কি কোনো ইন্সটিটিউশন করেছে, হাসপাতাল গড়েছে চিকিৎসার জন্য? হিসাবে সড়ক দুর্ঘটনায় বছরে ১ হাজার চালক-হেলপার মারা যান। এই যে আপনারা মারা যান, আপনাদের জন্য মালিকরা কী করে? বিষয়গুলো একবার ভেবে দেখবেন।

জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আপনারা শুরু থেকেই এই আইনের প্রতি স্বতঃস্ফূর্তভাবে সমর্থন দিয়ে গেছেন। আজ পরিবহন সেক্টরের কিছু মানুষের নৈরাজ্যের কারণে আপনাদেরও ভোগান্তি হচ্ছে। তবে আমি মনে করি এই ভোগান্তি সাময়িক। দীর্ঘস্থায়ী সমাধানের জন্য আপনাদের এরকম সাময়িক ভোগান্তি পোহাতে হতে পারে। আপনারা ধৈর্য হারাবেন না।

অনুষ্ঠানে নিরাপদ সড়ক বাস্তবায়নে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে চারজনকে সম্মাননা জানানো হয়।

সম্মাননাপ্রাপ্তরা হলেন- শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ নূর নাহার ইয়াসমীন, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) ফয়সল মাহমুদ এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তেজগাঁও জোনের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর বিপ্লব ভৌমিক।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন নিরাপদ সড়ক চাই’র মহাসচিব সৈয়দ এহসান-উল হক কামাল, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক সাদেক হোসেন বাবুল, নিরাপদ সড়ক চাই’র যুগ্ম-মহাসচিব লিটন এরশাদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে নিরাপদ সড়ক চাই’র নিয়মিত প্রকাশনা ‘নিরাপদ’র মোড়ক উন্মোচিত হয়।

কোটি কোটি টাকা চাঁদা কতটা পরিবহন শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় হয়?

 যুগান্তর রিপোর্ট 
৩০ নভেম্বর ২০১৯, ০৬:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কোটি কোটি টাকা চাঁদা কতটা পরিবহন শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় হয়?
‘গলায় ফাঁসি’ নিয়ে গাড়ি না চালানোর প্রতীকী আন্দোলন করেন পরিবহন শ্রমিকরা। ফাইল ছবি

নতুন পরিবহন আইন নিয়ে আন্দোলন করা শ্রমিকদের কাছে প্রশ্ন রেখে নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন বলেছেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আপনারা মারা গেলে আপনাদের জন্য মালিকরা কী করে?

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে নিরাপদ সড়ক চাই’র ২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। 

পরিবহন শ্রমিকদের উদ্দেশে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, যারা পরিবহন শ্রমিকদের ব্যবহার করে ফায়দা লুটছে, কোটি কোটি টাকা চাঁদা আদায় করছে- তারা কতটা শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় করে? আপনাদের সুরক্ষার জন্য মালিক কি কোনো টাকা ব্যয় করেন? আপনাদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য কি কোনো ইন্সটিটিউশন করেছে, হাসপাতাল গড়েছে চিকিৎসার জন্য? হিসাবে সড়ক দুর্ঘটনায় বছরে ১ হাজার চালক-হেলপার মারা যান।  এই যে আপনারা মারা যান, আপনাদের জন্য মালিকরা কী করে? বিষয়গুলো একবার ভেবে দেখবেন।

জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আপনারা শুরু থেকেই এই আইনের প্রতি স্বতঃস্ফূর্তভাবে সমর্থন দিয়ে গেছেন। আজ পরিবহন সেক্টরের কিছু মানুষের নৈরাজ্যের কারণে আপনাদেরও ভোগান্তি হচ্ছে। তবে আমি মনে করি এই ভোগান্তি সাময়িক। দীর্ঘস্থায়ী সমাধানের জন্য আপনাদের এরকম সাময়িক ভোগান্তি পোহাতে হতে পারে। আপনারা ধৈর্য হারাবেন না।

অনুষ্ঠানে নিরাপদ সড়ক বাস্তবায়নে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে চারজনকে সম্মাননা জানানো হয়।

সম্মাননাপ্রাপ্তরা হলেন- শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ নূর নাহার ইয়াসমীন, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) ফয়সল মাহমুদ এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তেজগাঁও জোনের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর বিপ্লব ভৌমিক।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন নিরাপদ সড়ক চাই’র মহাসচিব সৈয়দ এহসান-উল হক কামাল, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক সাদেক হোসেন বাবুল, নিরাপদ সড়ক চাই’র যুগ্ম-মহাসচিব লিটন এরশাদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে নিরাপদ সড়ক চাই’র নিয়মিত প্রকাশনা ‘নিরাপদ’র মোড়ক উন্মোচিত হয়।