বিচারপতির ছেলের বিরুদ্ধে করা রিট শুনতে অবশেষে সম্মত হাইকোর্ট
jugantor
বিচারপতির ছেলের বিরুদ্ধে করা রিট শুনতে অবশেষে সম্মত হাইকোর্ট

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৫:৪১:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

চার-চারটি বেঞ্চের অপারগতা প্রকাশের পর অবশেষে আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির পরীক্ষায় পাস না করা বিচারপতির ছেলে জুম্মান সিদ্দিকীকে সরাসরি হাইকোর্টের আইনজীবী হিসেবে গেজেট প্রকাশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে করা রিট শুনানিতে সম্মত হয়েছেন হাইকোর্ট। 

রোববার বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালত বলেন, মামলাটি শুনানির জন্য মঙ্গলবার কার্যতালিকায় থাকবে।

আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন, ব্যারিস্টার অনিক আর হক ও অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান।

এর আগে ২১ ও ২৮ নভেম্বর এবং ১১ ও ১৫ ডিসেম্বর হাইকোর্টের মোট চারটি বেঞ্চ ওই রিট শুনানিতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

২১ নভেম্বর আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির পরীক্ষায় বারবার অনুত্তীর্ণ হওয়ার পরও হাইকোর্টের এক বিচারপতির ছেলেকে সরাসরি হাইকোর্টের আইনজীবী ঘোষণার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হয়। আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন ও ইশরাত হাসান বাদী হয়ে এ রিট করেন।

রিটে বলা হয়, বাংলাদেশ বার কাউন্সিল পরীক্ষায় কয়েকবার অংশ নিয়েও কৃতকার্য হতে পারেননি হাইকোর্টের বিচারপতির ছেলে  জুম্মান সিদ্দিকী। অথচ ১৯ সেপ্টেম্বর জুম্মান সিদ্দিকীকে সরাসরি হাইকোর্টের আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে গত ৩১ অক্টোবর গেজেট প্রকাশ করা হয়েছে।

জুম্মান সিদ্দিকীসহ বার কাউন্সিলের সংশ্লিষ্টদের রিটে বিবাদী করা হয়।

বিচারপতির ছেলের বিরুদ্ধে করা রিট শুনতে অবশেষে সম্মত হাইকোর্ট

 যুগান্তর রিপোর্ট 
১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চার-চারটি বেঞ্চের অপারগতা প্রকাশের পর অবশেষে আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির পরীক্ষায় পাস না করা বিচারপতির ছেলে জুম্মান সিদ্দিকীকে সরাসরি হাইকোর্টের আইনজীবী হিসেবে গেজেট প্রকাশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে করা রিট শুনানিতে সম্মত হয়েছেন হাইকোর্ট।

রোববার বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালত বলেন, মামলাটি শুনানির জন্য মঙ্গলবার কার্যতালিকায় থাকবে।

আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন, ব্যারিস্টার অনিক আর হক ও অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান।

এর আগে ২১ ও ২৮ নভেম্বর এবং ১১ ও ১৫ ডিসেম্বর হাইকোর্টের মোট চারটি বেঞ্চ ওই রিট শুনানিতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

২১ নভেম্বর আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির পরীক্ষায় বারবার অনুত্তীর্ণ হওয়ার পরও হাইকোর্টের এক বিচারপতির ছেলেকে সরাসরি হাইকোর্টের আইনজীবী ঘোষণার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হয়। আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন ও ইশরাত হাসান বাদী হয়ে এ রিট করেন।

রিটে বলা হয়, বাংলাদেশ বার কাউন্সিল পরীক্ষায় কয়েকবার অংশ নিয়েও কৃতকার্য হতে পারেননি হাইকোর্টের বিচারপতির ছেলে জুম্মান সিদ্দিকী। অথচ ১৯ সেপ্টেম্বর জুম্মান সিদ্দিকীকে সরাসরি হাইকোর্টের আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে গত ৩১ অক্টোবর গেজেট প্রকাশ করা হয়েছে।

জুম্মান সিদ্দিকীসহ বার কাউন্সিলের সংশ্লিষ্টদের রিটে বিবাদী করা হয়।