মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে রাজাকারদের তালিকা তৈরি করা হবে: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

  নওগাঁ প্রতিনিধি ২৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১:০৭:১০ | অনলাইন সংস্করণ

নওগাঁর ১১টি উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনসমূহের ফলক উন্মোচন করে মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক

মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম রাজাকারদের তালিকায় আসবে তা অসম্মানজনক। এজন্য দুঃখ প্রকাশ করছি। আগামীতে মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে রাজাকারদের তালিকা তৈরি করা হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলার ১১টি উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের উদ্বোধন ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে মতবিনিময়য় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সদর উপজেলা অডিটোরিয়ামে জেলা প্রশাসন এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।

ভুয়ায় ভরা, ওদের দাপটও বেশি- এমন মন্তব্য করে মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী বলেন, আমরা পরাজয় মানতে রাজি না। আগামী জানুয়ারি মাসে মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা প্রকাশ করা হবে। এরপর ২ মাসের মধ্যে সংশোধনের সময় দেয়া হবে। ছবিসহ মুক্তিযোদ্ধাদের পরিচয়পত্র দেয়া হবে।

তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের আবার গর্জে উঠতে হবে। বধ্যভূমিগুলো সংরক্ষণ করা হবে। সেখানে স্মৃতিস্তম্ভ তৈরি করা হবে। যেন ১০০ বছরে ঐতিহ্য বহন করে। রাস্তাঘাট ও ব্রিজ মুক্তিযোদ্ধাদের নামে হবে।

মন্ত্রী বলেছেন, মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা আরও বৃদ্ধি, বিজয় দিবস ভাতা এবং উৎসব ভাতা প্রদানের পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে যা অবিলম্বে বাস্তবায়িত হবে। মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপট এবং মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে আগামী প্রজন্মের মধ্যে সম্যক ধারণা দিতে আগামী বিসিএস পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে প্রশ্নপত্র তৈরি করা হবে। এর মধ্যে ৫০ নম্বর নির্ধারিত থাকবে ১৯৭১ সালে সংঘটিত ৯ মাসের মুক্তিযুদ্ধকে কেন্দ্র করে।

এ সময় নওগাঁ জেলা প্রশাসক হারুন অর রশিদের সভাপতিত্বে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট শহীদুজ্জামান সরকার, নওগাঁ-৩ আসনের এমপি ছলিম উদ্দিন তরফদার, মুক্তিযোদ্ধা হারুন অল-রশিদ, পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া, প্রকল্প পরিচালক আবদুল হাকিম বক্তব্য রাখেন।

এর আগে জেলার ১১টি উপজেলায় ২৪ কোটি ১ লাখ ৭৪ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিত মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনসমূহের ফলক উন্মোচন করেন।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত