সমালোচনার মুখে হাসপাতালে সাংবাদিকদের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার
jugantor
সমালোচনার মুখে হাসপাতালে সাংবাদিকদের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১৪ জানুয়ারি ২০২০, ১৯:৩৪:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

তীব্র সমালোচনার মুখে অবশেষে হাসপাতালে সাংবাদিকদের প্রবেশ ও তথ্য সংগ্রহের বিষয়ে দেয়া নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের নতুন নির্দেশনায় হাসপাতালের তথ্য প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত বিষয় বাদ দিয়ে দর্শনার্থী ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার উপ-সচিব মো. আবু রায়হান মিঞার স্বাক্ষরিত নতুন নির্দেশনাটি জারি করা হয়।

নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সাংবাদিকদের তথ্য সংগ্রহের বিষয়ে গত ১২ জানুয়ারি দেয়া নির্দেশনায় যে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছিল- তা বাদ দেয়া হয়েছে।

উপ-সচিব মো. আবু রায়হান মিঞা মোবাইল ফোনে যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ৪ জানুয়ারি রাজশাহীতে চিকিৎসকদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক বলেছিলেন, কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে কোনো সাংবাদিকরা ঢুকতে পারবেন না।

এরপর ১২ জানুয়ারি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মো. আবু রায়হান মিঞা স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনা জারি করা হয়।

এতে বলা হয়, গবেষণা, জরিপ, অন্য কোনো তথ্য বা সংবাদ সংগ্রহের জন্য তথ্য সংগ্রহকারী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবেন। সংগৃহীত তথ্য বা সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতার বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবেন। বিনা অনুমতিতে হাসপাতালের ভেতরে রোগী বা স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমের কোনো স্থিরচিত্র বা ভিডিওচিত্র ধারণ করতে পারবেন না। সংগৃহীত তথ্য প্রকাশের আগেই বস্তুনিষ্ঠতার বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সম্মতি গ্রহণ করতে হবে।

এ নির্দেশনার পরই তুমূল সমালোচনা শুরু হয়। অনেকেই বলতে থাকেন, হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবার অনিয়ম-দুর্নীতি ঢাকতেই মন্ত্রণালয়ের এমন নিষেধাজ্ঞা।

সমালোচনার মুখে অবশেষে মঙ্গলবার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সমালোচনার মুখে হাসপাতালে সাংবাদিকদের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

 যুগান্তর রিপোর্ট 
১৪ জানুয়ারি ২০২০, ০৭:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

তীব্র সমালোচনার মুখে অবশেষে হাসপাতালে সাংবাদিকদের প্রবেশ ও তথ্য সংগ্রহের বিষয়ে দেয়া নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের নতুন নির্দেশনায় হাসপাতালের তথ্য প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত বিষয় বাদ দিয়ে দর্শনার্থী ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার উপ-সচিব মো. আবু রায়হান মিঞার স্বাক্ষরিত নতুন নির্দেশনাটি জারি করা হয়।

নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সাংবাদিকদের তথ্য সংগ্রহের বিষয়ে গত ১২ জানুয়ারি দেয়া নির্দেশনায় যে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছিল- তা বাদ দেয়া হয়েছে।

উপ-সচিব মো. আবু রায়হান মিঞা মোবাইল ফোনে যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ৪ জানুয়ারি রাজশাহীতে চিকিৎসকদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক বলেছিলেন, কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে কোনো সাংবাদিকরা ঢুকতে পারবেন না।

এরপর ১২ জানুয়ারি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মো. আবু রায়হান মিঞা স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনা জারি করা হয়।

এতে বলা হয়, গবেষণা, জরিপ, অন্য কোনো তথ্য বা সংবাদ সংগ্রহের জন্য তথ্য সংগ্রহকারী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবেন। সংগৃহীত তথ্য বা সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতার বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবেন। বিনা অনুমতিতে হাসপাতালের ভেতরে রোগী বা স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমের কোনো স্থিরচিত্র বা ভিডিওচিত্র ধারণ করতে পারবেন না। সংগৃহীত তথ্য প্রকাশের আগেই বস্তুনিষ্ঠতার বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সম্মতি গ্রহণ করতে হবে।

এ নির্দেশনার পরই তুমূল সমালোচনা শুরু হয়। অনেকেই বলতে থাকেন, হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবার অনিয়ম-দুর্নীতি ঢাকতেই মন্ত্রণালয়ের এমন নিষেধাজ্ঞা।

সমালোচনার মুখে অবশেষে মঙ্গলবার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।