চীন থেকে অবশিষ্ট শিক্ষার্থীদের আনা হবে পর্যায়ক্রমে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
jugantor
চীন থেকে অবশিষ্ট শিক্ষার্থীদের আনা হবে পর্যায়ক্রমে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  সিলেট ব্যুরো  

১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২২:১৬:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, চীনে অবস্থানরত অবশিষ্ট বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের পর্যায়ক্রমে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে।

শনিবার বিকালে সিলেটের মানিকপীর টিলা এলাকায় এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি একথা বলেন।

অপর এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আইএস বধূ শামীমা বেগমকে বাংলাদেশ গ্রহণ করবে না। মানিকপীর টিলা এলাকার কমিউনিটি সেন্টারে মোয়াজ্জেম ফাতেমা ট্রাস্টের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন সাংবাদিকদের নানা প্রশ্নের উত্তর দেন।

তিনি বলেন, জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দেয়া বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক শামীমাকে বাংলাদেশ কোনোভাবেই গ্রহণ করবে না। শুধু শামীমা নয় জঙ্গি সংশ্লিষ্ট কাউকে এ দেশে ঢুকতে দেয়া হবে না।

তিনি বলেন, শামীমার সঙ্গে বাংলাদেশের কোনো সম্পর্ক নেই। তাকে নিয়ে মাথাব্যথা ব্রিটিশ সরকারের, বাংলাদেশের নয়। তার বাবা-মা ব্রিটিশ নাগরিক। শামীমা কখনও বাংলাদেশে আসেনি। তাকে কোনোভাবেই বাংলাদেশে গ্রহণ করবে না।

লন্ডন থেকে সিরিয়ায় গিয়ে আইএসে যোগ দেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত শামীমা বেগম। শামীমার ব্রিটিশ নাগরিকত্ব বাতিল করার সিদ্ধান্তকে বৈধ বলে রায় দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের আদালত।

৭ ফেব্রুয়ারি দেয়া রায়ে আদালত বলেন, ব্রিটিশ নাগরিকত্ব বাতিলের ফলে শামীমা রাষ্ট্রহীন হয়ে যাননি। মা-বাবা বাংলাদেশি বলে তিনি বাংলাদেশের নাগরিকত্ব দাবি করতে পারেন।

চীন থেকে অবশিষ্ট শিক্ষার্থীদের আনা হবে পর্যায়ক্রমে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

 সিলেট ব্যুরো 
১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। ফাইল ছবি

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, চীনে অবস্থানরত অবশিষ্ট বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের পর্যায়ক্রমে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে।

শনিবার বিকালে সিলেটের মানিকপীর টিলা এলাকায় এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি একথা বলেন।

অপর এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আইএস বধূ শামীমা বেগমকে বাংলাদেশ গ্রহণ করবে না। মানিকপীর টিলা এলাকার কমিউনিটি সেন্টারে মোয়াজ্জেম ফাতেমা ট্রাস্টের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন সাংবাদিকদের নানা প্রশ্নের উত্তর দেন।

তিনি বলেন, জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দেয়া বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক শামীমাকে বাংলাদেশ কোনোভাবেই গ্রহণ করবে না। শুধু শামীমা নয় জঙ্গি সংশ্লিষ্ট কাউকে এ দেশে ঢুকতে দেয়া হবে না।

তিনি বলেন, শামীমার সঙ্গে বাংলাদেশের কোনো সম্পর্ক নেই। তাকে নিয়ে মাথাব্যথা ব্রিটিশ সরকারের, বাংলাদেশের নয়। তার বাবা-মা ব্রিটিশ নাগরিক। শামীমা কখনও বাংলাদেশে আসেনি। তাকে কোনোভাবেই বাংলাদেশে গ্রহণ করবে না।

লন্ডন থেকে সিরিয়ায় গিয়ে আইএসে যোগ দেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত শামীমা বেগম। শামীমার ব্রিটিশ নাগরিকত্ব বাতিল করার সিদ্ধান্তকে বৈধ বলে রায় দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের আদালত।

৭ ফেব্রুয়ারি দেয়া রায়ে আদালত বলেন, ব্রিটিশ নাগরিকত্ব বাতিলের ফলে শামীমা রাষ্ট্রহীন হয়ে যাননি। মা-বাবা বাংলাদেশি বলে তিনি বাংলাদেশের নাগরিকত্ব দাবি করতে পারেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস