পেঁয়াজের দাম কমাতে পারেন না আসছেন আইন পরিবর্তন করতে: বাণিজ্যমন্ত্রীকে চুন্নু
jugantor
পেঁয়াজের দাম কমাতে পারেন না আসছেন আইন পরিবর্তন করতে: বাণিজ্যমন্ত্রীকে চুন্নু

  সংসদ রিপোর্টার  

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:৩৭:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

পেঁয়াজের দাম কমাতে পারেন না আসছেন আইন পরিবর্তন করতে: বাণিজ্যমন্ত্রীকে চুন্নু
ফাইল ছবি

পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি নিয়ে আবারও সংসদে এমপিদের সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।  বিরোধীদলীয় একজন সংসদ সদস্য বলেছেন, আপনি (টিপু মুনশি) মন্ত্রী হওয়ার পর ২০০ টাকা কেজি হল পেঁয়াজের মূল্য।  এটাকে কমাতে পারেন না আপনি আইন পরিবর্তন করার জন্য আসছেন। 

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে কোম্পানি (সংশোধন) বিল-২০২০ পাসের আগে আনীত জনমত যাচাই-বাছাই ও সংশোধনী প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালে সংসদ সদস্যরা বিষয়টি উত্থাপন করেন। 

মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, দেশের মানুষ তো খুব সমস্যায় আছে।  দেশের মানুষ চিন্তায় আছে।  সামনে রোজা, রোজার মধ্যে মানুষ তো পেঁয়াজু আর খাবে না।  এটা জনগণের খাওয়া সম্ভব না।  আগামী রোজার মধ্যে পেঁয়াজ লবণ, তেল, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মূল্য বৃদ্ধি হবে না- এই গ্যারান্টি দিতে পারবেন?

পীর ফজলুর রহমান বলেন, তিনি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেয়ার পরে আমাদের পেঁয়াজ এখন গিফট আইটেমে পরিণত হয়েছে।  এই গিফট আইটেম থেকে পেঁয়াজকে সবজিতে আবার নিয়ে যাবেন কিনা? মানুষ বিয়েতে যায় অন্য কোনো গিফট নিয়ে যায় না।  পেঁয়াজ নিয়ে যায় ২-৩ কেজি।  এটি থেকে কীভাবে মানুষকে রক্ষা করবেন?

আগামী রমজান উপলক্ষে মন্ত্রণালয়ের প্রস্তুতি সম্পর্কে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, গত তিন মাসে ৩০০ জায়গায় আমরা ৩৫ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ দিচ্ছি।  আগামী রমজান মাস উপলক্ষে ৩০ হাজার টন ভোজ্য তেল, ৩০ হাজার টন চিনি ব্যবস্থা করে রেখেছি।  গত রমজানের তুলনায় দশ গুণ শক্তি নিয়ে বাজারে থাকব।

পেঁয়াজের দাম কমাতে পারেন না আসছেন আইন পরিবর্তন করতে: বাণিজ্যমন্ত্রীকে চুন্নু

 সংসদ রিপোর্টার 
১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পেঁয়াজের দাম কমাতে পারেন না আসছেন আইন পরিবর্তন করতে: বাণিজ্যমন্ত্রীকে চুন্নু
ফাইল ছবি

পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি নিয়ে আবারও সংসদে এমপিদের সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। বিরোধীদলীয় একজন সংসদ সদস্য বলেছেন, আপনি (টিপু মুনশি) মন্ত্রী হওয়ার পর ২০০ টাকা কেজি হল পেঁয়াজের মূল্য। এটাকে কমাতে পারেন না আপনি আইন পরিবর্তন করার জন্য আসছেন।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে কোম্পানি (সংশোধন) বিল-২০২০ পাসের আগে আনীত জনমত যাচাই-বাছাই ও সংশোধনী প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালে সংসদ সদস্যরা বিষয়টি উত্থাপন করেন।

মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, দেশের মানুষ তো খুব সমস্যায় আছে। দেশের মানুষ চিন্তায় আছে। সামনে রোজা, রোজার মধ্যে মানুষ তো পেঁয়াজু আর খাবে না। এটা জনগণের খাওয়া সম্ভব না। আগামী রোজার মধ্যে পেঁয়াজ লবণ, তেল, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মূল্য বৃদ্ধি হবে না- এই গ্যারান্টি দিতে পারবেন?

পীর ফজলুর রহমান বলেন, তিনি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেয়ার পরে আমাদের পেঁয়াজ এখন গিফট আইটেমে পরিণত হয়েছে। এই গিফট আইটেম থেকে পেঁয়াজকে সবজিতে আবার নিয়ে যাবেন কিনা? মানুষ বিয়েতে যায় অন্য কোনো গিফট নিয়ে যায় না। পেঁয়াজ নিয়ে যায় ২-৩ কেজি। এটি থেকে কীভাবে মানুষকে রক্ষা করবেন?

আগামী রমজান উপলক্ষে মন্ত্রণালয়ের প্রস্তুতি সম্পর্কে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, গত তিন মাসে ৩০০ জায়গায় আমরা ৩৫ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ দিচ্ছি। আগামী রমজান মাস উপলক্ষে ৩০ হাজার টন ভোজ্য তেল, ৩০ হাজার টন চিনি ব্যবস্থা করে রেখেছি। গত রমজানের তুলনায় দশ গুণ শক্তি নিয়ে বাজারে থাকব।

 

ঘটনাপ্রবাহ : পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধি