১৫ দিনের মধ্যেই কমবে পেঁয়াজের দাম
jugantor
১৫ দিনের মধ্যেই কমবে পেঁয়াজের দাম

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০৪ মার্চ ২০২০, ১৪:৩৪:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

বাজারে নতুন পেঁয়াজ এলে আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই দাম কমবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। 


বুধবার কৃষি মন্ত্রণালয়ে নিজ দফতরে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলারের নেতৃত্বে ৬ সদস্য প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন।

আবহাওয়ার কারণে পেঁয়াজের উৎপাদন ব্যাহত হয়েছে জানিয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, পেঁয়াজের দাম তো এখনও কমেনি। আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। সমস্যা হলো বাংলাদেশ প্রাকৃতিক দুর্যোগের দেশ। গতকালকেই (মঙ্গলবার) ফরিদপুরে বৃষ্টি হয়েছে। এই ফাল্গুন মাসেও শিলাবৃষ্টি এটি কি চিন্তা করা যায়? 

এর পরও পেঁয়াজের ভালো উৎপাদনের বিষয়ে আশাবাদী মন্ত্রী। ‘আমাদের সচিবসহ সবাই খোঁজখবর নিয়েছি। এতে দেখা গেছে, পেঁয়াজের ভালো ক্ষতি হয়েছে। এই পেঁয়াজ আরও ১৫-২০ দিন পড়ে উত্তোলন হবে। তার পরও আমরা খুবই আশাবাদী এ বছর ভালো পেঁয়াজ উৎপাদন হবে’-যোগ করেন তিনি।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ১৫ দিন পর বাজারে পেঁয়াজ নামলে তাৎক্ষণিক সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে। তখন পেঁয়াজের দাম কমে যাবে।

আবদুর রাজ্জাক বলেন, আমরা আগে বারবার ধানের কথা বলেছি। এখন যেমন ধানে আমরা স্বয়ংসম্পন্ন, ইনশাল্লাহ পেঁয়াজেও আমরা নতুন জাত দিয়ে উৎপাদন ডাবল না হলেও কাছাকাছি হবে। আগে যেখানে প্রতি হেক্টরে ১০-১১ টন হতো, এখন নতুন জাতের পেঁয়াজে সেখানে ১৮-১৯ টন হবে।

তাৎক্ষণিক সমস্যা সমাধান হবে কিনা জানতে চাইলে কৃষিমন্ত্রী বলেন, পেঁয়াজের তাৎক্ষণিক সমস্যা তো সমাধান হয়ে যাবে। ১৫-২০ দিন পর বাজারে পেঁয়াজ নামলে তখন দাম কমে যাবে। তখন আবার চাষিরা দাম পাবে না। এ বিষয়ে গত কেবিনেট বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী জানতে চেয়েছিল– আমরা কী করছি। আমরা জানিয়েছি, চাষিদের কাছ থেকে আশানুরূপ সাড়া পেয়েছি উৎপাদন যথেষ্ট বেড়েছে। আশা করছি পেঁয়াজ নিয়ে সমস্যা হবে না।

কোন মাস থেকে পেঁয়াজ উত্তোলন শুরু হবে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ মাসের শেষ দিকে অর্থাৎ ১৫-২০ দিন পর উত্তোলন শুরু হবে। তখন আমরা দেখব কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ হলো কিনা। যেমন গতকাল শিলাবৃষ্টি হলো, এ মাসে তো কখনও বৃষ্টি হয় না। এটি জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে হয়েছে।

১৫ দিনের মধ্যেই কমবে পেঁয়াজের দাম

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০৪ মার্চ ২০২০, ০২:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাজারে নতুন পেঁয়াজ এলে আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই দাম কমবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।


বুধবার কৃষি মন্ত্রণালয়ে নিজ দফতরে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলারের নেতৃত্বে ৬ সদস্য প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন।

আবহাওয়ার কারণে পেঁয়াজের উৎপাদন ব্যাহত হয়েছে জানিয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, পেঁয়াজের দাম তো এখনও কমেনি। আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। সমস্যা হলো বাংলাদেশ প্রাকৃতিক দুর্যোগের দেশ। গতকালকেই (মঙ্গলবার) ফরিদপুরে বৃষ্টি হয়েছে। এই ফাল্গুন মাসেও শিলাবৃষ্টি এটি কি চিন্তা করা যায়?

এর পরও পেঁয়াজের ভালো উৎপাদনের বিষয়ে আশাবাদী মন্ত্রী। ‘আমাদের সচিবসহ সবাই খোঁজখবর নিয়েছি। এতে দেখা গেছে, পেঁয়াজের ভালো ক্ষতি হয়েছে। এই পেঁয়াজ আরও ১৫-২০ দিন পড়ে উত্তোলন হবে। তার পরও আমরা খুবই আশাবাদী এ বছর ভালো পেঁয়াজ উৎপাদন হবে’-যোগ করেন তিনি।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ১৫ দিন পর বাজারে পেঁয়াজ নামলে তাৎক্ষণিক সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে। তখন পেঁয়াজের দাম কমে যাবে।

আবদুর রাজ্জাক বলেন, আমরা আগে বারবার ধানের কথা বলেছি। এখন যেমন ধানে আমরা স্বয়ংসম্পন্ন, ইনশাল্লাহ পেঁয়াজেও আমরা নতুন জাত দিয়ে উৎপাদন ডাবল না হলেও কাছাকাছি হবে। আগে যেখানে প্রতি হেক্টরে ১০-১১ টন হতো, এখন নতুন জাতের পেঁয়াজে সেখানে ১৮-১৯ টন হবে।

তাৎক্ষণিক সমস্যা সমাধান হবে কিনা জানতে চাইলে কৃষিমন্ত্রী বলেন, পেঁয়াজের তাৎক্ষণিক সমস্যা তো সমাধান হয়ে যাবে। ১৫-২০ দিন পর বাজারে পেঁয়াজ নামলে তখন দাম কমে যাবে। তখন আবার চাষিরা দাম পাবে না। এ বিষয়ে গত কেবিনেট বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী জানতে চেয়েছিল– আমরা কী করছি। আমরা জানিয়েছি, চাষিদের কাছ থেকে আশানুরূপ সাড়া পেয়েছি উৎপাদন যথেষ্ট বেড়েছে। আশা করছি পেঁয়াজ নিয়ে সমস্যা হবে না।

কোন মাস থেকে পেঁয়াজ উত্তোলন শুরু হবে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ মাসের শেষ দিকে অর্থাৎ ১৫-২০ দিন পর উত্তোলন শুরু হবে। তখন আমরা দেখব কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ হলো কিনা। যেমন গতকাল শিলাবৃষ্টি হলো, এ মাসে তো কখনও বৃষ্টি হয় না। এটি জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে হয়েছে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধি