আমরা গরিব, এই বদনাম আর শুনতে হবে না: অর্থমন্ত্রী

  যুগান্তর রিপোর্ট ২১ মার্চ ২০১৮, ১৫:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

আবুল মাল আবদুল মুহিত
ফাইল ছবি

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মডেল। আগে বিশ্বের যে কোনো স্থানে গেলে শুধু বদনাম শুনতে হয়েছে যে বাংলাদেশ একটি গরিব দেশ। শুধু সাহায্য চায়। এখন আর বাংলাদেশ সে অবস্থানে নেই। তাই এ ধরনের বদনাম আর শুনতে হবে না।

বুধবার সচিবালয়ে ‘স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের অভিযাত্রায় বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, স্বল্পোন্নত দেশ বা এলডিসি থেকে উত্তরণে প্রথম চ্যালেঞ্জ হচ্ছে- বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী দেশের কাছ থেকে নামমাত্র সুদে যে অর্থ আমরা নিই, তা আর পাওয়া যাবে না। এ ব্যাপারে আমাদের সাবধান থাকতে হবে। তবে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। এর মাধ্যমে অনেক সম্ভাবনার দুয়ারও খুলবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এলডিসি (স্বল্পোন্নত) থেকে উন্নয়নশীল দেশ হওয়ায় ২০ তারিখ থেকে উৎসব শুরু হয়েছে। এই উৎসব চলবে ২৬ মার্চ পর্যন্ত। প্রধানমন্ত্রী এ অর্জনের রূপকার। বৃহস্পতিবার সকালে প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা দেয়া হবে। এ ছাড়া আগামী ২৬ তারিখ পর্যন্ত সরকারের সব দফতর থেকে জনগণকে যে কোনো একটি সেবা ফ্রি দেয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, আমরা মধ্য আয়ের দেশ হওয়ার ঘোষণা পেয়েছি ১৭ তারিখে। এটি বাস্তবায়ন হবে ২০২৪ সালে। এই মধ্যবর্তী ছয় বছর জাতিসংঘের কাছে আমরা এলডিসি হিসেবেই থাকব। ২০২৭ সাল পর্যন্ত স্বল্পোন্নত দেশের সব সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যাবে। তবে বিশ্বব্যাংকের কাছে আমরা ইতিমধ্যে উন্নয়নশীল দেশ হয়েছি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রাবিষয়ক (এসডিজি) মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব গাজী শফিকুল আজম প্রমুখ।

গত ১৫ মার্চ জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি (সিডিপি) জাতিসংঘ সদর দফতরে এডিসি ক্যাটাগরি থেকে বাংলাদেশের উত্তরণের যোগ্যতা অর্জনসংক্রান্ত ঘোষণা দেয়।

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter