পদ্মা সেতুতে বসেছে ৩১তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৪৬৫০ মিটার 
jugantor
পদ্মা সেতুতে বসেছে ৩১তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৪৬৫০ মিটার 

  শরীয়তপুর প্রতিনিধি  

১০ জুন ২০২০, ১৭:৪৫:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

পদ্মানদীতে প্রচণ্ড স্রোতের মধ্য দিয়ে পদ্মা সেতুর ৩১তম স্প্যান বসানো হয়েছে। এতে করে ৪ হাজার ৬৫০ মিটার দৃশ্যমান হয়েছে।

এ সময় বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শরীয়তপুরের মাঝিরঘাট-কাঁঠালিয়া-শিমুলিয়া চ্যানেল দিয়ে ফেরি, লঞ্চ, স্পিডবোট, ট্রলারসহ সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ছিল।

বুধবার বিকাল ৪টায় শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ২৫-২৬ নাম্বার পিলারের উপর ৩১তম স্প্যান বসানো হয় বলে জানিয়েছেন পদ্মা সেতু বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবীর।

পদ্মা সেতু বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবীর জানান, বুধবার সকাল ৭টায় পদ্মা সেতু ৩১তম স্প্যানটি নিয়ে মুন্সীগঞ্জের কুমারভোগ জেটি থেকে শক্তিশালী ভাসমান ক্রেন তিয়ানিহাউ শরীয়তপুরের জাজিরার উদ্দেশে রওনা দেয়।

প্রচণ্ড স্রোতের কারণে চ্যানেল দিয়ে ঢোকা যাচ্ছিল না। ২ ঘণ্টা বিলম্বে ১২টার দিকে ২৫-২৬ নাম্বার পিলারের নিকট পৌঁছে। প্রচণ্ড স্রোত থাকায় বুধবার ১২টার থেকে স্প্যানটি পিলারের উপর বসানোর কাজ শুরু হয়। বিকাল ৪টায় স্প্যানটি ২৫-২৬ নাম্বার পিলারের উপর বসানো হয়।

সেতু বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আ. কাদের বলেন, ইতিমধ্যে সেতুর প্রায় ৮৭.০৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। বাকি সব শিগগিরই বসিয়ে সেতুটি দৃশ্যমান করে তুলব বলে আশা করছি।

পদ্মা সেতুতে বসেছে ৩১তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৪৬৫০ মিটার 

 শরীয়তপুর প্রতিনিধি 
১০ জুন ২০২০, ০৫:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পদ্মানদীতে প্রচণ্ড স্রোতের মধ্য দিয়ে পদ্মা সেতুর ৩১তম স্প্যান বসানো হয়েছে। এতে করে ৪ হাজার ৬৫০ মিটার দৃশ্যমান হয়েছে। 

এ সময় বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শরীয়তপুরের মাঝিরঘাট-কাঁঠালিয়া-শিমুলিয়া চ্যানেল দিয়ে ফেরি, লঞ্চ, স্পিডবোট, ট্রলারসহ সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ছিল। 

বুধবার বিকাল ৪টায় শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ২৫-২৬ নাম্বার পিলারের উপর ৩১তম স্প্যান বসানো হয় বলে জানিয়েছেন পদ্মা সেতু বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবীর। 

পদ্মা সেতু বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবীর জানান, বুধবার সকাল ৭টায় পদ্মা সেতু ৩১তম স্প্যানটি নিয়ে মুন্সীগঞ্জের কুমারভোগ জেটি থেকে শক্তিশালী ভাসমান ক্রেন তিয়ানিহাউ শরীয়তপুরের জাজিরার উদ্দেশে রওনা দেয়।  

প্রচণ্ড স্রোতের কারণে চ্যানেল দিয়ে ঢোকা যাচ্ছিল না। ২ ঘণ্টা বিলম্বে ১২টার দিকে ২৫-২৬ নাম্বার পিলারের নিকট পৌঁছে। প্রচণ্ড স্রোত থাকায় বুধবার ১২টার থেকে স্প্যানটি পিলারের উপর বসানোর কাজ শুরু হয়। বিকাল ৪টায় স্প্যানটি ২৫-২৬ নাম্বার পিলারের উপর বসানো হয়। 

সেতু বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আ. কাদের বলেন, ইতিমধ্যে সেতুর প্রায় ৮৭.০৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। বাকি সব শিগগিরই বসিয়ে সেতুটি দৃশ্যমান করে তুলব বলে আশা করছি।
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : পদ্মা সেতু নির্মাণ