প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত মাদ্রাসা অধ্যক্ষ মাওলানা ছফির উদ্দিনের মৃত্যু
jugantor
আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির শোক
প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত মাদ্রাসা অধ্যক্ষ মাওলানা ছফির উদ্দিনের মৃত্যু

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০৭ জুলাই ২০২০, ১৮:৪১:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

মাওলানা ছফির উদ্দিন। ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত মাদ্রাসা অধ্যক্ষ কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জের বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন মাওলানা ছফির উদ্দিন আর নেই। মঙ্গলবার দুপুর ২টায় বার্ধক্যজনিত কারণে নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

মাওলানা ছফির উদ্দিন কিরাটন ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ১৯৯৭ সালে বিভাগীয় অধ্যক্ষ ক্যাটাগরিতে প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পেয়েছিলেন। তিনি স্ত্রী ও ৯ সন্তানসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। তিনি ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-রেজিস্ট্রার ড. মো. আবু হানিফার পিতা।

তার মৃত্যুতে করিমগঞ্জে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

মরহুমের নামাজে জানাজা বুধবার সকাল ৯টায় তার নিজ বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার রতনপুর গ্রামে অনুষ্ঠিত হবে। নামাজে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

বিশিষ্ট এ আলেমে দ্বীনের মৃত্যুতে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ, ট্রেজারার, জনাব এস.এম. এহসান কবীর, রেজিস্ট্রার, জনাব এ. এস. মাহমুদ, পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) মো. রেজাউল করিম, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর সিরাজ উদ্দিন আহমাদ, পরিচালক অর্থ ও হিসাব, প্রফেসর ড. মো. গোলাম আজম আযাদ, সহকারী অধ্যাপক ড. জাভেদ আহমাদ, সহকারী রেজিস্ট্রার মো. জাকির হোসেন ও জনাব ফাহাদ আহমদ মোমতাজী, সহকারী পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) জনাব মো. জিয়াউর রহমান সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির শোক

প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত মাদ্রাসা অধ্যক্ষ মাওলানা ছফির উদ্দিনের মৃত্যু

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০৭ জুলাই ২০২০, ০৬:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মাওলানা ছফির উদ্দিন। ফাইল ছবি
মাওলানা ছফির উদ্দিন। ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত মাদ্রাসা অধ্যক্ষ কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জের বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন মাওলানা ছফির উদ্দিন আর নেই। মঙ্গলবার দুপুর ২টায় বার্ধক্যজনিত কারণে নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

মাওলানা ছফির উদ্দিন কিরাটন ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ১৯৯৭ সালে বিভাগীয় অধ্যক্ষ ক্যাটাগরিতে প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পেয়েছিলেন। তিনি স্ত্রী ও ৯ সন্তানসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। তিনি ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-রেজিস্ট্রার ড. মো. আবু হানিফার পিতা।

তার মৃত্যুতে করিমগঞ্জে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

মরহুমের নামাজে জানাজা বুধবার সকাল ৯টায় তার নিজ বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার রতনপুর গ্রামে অনুষ্ঠিত হবে। নামাজে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

বিশিষ্ট এ আলেমে দ্বীনের মৃত্যুতে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ, ট্রেজারার, জনাব এস.এম. এহসান কবীর, রেজিস্ট্রার, জনাব এ. এস. মাহমুদ, পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) মো. রেজাউল করিম, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর সিরাজ উদ্দিন আহমাদ, পরিচালক অর্থ ও হিসাব, প্রফেসর ড. মো. গোলাম আজম আযাদ, সহকারী অধ্যাপক ড. জাভেদ আহমাদ, সহকারী রেজিস্ট্রার মো. জাকির হোসেন ও জনাব ফাহাদ আহমদ মোমতাজী, সহকারী পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) জনাব মো. জিয়াউর রহমান সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।