উত্তর মেসিডোনিয়ায় ট্রাক থেকে ১৪৪ বাংলাদেশি উদ্ধার
jugantor
উত্তর মেসিডোনিয়ায় ট্রাক থেকে ১৪৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৮ জুলাই ২০২০, ১১:২১:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

উত্তর মেসিডোনিয়ায় ট্রাক থেকে ১৪৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

গ্রিসের উত্তরের প্রতিবেশী নর্থ মেসিডোনিয়ায় একটি ট্রাক থেকে এবার ১৪৪ বাংলাদেশিকে উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রিস-মেসিডোনিয়া সীমান্ত এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। এর আগে গত মাসের শেষ দিকে বাংলাদেশের আরও ৬৪ নাগরিককে একইভাবে ট্রাক থেকে উদ্ধার করা হয়। খবর আলজাজিরার।


উত্তর মেসিডোনিয়ার পুলিশ জানিয়েছে, গেভজেলিজা শহরের কাছে সোমবার রাতে একটি ট্রাককে থামায় সীমান্তে টহলরত নিরাপত্তা বাহিনী।


এর পরেই ওই ট্রাকের ভেতর থেকে দুই শতাধিক অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়। ওই ট্রাকের চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিয়মিত টহলে একটি ট্রাক থেকে ওই অভিবাসীদের উদ্ধার করা হয়েছে। ১৪৪ বাংলাদেশি ছাড়াও ৬৭ পাকিস্তানি নাগরিক ছিলেন ওই ট্রাকে।


ট্রাক থেকে উদ্ধার হওয়া অভিবাসীদেরও গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের একটি আশ্রয়কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। তাদের গ্রিসে পাঠানো হতে পারে।


চলতি বছরের শুরু থেকেই করোনা মহামারীর কারণে গ্রিসের সঙ্গে উত্তর মেসিডোনিয়ার সীমান্ত বন্ধ করে দেয়া হয়। তার পরও মানবপাচার থেমে নেই।


কিন্তু মানবপাচারকারী চক্রগুলো ওই এলাকায় এখনও সক্রিয় রয়েছে। এসব চক্র অভিবাসীদের অবৈধভাবে তুরস্ক হয়ে গ্রিসে, এর পর উত্তরের দিক থেকে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে যেতে সহায়তা করে আসছে।


উত্তর মেসিডোনিয়ায় ট্রাক থেকে ১৪৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৮ জুলাই ২০২০, ১১:২১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
উত্তর মেসিডোনিয়ায় ট্রাক থেকে ১৪৪ বাংলাদেশি উদ্ধার
ছবি: সংগৃহীত

গ্রিসের উত্তরের প্রতিবেশী নর্থ মেসিডোনিয়ায় একটি ট্রাক থেকে এবার ১৪৪ বাংলাদেশিকে উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রিস-মেসিডোনিয়া সীমান্ত এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। এর আগে গত মাসের শেষ দিকে বাংলাদেশের আরও ৬৪ নাগরিককে একইভাবে ট্রাক থেকে উদ্ধার করা হয়। খবর আলজাজিরার।


উত্তর মেসিডোনিয়ার পুলিশ জানিয়েছে, গেভজেলিজা শহরের কাছে সোমবার রাতে একটি ট্রাককে থামায় সীমান্তে টহলরত নিরাপত্তা বাহিনী।


এর পরেই ওই ট্রাকের ভেতর থেকে দুই শতাধিক অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়। ওই ট্রাকের চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিয়মিত টহলে একটি ট্রাক থেকে ওই অভিবাসীদের উদ্ধার করা হয়েছে। ১৪৪ বাংলাদেশি ছাড়াও ৬৭ পাকিস্তানি নাগরিক ছিলেন ওই ট্রাকে।


ট্রাক থেকে উদ্ধার হওয়া অভিবাসীদেরও গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের একটি আশ্রয়কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। তাদের গ্রিসে পাঠানো হতে পারে। 


চলতি বছরের শুরু থেকেই করোনা মহামারীর কারণে গ্রিসের সঙ্গে উত্তর মেসিডোনিয়ার সীমান্ত বন্ধ করে দেয়া হয়। তার পরও মানবপাচার থেমে নেই।


কিন্তু মানবপাচারকারী চক্রগুলো ওই এলাকায় এখনও সক্রিয় রয়েছে। এসব চক্র অভিবাসীদের অবৈধভাবে তুরস্ক হয়ে গ্রিসে, এর পর উত্তরের দিক থেকে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে যেতে সহায়তা করে আসছে।