নিম্ন আদালতে ৬৭ হাজার আসামির জামিন
jugantor
নিম্ন আদালতে ৬৭ হাজার আসামির জামিন

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৬ জুলাই ২০২০, ২০:২২:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ৫০ কার্যদিবসে দেশের অধস্তন ভার্চুয়াল আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন ৬৭ হাজার ২২৯ জন আসামি। এর মধ্যে ৭৫৫ জন শিশু রয়েছে।

রোববার সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন থেকে এই তথ্য জানানো হয়। জামিনপ্রাপ্তরা বিভিন্ন ফৌজদারি মামলার আসামি।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে জনগণকে স্বল্প পরিসরে বিচার দিতে চলছে দেশের ভার্চুয়াল আদালত। উচ্চ ও নিম্ন আদালতে চালু হওয়া এই আদালতগুলোতে শুরু থেকে জামিন শুনানির নির্দেশ দেন সুপ্রিম কোর্ট। পরবর্তীকালে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা, কারাগারে থাকা আসামির রিমান্ড আবেদনসহ মামলা সংক্রান্ত অন্যান্য আবেদন গ্রহণ, শুনানির বিষয়ে আদালতগুলোকে আদেশ দেয়া হয়।

প্রাপ্ত তথ্যে জানানো হয়, গত ১১ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত মোট ৫০ কার্যদিবসে সারা দেশে অধস্তন আদালতে ভার্চুয়াল শুনানিতে মোট ১ লাখ ৩৬ হাজার ৩৯৯টি জামিনের দরখাস্ত নিষ্পত্তি এবং ৬৭ হাজার ২২৯ জন অভিযুক্ত ব্যক্তির জামিন মঞ্জুর হয়েছে।

মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে চালু হয় ভার্চুয়াল কোর্ট। উচ্চ ও নিম্ন আদালতের বিচারক, আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থী জনগণকে করোনাভাইরাসের হাত থেকে সুরক্ষা দিতেই এই আদালত পদ্ধতি চালু হয়।

ভার্চুয়ালে ৭৫৫ শিশুর জামিন: ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে বিভিন্ন অভিযোগে তিনটি শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের ৭৫৫ জন শিশুর জামিন দিয়েছেন আদালত। জামিনপ্রাপ্ত ৭৪৬ শিশুকে ইতিমধ্যে তাদের অভিভাবকের কাছে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

ভার্চুয়াল কোর্টের কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর গত ৫০ কার্যদিবসে ওই শিশুরা জামিন পায়। সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন সূত্রে রোববার (২৬ জুলাই) এ তথ্য জানা যায়।

নিম্ন আদালতে ৬৭ হাজার আসামির জামিন

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৬ জুলাই ২০২০, ০৮:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ৫০ কার্যদিবসে দেশের অধস্তন ভার্চুয়াল আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন ৬৭ হাজার ২২৯ জন আসামি। এর মধ্যে ৭৫৫ জন শিশু রয়েছে।

রোববার সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন থেকে এই তথ্য জানানো হয়। জামিনপ্রাপ্তরা বিভিন্ন ফৌজদারি মামলার আসামি।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে জনগণকে স্বল্প পরিসরে বিচার দিতে চলছে দেশের ভার্চুয়াল আদালত। উচ্চ ও নিম্ন আদালতে চালু হওয়া এই আদালতগুলোতে শুরু থেকে জামিন শুনানির নির্দেশ দেন সুপ্রিম কোর্ট। পরবর্তীকালে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা, কারাগারে থাকা আসামির রিমান্ড আবেদনসহ মামলা সংক্রান্ত অন্যান্য আবেদন গ্রহণ, শুনানির বিষয়ে আদালতগুলোকে আদেশ দেয়া হয়।

প্রাপ্ত তথ্যে জানানো হয়, গত ১১ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত মোট ৫০ কার্যদিবসে সারা দেশে অধস্তন আদালতে ভার্চুয়াল শুনানিতে মোট ১ লাখ ৩৬ হাজার ৩৯৯টি জামিনের দরখাস্ত নিষ্পত্তি এবং ৬৭ হাজার ২২৯ জন অভিযুক্ত ব্যক্তির জামিন মঞ্জুর হয়েছে।

মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে চালু হয় ভার্চুয়াল কোর্ট। উচ্চ ও নিম্ন আদালতের বিচারক, আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থী জনগণকে করোনাভাইরাসের হাত থেকে সুরক্ষা দিতেই এই আদালত পদ্ধতি চালু হয়।

ভার্চুয়ালে ৭৫৫ শিশুর জামিন: ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে বিভিন্ন অভিযোগে তিনটি শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের ৭৫৫ জন শিশুর জামিন দিয়েছেন আদালত। জামিনপ্রাপ্ত ৭৪৬ শিশুকে ইতিমধ্যে তাদের অভিভাবকের কাছে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

ভার্চুয়াল কোর্টের কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর গত ৫০ কার্যদিবসে ওই শিশুরা জামিন পায়। সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন সূত্রে রোববার (২৬ জুলাই) এ তথ্য জানা যায়।