শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও বিচার দেখে যেতে চান শিপ্রা: র‌্যাব

  যুগান্তর রিপোর্ট ১০ আগস্ট ২০২০, ২০:৩৭:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

শিপ্রা দেবনাথ। ছবি: সংগৃহীত

জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দেখে যেতে চান বলে জানিয়েছেন মেজর (অব:) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদের সহযোগী শিপ্রা দেবনাথ। র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে এ কথা বলেছেন শিপ্রা দেবনাথ।

সোমবার র‌্যাব সদর দফতরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ।

শিপ্রাকে উদ্ধৃত করে র‌্যাবের মুখপাত্র আশিক বিল্লাহ বলেন, শিপ্রা এ মর্মান্তিক ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চান। আমাদের বলেছেন, জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দেখে যেতে চান।

এর আগে রোববার কক্সবাজারের রামু থানার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় শিপ্রা জামিনে মুক্ত হয়েছেন। এদিন সিনহার তথ্যচিত্র নির্মাণ কাজের সহযোগী সিফাত কারাগার থেকে মুক্তি পান।

র‌্যাব জানিয়েছে, সোমবার দুপুর দুইটার দিকে সিফাতকে কারাগার থেকে মুক্তি দেওয়া হয়। সিফাত ও শিপ্রা দু’জনই তাদের নিকতাত্মীয়ের বাসায় আছেন। তাদের সঙ্গে র‌্যাব ও তদন্তকারী কর্মকর্তার সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রয়েছে।

সিফাত ও শিপ্রা দু’জনের সঙ্গেই র‌্যাবের যোগাযোগ রয়েছে জানিয়ে আশিক বিল্লাহ বলেন, প্রয়োজনের তারা আমাদের সঙ্গেও যোগাযোগ করছেন। আমরাও সার্বক্ষণিক তাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি। এমনকী মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার সঙ্গেও তাদের নিয়মিত যোগাযোগ হচ্ছে। আর তারা যদি কোনো ধরনের নিরাপত্তাহীনতায় ভোগে তাদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য আমরা সার্বক্ষণিক প্রস্তুত।

র‌্যাবের তদন্ত দল মনে করছে, সাবেক ওসি প্রদীপ, পরিদর্শক লিয়াকত আলী ও নন্দদুলাল রক্ষিতকে জিজ্ঞাসাবাদের আগে এ ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও সাক্ষী সিফাত ও শিপ্রার সঙ্গে বিস্তারিত কথা বলা প্রয়োজন।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আজ থেকে মূল তিন অভিযুক্তকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার কথা ছিল। সেটি করা হচ্ছে না।

আশিক বিল্লাহ জানান, এর আগে পুলিশ সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর টেকনাফ থানায় দুটি ও রামু থানায় একটিসহ যে তিনটি মামলা করেছিল, সেই মামলাগুলোর তদন্তও র‌্যাব করবে। এ ব্যাপারে আদালতের অনুমতি পেয়েছেন তারা।

ঘটনাপ্রবাহ : মেজর সিনহার মৃত্যু

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত