আইন অম্যান্যকারীকে অবশ্যই বিচারের মুখোমুখি হতে হবে: আইনমন্ত্রী
jugantor
আইন অম্যান্যকারীকে অবশ্যই বিচারের মুখোমুখি হতে হবে: আইনমন্ত্রী

  ফরিদপুর ব্যুরো  

১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:৩৩:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

‘সবাইকে আইন মানতে হবে, অন্যথায় বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। বিচার বিভাগের মূল কাজ ন্যায়বিচার নিশ্চিত করা। বিচারক ও আইনজীবীদের সম্মিলিতভাবে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে।’

রোববার দুপুরে ফরিদপুর চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবন উদ্বোধনকালে ভিডিও কনফারেন্সে এ কথা বলেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে বিচার কাজ যখন থমকে গিয়েছিল তখন ভার্চুয়াল কোর্টের মাধ্যমে বিচারকাজ চালিয়ে নেয়া হয়েছে। এ সময় ৫০ হাজার বেল পিটিশন শুনানি হয়েছে।

জেলা ও দায়রা জজ মো. সেলিম মিয়ার সভাপতিত্বে ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সুধী সমাবেশে ফরিদপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মো. মঞ্জুর হোসেন, জেলা প্রশাসক অতুল সরকার, পুলিশ সুপার মো. আলীমুজ্জামানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মো. মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সনও ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেন।

উল্লেখ্য, ৫৪ কোটি ২৯ লাখ ৪৬ হাজার টাকা প্রাক্কলিত ব্যয় ধরে আদালত চত্বরে ১২ তলা ফাউন্ডেশনের ভবনটির ৮ তলা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে।

আইন অম্যান্যকারীকে অবশ্যই বিচারের মুখোমুখি হতে হবে: আইনমন্ত্রী

 ফরিদপুর ব্যুরো 
১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

‘সবাইকে আইন মানতে হবে, অন্যথায় বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। বিচার বিভাগের মূল কাজ ন্যায়বিচার নিশ্চিত করা। বিচারক ও আইনজীবীদের সম্মিলিতভাবে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে।’

রোববার দুপুরে ফরিদপুর চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবন উদ্বোধনকালে ভিডিও কনফারেন্সে এ কথা বলেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে বিচার কাজ যখন থমকে গিয়েছিল তখন ভার্চুয়াল কোর্টের মাধ্যমে বিচারকাজ চালিয়ে নেয়া হয়েছে। এ সময় ৫০ হাজার বেল পিটিশন শুনানি হয়েছে।

জেলা ও দায়রা জজ মো. সেলিম মিয়ার সভাপতিত্বে ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সুধী সমাবেশে ফরিদপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মো. মঞ্জুর হোসেন, জেলা প্রশাসক অতুল সরকার, পুলিশ সুপার মো. আলীমুজ্জামানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মো. মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সনও ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেন।

উল্লেখ্য, ৫৪ কোটি ২৯ লাখ ৪৬ হাজার টাকা প্রাক্কলিত ব্যয় ধরে আদালত চত্বরে ১২ তলা ফাউন্ডেশনের ভবনটির ৮ তলা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে।

 
আরও খবর