সীমান্তে ৭৩টি নতুন আধুনিক কম্পোজিট বিওপি নির্মাণ করবে বিজিবি
jugantor
সীমান্তে ৭৩টি নতুন আধুনিক কম্পোজিট বিওপি নির্মাণ করবে বিজিবি

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:১৮:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ফাইল ছবি

অপারেশনাল সক্ষমতা বৃদ্ধি ও সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সীমান্তে ৭৩টি নতুন আধুনিক কম্পোজিট বর্ডার আউট পোস্ট (বিওপি) নির্মাণ করবে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

এতে বিজিবির অপারেশনাল সক্ষমতা বহুগুণে বৃদ্ধিসহ সেনা মনোবলের ওপর ইতিবাচক প্রভাব বিস্তার করবে, যা দেশ রক্ষার কাজে নিয়োজিত এই বাহিনীর সার্বিক কল্যাণ এবং উৎকর্ষতা বৃদ্ধিতে দৃষ্টান্তমূলক উদ্যোগ হিসেবে পরিগণিত হবে।

মঙ্গলবার বিজিবির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিক প্রচেষ্টা ও প্রত্যক্ষ নির্দেশনায় এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এসব বিওপি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় ইতোপূর্বে ১৩৪টি বিওপি নির্মিত হয়েছে। নতুন ৭৩টি আধুনিক বিওপি নির্মাণের ফলে সীমান্তে জনবল বৃদ্ধি, বিওপিতে কর্মরত বিজিবি সদস্যদের বাসস্থান সেবা উন্নতকরণ, ভৌত সুবিধা এবং কাঠামোগত নিরাপত্তা জোরদার করা সম্ভব হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সীমান্তের অতন্দ্র প্রহরী খ্যাত বিজিবি এখন বাংলাদেশের মানুষের আস্থার প্রতীক। দুর্গম পার্বত্য অঞ্চল, নদী সীমান্তসহ সমগ্র বাংলাদেশের স্থল সীমান্তজুড়ে বিজিবি দেশের সীমান্ত সুরক্ষা ও নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থেকে সততা, নিষ্ঠা, দক্ষতা ও আন্তরিকতার সঙ্গে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রদত্ত দায়িত্ব ও কর্তব্য নিরবিচ্ছিন্নভাবে পালন করে আসছে। সীমান্তে জনবল বৃদ্ধি, বিওপিতে কর্মরত বিজিবি সদস্যদের বাসস্থান সেবা উন্নতকরণ, ভৌত সুবিধা এবং কাঠামোগত নিরাপত্তা জোরদারকরণে প্রধানমন্ত্রী এই বাহিনীর ধারাবাহিক উন্নয়নে বিভিন্ন যুগান্তকারী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় আজ একনেক সভায় আরও ৭৩টি নতুন কম্পোজিট বিওপি নির্মাণের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন প্রদান করেছেন।

সীমান্তে ৭৩টি নতুন আধুনিক কম্পোজিট বিওপি নির্মাণ করবে বিজিবি

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

অপারেশনাল সক্ষমতা বৃদ্ধি ও সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সীমান্তে ৭৩টি নতুন আধুনিক কম্পোজিট বর্ডার আউট পোস্ট (বিওপি) নির্মাণ করবে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।  

এতে বিজিবির অপারেশনাল সক্ষমতা বহুগুণে বৃদ্ধিসহ সেনা মনোবলের ওপর ইতিবাচক প্রভাব বিস্তার করবে, যা দেশ রক্ষার কাজে নিয়োজিত এই বাহিনীর সার্বিক কল্যাণ এবং উৎকর্ষতা বৃদ্ধিতে দৃষ্টান্তমূলক উদ্যোগ হিসেবে পরিগণিত হবে।

মঙ্গলবার বিজিবির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। 

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিক প্রচেষ্টা ও প্রত্যক্ষ নির্দেশনায় এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এসব বিওপি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।  প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় ইতোপূর্বে ১৩৪টি বিওপি নির্মিত হয়েছে। নতুন ৭৩টি আধুনিক বিওপি নির্মাণের ফলে সীমান্তে জনবল বৃদ্ধি, বিওপিতে কর্মরত বিজিবি সদস্যদের বাসস্থান সেবা উন্নতকরণ, ভৌত সুবিধা এবং কাঠামোগত নিরাপত্তা জোরদার করা সম্ভব হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সীমান্তের অতন্দ্র প্রহরী খ্যাত বিজিবি এখন বাংলাদেশের মানুষের আস্থার প্রতীক। দুর্গম পার্বত্য অঞ্চল, নদী সীমান্তসহ সমগ্র বাংলাদেশের স্থল সীমান্তজুড়ে বিজিবি দেশের সীমান্ত সুরক্ষা ও নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থেকে সততা, নিষ্ঠা, দক্ষতা ও আন্তরিকতার সঙ্গে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রদত্ত দায়িত্ব ও কর্তব্য নিরবিচ্ছিন্নভাবে পালন করে আসছে। সীমান্তে জনবল বৃদ্ধি, বিওপিতে কর্মরত বিজিবি সদস্যদের বাসস্থান সেবা উন্নতকরণ, ভৌত সুবিধা এবং কাঠামোগত নিরাপত্তা জোরদারকরণে প্রধানমন্ত্রী এই বাহিনীর ধারাবাহিক উন্নয়নে বিভিন্ন যুগান্তকারী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় আজ একনেক সভায় আরও ৭৩টি নতুন কম্পোজিট বিওপি নির্মাণের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন প্রদান করেছেন।