প্রধানমন্ত্রীকে ফিজিওথেরাপি স্টুডেন্টস ইউনিয়নের স্মারকলিপি
jugantor
প্রধানমন্ত্রীকে ফিজিওথেরাপি স্টুডেন্টস ইউনিয়নের স্মারকলিপি

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০১ অক্টোবর ২০২০, ১১:১৬:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ফিজিওথেরাপিস্টদের সমস্যা সমাধানে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারক লিপি দিয়েছে করেছে বাংলাদেশ ফিজিওথেরাপি স্টুডেন্টস ইউনিয়ন (বাপসু)।

এ উপলক্ষে বাপসুর সদস্যরা বুধবার রাজধানীর আগারগাঁও মোড় থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে পদযাত্রা করে।

কিছু দূর যাওয়ার পর পুলিশ প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে এবং বাপসুর ৩ সদস্যের প্রতিনিধিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় প্রতিনিধিরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারকলিপি জমা দেন।

প্রসঙ্গত বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে ফিজিওথেরাপি শিক্ষার্থীরা স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে সাত দফা দাবি জানায়।

যে দাবিগুলো নিয়ে তারা দীর্ঘদিন আন্দোলন করছে সেগুলো হলো-

১. দ্রুত বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিওথেরাপি ভবন নির্মাণ ও বাস্তবায়ন করতে হবে। ভবন নির্মাণ সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত অস্থায়ী ক্যাম্পাসে কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করতে হবে।

২. সরকারি প্রতিষ্ঠানের ইন্টার্ন ফিজিওথেরাপিস্টদের জন্য মাসিক ইন্টার্ন ভাতা প্রদান করতে হবে।

৩. অবিলম্বে সরকারি হাসপাতালে ফিজিওথেরাপিস্টদের পদ সৃজন ও নিয়োগ দিতে হবে।

৪. ফিজিওথেরাপিতে ভর্তি পরীক্ষা দেয়ার ন্যূনতম জিপিএ (এসএসসি+এইচএসসি) ৯.০০ নির্ধারণ করতে হবে।

৫. সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিষয়ভিত্তিক পর্যাপ্ত শিক্ষক নিয়োগ দিতে হবে এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে বিষয়ভিত্তিক পর্যাপ্ত শিক্ষক থাকা বাধ্যতামূলক করতে হবে।

৬. সব জেলা-উপজেলা পর্যায়ে স্বতন্ত্র ফিজিওথেরাপি বিভাগ ও জনবল নিয়োগ দিতে হবে।

৭. ফিজিওথেরাপি শিক্ষার্থীদের জন্য সরকারি পর্যায়ে উচ্চশিক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীকে ফিজিওথেরাপি স্টুডেন্টস ইউনিয়নের স্মারকলিপি

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০১ অক্টোবর ২০২০, ১১:১৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফিজিওথেরাপিস্টদের সমস্যা সমাধানে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারক লিপি দিয়েছে করেছে বাংলাদেশ ফিজিওথেরাপি স্টুডেন্টস ইউনিয়ন (বাপসু)।

এ উপলক্ষে বাপসুর সদস্যরা বুধবার রাজধানীর আগারগাঁও মোড় থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে পদযাত্রা করে।

কিছু দূর যাওয়ার পর পুলিশ প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে এবং বাপসুর ৩ সদস্যের প্রতিনিধিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় প্রতিনিধিরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারকলিপি জমা দেন।

প্রসঙ্গত বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে ফিজিওথেরাপি শিক্ষার্থীরা স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে সাত দফা দাবি জানায়।

যে দাবিগুলো নিয়ে তারা দীর্ঘদিন আন্দোলন করছে সেগুলো হলো-

১. দ্রুত বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিওথেরাপি ভবন নির্মাণ ও বাস্তবায়ন করতে হবে। ভবন নির্মাণ সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত অস্থায়ী ক্যাম্পাসে কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করতে হবে।

২. সরকারি প্রতিষ্ঠানের ইন্টার্ন ফিজিওথেরাপিস্টদের জন্য মাসিক ইন্টার্ন ভাতা প্রদান করতে হবে।

৩. অবিলম্বে সরকারি হাসপাতালে ফিজিওথেরাপিস্টদের পদ সৃজন ও নিয়োগ দিতে হবে।

৪. ফিজিওথেরাপিতে ভর্তি পরীক্ষা দেয়ার ন্যূনতম জিপিএ (এসএসসি+এইচএসসি) ৯.০০ নির্ধারণ করতে হবে।

৫. সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিষয়ভিত্তিক পর্যাপ্ত শিক্ষক নিয়োগ দিতে হবে এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে বিষয়ভিত্তিক পর্যাপ্ত শিক্ষক থাকা বাধ্যতামূলক করতে হবে।

৬. সব জেলা-উপজেলা পর্যায়ে স্বতন্ত্র ফিজিওথেরাপি বিভাগ ও জনবল নিয়োগ দিতে হবে।

৭. ফিজিওথেরাপি শিক্ষার্থীদের জন্য সরকারি পর্যায়ে উচ্চশিক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে।