মাস্ক পরা নিশ্চিতে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত 
jugantor
মাস্ক পরা নিশ্চিতে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত 

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১৯ অক্টোবর ২০২০, ১৫:৩১:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

মাস্ক পরা নিশ্চিতে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত 

কোভিড-১৯ মহামারীর মধ্যে ঘরের বাইরে এলে সবাইকে মাস্ক পরতে হবে। সবার মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আইন প্রয়োগ করতে মাঠ প্রশাসনকে নির্দেশনা দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠকে মাস্ক ব্যবহার নিয়ে এসব আলোচনা হয় বলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন।

সভাশেষে এক ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, ইউরোপ-আমেরিকায় আবারও কোভিড-১৯ ভাইরাসের ব্যাপক প্রাদুর্ভাব দেখা যাচ্ছে। সে জন্য প্রধানমন্ত্রী বিশেষভাবে নজর দিয়েছেন, সবাই যাতে এ বিষয়ে সতর্ক থাকি, সবাই যেন মাস্ক ব্যবহার করি। বাকি কি হবে না হবে সেটি আনসার্টেইন বিষয়।

মাস্ক ব্যবহারে শিথিলতার বিষয়টি নিয়ে মন্ত্রিসভায় আলোচনা হয়েছে জানিয়ে সচিব বলেন, মাস্ক যদি আমরা সবাই ব্যবহার করি, তা হলে অটোমেটিক আমাদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভবনা কমে আসে। এ জন্য মানুষকে আরও বেশি করে সচেতন করতে হবে, অনেকের মধ্যে একটু শিথিল ভাব দেখা যাচ্ছে।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে গত জুলাই মাসের শেষ দিকে বাসার বাইরে সব জায়গায় সবার মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে সরকার। এ মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ বাংলাদেশের লাগছে বলে সতর্ক করা হলেও অনেকে মাস্ক ব্যবহারে উদাসীন।

পাবলিক প্লেসে কোনোভাবেই মাস্ক ছাড়া যাওয়া যাবে না জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মসজিদ, জনসমাগম স্থল, উৎসবে কেউ যেন মাস্ক ছাড়া না যান, তা নিশ্চিত করা হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিসভা আশা প্রকাশ করেছেন, সবাই সচেতন হয়ে মাস্ক ব্যবহারে আরেকটু বেশি মনোযোগী হবেন, তা হলে অটোমেটিক্যালি আমরা এটি থেকে একটু রিলিফ পাব। মন্ত্রিসভার নির্দেশনা হচ্ছে, সবাই যেন মাস্ক ব্যবহার করি।

মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মোবাইল কোর্ট ব্যবহারের নির্দেশনা কমিশনারদের দেয়া হয়েছে। যেভাবে যতটুকু সম্ভব মানুষকে সব জায়গায় রিকোয়েস্ট করে, মোটিভেট করে বা ফোর্স করে যদি করতে হয়, আইন প্রয়োগ করতে হলে আইনও প্রয়োগ করবে, অসুবিধা নেই।


মাস্ক পরা নিশ্চিতে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত 

 যুগান্তর রিপোর্ট 
১৯ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মাস্ক পরা নিশ্চিতে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত 
ফাইল ছবি

কোভিড-১৯ মহামারীর মধ্যে ঘরের বাইরে এলে সবাইকে মাস্ক পরতে হবে। সবার মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আইন প্রয়োগ করতে মাঠ প্রশাসনকে নির্দেশনা দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠকে মাস্ক ব্যবহার নিয়ে এসব আলোচনা হয় বলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন।

সভাশেষে এক ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, ইউরোপ-আমেরিকায় আবারও কোভিড-১৯ ভাইরাসের ব্যাপক প্রাদুর্ভাব দেখা যাচ্ছে। সে জন্য প্রধানমন্ত্রী বিশেষভাবে নজর দিয়েছেন, সবাই যাতে এ বিষয়ে সতর্ক থাকি, সবাই যেন মাস্ক ব্যবহার করি। বাকি কি হবে না হবে সেটি আনসার্টেইন বিষয়।

মাস্ক ব্যবহারে শিথিলতার বিষয়টি নিয়ে মন্ত্রিসভায় আলোচনা হয়েছে জানিয়ে সচিব বলেন, মাস্ক যদি আমরা সবাই ব্যবহার করি, তা হলে অটোমেটিক আমাদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভবনা কমে আসে। এ জন্য মানুষকে আরও বেশি করে সচেতন করতে হবে, অনেকের মধ্যে একটু শিথিল ভাব দেখা যাচ্ছে।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে গত জুলাই মাসের শেষ দিকে বাসার বাইরে সব জায়গায় সবার মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে সরকার।  এ মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ বাংলাদেশের লাগছে বলে সতর্ক করা হলেও অনেকে মাস্ক ব্যবহারে উদাসীন।

পাবলিক প্লেসে কোনোভাবেই মাস্ক ছাড়া যাওয়া যাবে না জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মসজিদ, জনসমাগম স্থল, উৎসবে কেউ যেন মাস্ক ছাড়া না যান, তা নিশ্চিত করা হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিসভা আশা প্রকাশ করেছেন, সবাই সচেতন হয়ে মাস্ক ব্যবহারে আরেকটু বেশি মনোযোগী হবেন, তা হলে অটোমেটিক্যালি আমরা এটি থেকে একটু রিলিফ পাব। মন্ত্রিসভার নির্দেশনা হচ্ছে, সবাই যেন মাস্ক ব্যবহার করি।

মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মোবাইল কোর্ট ব্যবহারের নির্দেশনা কমিশনারদের দেয়া হয়েছে। যেভাবে যতটুকু সম্ভব মানুষকে সব জায়গায় রিকোয়েস্ট করে, মোটিভেট করে বা ফোর্স করে যদি করতে হয়, আইন প্রয়োগ করতে হলে আইনও প্রয়োগ করবে, অসুবিধা নেই।


 

 
আরও খবর