ভাঙ্গারি দোকানে পারফিউম বোতল রোল করার সময় বিস্ফোরণ, দগ্ধ ৭
jugantor
ভাঙ্গারি দোকানে পারফিউম বোতল রোল করার সময় বিস্ফোরণ, দগ্ধ ৭

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৭ অক্টোবর ২০২০, ১৯:২৪:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট

রাজধানীর মোহাম্মদপুরে একটি ভাঙ্গারি দোকানে পুরাতন মালামাল বিস্ফোরণে দোকান মালিকসহ ৭ শ্রমিক দগ্ধ হয়েছেন।

রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানা ধীন চাঁদ উদ্যান ভাঙ্গা মসজিদ এলাকায় একটি ভাঙ্গারি দোকানে পুরাতন পারফিউমের বোতলসহ ভাঙ্গারি মালামাল প্রেসার মেশিনে চাপ দিয়ে রোল করার সময় বিস্ফোরণে এ ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার (২৭অক্টোবর) দুপুর ২টায় এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন দোকান মালিক আব্দুল আলিম (৫০) মোহাম্মদ ফারুক (৩৭) সাইদুল ইসলাম (৩২) আমির উদ্দিন (৪৫)
একই ঘটনায় বিস্ফোরণে আগুনে দগ্ধ অপর দোকানের কর্মচারী মো. রাসেল (২৬) সুরুজ মোল্লা (২৫) ও মোহাম্মদ কাইয়ুম (৪০)।

দগ্ধ দোকান মালিক আমির হোসেনের ভগ্নিপতি আবুল কাশেম জানান, এ দোকানে পুরাতন মালামাল প্রেসার মেশিনে চাপ দিয়ে রোল করার সময় করার সময় বিকট শব্দে বিস্ফোরণে আগুনে দগ্ধ হয় চারজন। একই ঘটনা আশপাশের দোকানে আগুন ছড়িয়ে পড়ে ওই দোকানে তিন শ্রমিক দগ্ধ হয়েছে।
দগ্ধ অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে বিকালে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট ভর্তি করা হয়েছে।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের পুলিশ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, সাতজনের ই মুখ মণ্ডল হাত-পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে দগ্ধ হয়েছে। এদের মধ্যে আব্দুল আলীমের শরীরে ৭৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। দগ্ধরা শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ভাঙ্গারি দোকানে পারফিউম বোতল রোল করার সময় বিস্ফোরণ, দগ্ধ ৭

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৭:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট
দগ্ধদের সবাইকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। ফাইল ছবি

রাজধানীর মোহাম্মদপুরে একটি ভাঙ্গারি দোকানে পুরাতন মালামাল বিস্ফোরণে দোকান মালিকসহ ৭ শ্রমিক দগ্ধ হয়েছেন।

রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানা ধীন চাঁদ উদ্যান ভাঙ্গা মসজিদ এলাকায় একটি ভাঙ্গারি দোকানে পুরাতন পারফিউমের বোতলসহ ভাঙ্গারি মালামাল প্রেসার মেশিনে চাপ দিয়ে রোল করার সময় বিস্ফোরণে এ ঘটনা ঘটে। 

মঙ্গলবার (২৭অক্টোবর) দুপুর ২টায় এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন দোকান মালিক আব্দুল আলিম (৫০) মোহাম্মদ ফারুক (৩৭) সাইদুল ইসলাম (৩২) আমির উদ্দিন (৪৫)
একই ঘটনায় বিস্ফোরণে আগুনে দগ্ধ অপর দোকানের কর্মচারী মো. রাসেল (২৬) সুরুজ মোল্লা (২৫) ও মোহাম্মদ কাইয়ুম (৪০)। 

দগ্ধ দোকান মালিক আমির হোসেনের ভগ্নিপতি আবুল কাশেম জানান, এ দোকানে পুরাতন মালামাল প্রেসার মেশিনে চাপ দিয়ে রোল করার সময় করার সময় বিকট শব্দে বিস্ফোরণে আগুনে দগ্ধ হয় চারজন। একই ঘটনা আশপাশের দোকানে আগুন ছড়িয়ে পড়ে ওই দোকানে তিন শ্রমিক দগ্ধ হয়েছে।
দগ্ধ অবস্থায় তাদেরকে  উদ্ধার করে বিকালে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট ভর্তি করা হয়েছে।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের পুলিশ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, সাতজনের ই মুখ মণ্ডল হাত-পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে দগ্ধ হয়েছে। এদের মধ্যে আব্দুল আলীমের শরীরে ৭৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। দগ্ধরা শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

 
আরও খবর