যে কোনো হুমকি মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকুন: প্রধানমন্ত্রী
jugantor
যে কোনো হুমকি মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকুন: প্রধানমন্ত্রী

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৮ অক্টোবর ২০২০, ১৫:০৬:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

যে কোনো হুমকি মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকুন: প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে মানুষের আস্থা অর্জন করে এগিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সংবিধান এবং দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ থেকে যে কোনো হুমকি মোকাবেলার জন্য সদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেনাবাহিনীর আটটি ইউনিট/সংস্থার পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

সেনাবাহিনীর সদস্যদের পেশাদারিত্বে জোর দিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, পবিত্র সংবিধান এবং দেশমাতৃকার সার্বভৌমত্ব রক্ষা করার জন্য আপনাদের ঐক্যবদ্ধ থেকে অভ্যন্তরীণ কিংবা বাহ্যিক যে কোনো ধরনের হুমকি মোকাবেলার জন্য সদা প্রস্তুত থাকতে হবে।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতির কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা কারও সঙ্গে যুদ্ধ করতে চাই না। আমরা সবার বন্ধুত্ব চাই। কিন্তু যদি কখনও আমরা আক্রান্ত হই, সেটি মোকাবেলা করার মতো শক্তি যেন আমরা অর্জন করতে পারি, সেভাবেই আমরা প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে চাই এবং সেভাবে আমরা তৈরি থাকতে চাই।

সরকারপ্রধান সেনাবাহিনীর সদস্যদের প্রশংসা করে বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নের কাজে, যে কোনো দুর্যোগে, দুর্বিপাকে আমাদের সশস্ত্র বাহিনী বিশাল ভূমিকা রেখে যাচ্ছে। বিশেষ করে এই করোনাকালীনও যেভাবে তারা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন, আমাদের সশস্ত্র বাহিনী জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের সেবা করে বিশ্বে একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিশ্বে উজ্জ্বল করেছেন।

অনুষ্ঠানে পটুয়াখালীর লেবুখালীতে অবস্থিত শেখ হাসিনা সেনানিবাস প্রান্তে সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমদসহ সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

যে কোনো হুমকি মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকুন: প্রধানমন্ত্রী

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৩:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
যে কোনো হুমকি মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকুন: প্রধানমন্ত্রী
ফাইল ছবি

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে মানুষের আস্থা অর্জন করে এগিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সংবিধান এবং দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ থেকে যে কোনো হুমকি মোকাবেলার জন্য সদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

বুধবার সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেনাবাহিনীর আটটি ইউনিট/সংস্থার পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

সেনাবাহিনীর সদস্যদের পেশাদারিত্বে জোর দিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, পবিত্র সংবিধান এবং দেশমাতৃকার সার্বভৌমত্ব রক্ষা করার জন্য আপনাদের ঐক্যবদ্ধ থেকে অভ্যন্তরীণ কিংবা বাহ্যিক যে কোনো ধরনের হুমকি মোকাবেলার জন্য সদা প্রস্তুত থাকতে হবে।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতির কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা কারও সঙ্গে যুদ্ধ করতে চাই না। আমরা সবার বন্ধুত্ব চাই। কিন্তু যদি কখনও আমরা আক্রান্ত হই, সেটি মোকাবেলা করার মতো শক্তি যেন আমরা অর্জন করতে পারি, সেভাবেই আমরা প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে চাই এবং সেভাবে আমরা তৈরি থাকতে চাই।

সরকারপ্রধান সেনাবাহিনীর সদস্যদের প্রশংসা করে বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নের কাজে, যে কোনো দুর্যোগে, দুর্বিপাকে আমাদের সশস্ত্র বাহিনী বিশাল ভূমিকা রেখে যাচ্ছে। বিশেষ করে এই করোনাকালীনও যেভাবে তারা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন, আমাদের সশস্ত্র বাহিনী জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের সেবা করে বিশ্বে একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিশ্বে উজ্জ্বল করেছেন।

অনুষ্ঠানে পটুয়াখালীর লেবুখালীতে অবস্থিত শেখ হাসিনা সেনানিবাস প্রান্তে সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমদসহ সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।