মিন্নি কাশিমপুরে বাকি ৩ আসামি বরিশাল কারাগারে
jugantor
মিন্নি কাশিমপুরে বাকি ৩ আসামি বরিশাল কারাগারে

  যুগান্তর রিপোর্ট  

৩০ অক্টোবর ২০২০, ১২:০৮:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বরগুনায় বহুল আলোচিত শাহনেওয়াজ রিফাত শরীফ হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৩ পুরুষ আসামিকে বরগুনা জেলা কারাগার থেকে বরিশাল বিভাগীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে কড়া নিরাপত্তায় তাদের বরিশালে পাঠানো হয়।

৩ পুরুষ আসামিকে বরিশাল বিভাগীয় কারাগারে পাঠানোর কারণ জানাতে বরগুনা জেলা কারাগারের তত্ত্বাবধায়ক (জেল সুপার) মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, বরগুনা জেলা কারাগারে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত বন্দীদের রাখার উপযুক্ত ব্যবস্থা নেই। এই কারণে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী রিফাত হত্যা মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের বরগুনা জেলা কারাগার থেকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার ও বরিশাল বিভাগীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে একই মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত একমাত্র নারী আসামি ও নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে বরগুনা জেলা কারাগার থেকে গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হয়।

এদিন সকালে একটি মাইক্রোবাসযোগে তাকে বরগুনা থেকে কাশিমপুর নেয়া হয়। বরগুনা জেলা কারা কর্তৃপক্ষ বিষয়টি যুগান্তরকে নিশ্চিত করেন।

এদিকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারের ডেপুটি জেলার সুমাইয়া আক্তার জানিয়েছেন, বরগুনা জেলা কারাগার থেকে মিন্নিকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারে আনা হয়েছে।

গত বছর ১ সেপ্টেম্বর ২৪ জনকে অভিযুক্ত করে প্রাপ্ত ও অপ্রাপ্ত বয়স্ক আসামিদের দুই ভাগে বিভক্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। এর মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ জন এবং অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জন আসামি।

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক মিন্নিসহ ১০ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালত। এরপর ৮ জানুয়ারি থেকে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু করেন আদালত। মোট ৭৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে এ মামলায়।

মিন্নি কাশিমপুরে বাকি ৩ আসামি বরিশাল কারাগারে

 যুগান্তর রিপোর্ট 
৩০ অক্টোবর ২০২০, ১২:০৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বরগুনায় বহুল আলোচিত শাহনেওয়াজ রিফাত শরীফ হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৩ পুরুষ আসামিকে বরগুনা জেলা কারাগার থেকে বরিশাল বিভাগীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে কড়া নিরাপত্তায় তাদের বরিশালে পাঠানো হয়।

৩ পুরুষ আসামিকে বরিশাল বিভাগীয় কারাগারে পাঠানোর কারণ জানাতে বরগুনা জেলা কারাগারের তত্ত্বাবধায়ক (জেল সুপার) মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, বরগুনা জেলা কারাগারে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত বন্দীদের রাখার উপযুক্ত ব্যবস্থা নেই। এই কারণে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী রিফাত হত্যা মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের বরগুনা জেলা কারাগার থেকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার ও বরিশাল বিভাগীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে একই মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত একমাত্র নারী আসামি ও নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে বরগুনা জেলা কারাগার থেকে গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হয়। 

এদিন সকালে একটি মাইক্রোবাসযোগে তাকে বরগুনা থেকে কাশিমপুর নেয়া হয়। বরগুনা জেলা কারা কর্তৃপক্ষ বিষয়টি যুগান্তরকে নিশ্চিত করেন। 

এদিকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারের ডেপুটি জেলার সুমাইয়া আক্তার জানিয়েছেন, বরগুনা জেলা কারাগার থেকে মিন্নিকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারে আনা হয়েছে।

গত বছর ১ সেপ্টেম্বর ২৪ জনকে অভিযুক্ত করে প্রাপ্ত ও অপ্রাপ্ত বয়স্ক আসামিদের দুই ভাগে বিভক্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। এর মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ জন এবং অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জন আসামি।

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক মিন্নিসহ ১০ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালত। এরপর ৮ জানুয়ারি থেকে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু করেন আদালত। মোট ৭৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে এ মামলায়। 
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : রিফাতকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
আরও খবর