হাসপাতাল ছাড়লেন শেহরিন

সৃষ্টিকর্তা আমাকে দ্বিতীয় জীবন দিয়েছেন

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৮ এপ্রিল ২০১৮, ১৩:২৩ | অনলাইন সংস্করণ

শেহরিন আহমেদ

নেপালের কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের বিমান দুর্ঘটনায় আহত যাত্রী শেহরিন আহমেদ হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন।

রোববার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিট থেকে বাড়ি ফেরার সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে তিনি এ কথা বলেন।

শেহরিন বলেন, সৃষ্টিকর্তা আমাকে দ্বিতীয় জীবন দিয়েছেন। সুস্থ হয়ে আমি বাড়ি যাচ্ছি। এ জন্য আমি খুবই আনন্দিত।

তিনি বলেন, মৃত্যুকে খুবই কাছ থেকে দেখেছি। আমার চোখের সামনেই তিন যাত্রীকে সেকেন্ডের মধ্যে শেষ হয়ে যেতে দেখেছি।

বিমান দুর্ঘটনায় আহত হয়ে যারা বেঁচে আছি, তারা যাতে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারি, সে জন্য সবার কাছে দোয়া চান তিনি।

শেহরিন আহমেদের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুরে। থাকেন রাজধানীর বারিধারা ডিওএইচএস এলাকায়। উত্তরার স্কলাস্টিকায় কর্মরত রয়েছেন তিনি।

ঢামেক বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, শেহরিন এখন সুস্থ। তার শরীরের দগ্ধ স্থানে লাগানো চামড়া শুকিয়ে গেছে। তবে দুই সপ্তাহ পর আবারও ফলোআপের জন্য তাকে হাসপাতালে আসতে হবে।

গত ১২ মার্চ ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ৫১ যাত্রী নিহত হন। এর মধ্যে ২৬ বাংলাদেশি। এ দুর্ঘটনায় আহত হন ১০ বাংলাদেশি। তাদের উদ্ধার করে প্রথমে নেপালের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। গত ১৫ মার্চ আহত ব্যক্তিদের মধ্যে প্রথম দেশে আনা হয় শেহরিন আহমেদকে।

ঘটনাপ্রবাহ : নেপালে ইউএস বাংলা বিধ্বস্ত

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×