সাঈদ খোকনের নামে এক মামলা খারিজ, আরেকটি প্রত্যাহার
jugantor
সাঈদ খোকনের নামে এক মামলা খারিজ, আরেকটি প্রত্যাহার

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৯ জানুয়ারি ২০২১, ১২:১১:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসকে নিয়ে মানহানিকর বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে যে দুটি মামলা হয়েছিল, তার মধ্যে একটি খারিজ এবং আরেকটি প্রত্যাহার করা হয়েছে।

কাজী আনিসুর রহমান বাদী হয়ে করা মামলাটি গ্রহণের কোনো উপাদান না থাকায় মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম বাকী বিল্লাহ সেটি খারিজ করে দেন।

আর অপর মামলার বাদী অ্যাডভোকেট মো. সারোয়ার আলম প্রত্যাহারের আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

গত ১১ জানুয়ারি ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরীর আদালতে সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মামলা দুটি করা হয়।

গত ৯ জানুয়ারি রাজধানীতে এক মানববন্ধনে বর্তমান মেয়র শেখ তাপসের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তোলেন সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন। সাঈদ খোকনের এ বক্তব্যকে ব্যক্তিগত অভিমত বলে মন্তব্য করেন মেয়র তাপস। এ ছাড়া সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করার কথাও বলেন তাপস।

তবে সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর তাপস সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, অতিউৎসাহী দুই আইনজীবী এ মামলা করেছেন। এর সঙ্গে তার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। এ ছাড়া দুই বাদীকে দ্রুত মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান মেয়র।

সাঈদ খোকনের নামে এক মামলা খারিজ, আরেকটি প্রত্যাহার

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৯ জানুয়ারি ২০২১, ১২:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসকে নিয়ে মানহানিকর বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে যে দুটি মামলা হয়েছিল, তার মধ্যে একটি খারিজ এবং আরেকটি প্রত্যাহার করা হয়েছে।

কাজী আনিসুর রহমান বাদী হয়ে করা মামলাটি গ্রহণের কোনো উপাদান না থাকায় মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম বাকী বিল্লাহ সেটি খারিজ করে দেন।

আর অপর মামলার বাদী অ্যাডভোকেট মো. সারোয়ার আলম প্রত্যাহারের আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

গত ১১ জানুয়ারি ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরীর আদালতে সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মামলা দুটি করা হয়। 

গত ৯ জানুয়ারি রাজধানীতে এক মানববন্ধনে বর্তমান মেয়র শেখ তাপসের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তোলেন সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন। সাঈদ খোকনের এ বক্তব্যকে ব্যক্তিগত অভিমত বলে মন্তব্য করেন মেয়র তাপস। এ ছাড়া সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করার কথাও বলেন তাপস। 

তবে সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর তাপস সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, অতিউৎসাহী দুই আইনজীবী এ মামলা করেছেন। এর সঙ্গে তার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। এ ছাড়া দুই বাদীকে দ্রুত মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান মেয়র।