ভাসানচরের পথে আরও ১৭৭৮ রোহিঙ্গা
jugantor
ভাসানচরের পথে আরও ১৭৭৮ রোহিঙ্গা

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৯ জানুয়ারি ২০২১, ১০:১৬:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আরও এক হাজার ৭৭৮ রোহিঙ্গাকে নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার ভাসানচরে নেওয়া হচ্ছে।

শুক্রবার সকালে চট্টগ্রাম বোট ক্লাব থেকে চারটি জাহাজে ভাসানচরের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন রোহিঙ্গারা।

এর আগে বৃহস্পতিবার প্রায় এক হাজার ৮০০ রোহিঙ্গা রওনা হয়ে গেছেন।

কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফ থেকে ভাসানচরে এটি হচ্ছে তৃতীয় দফা ও বৃহৎ সংখ্যায় রোহিঙ্গা স্থানান্তর।

এ ছাড়া ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে রোহিঙ্গাদের আরও একটি দলকে চতুর্থ দফায় ভাসানচরে স্থানান্তরের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

২০২০ সালের ৪ ও ২৯ ডিসেম্বর দুই দফায় তিন হাজার ৪৪৬ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হত্যা ও নির্যাতনের মুখে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট থেকে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় আট লাখ রোহিঙ্গা। এর আগে আসে আরও কয়েক লাখ। বর্তমানে উখিয়া ও টেকনাফের ৩৪টি আশ্রয় শিবিরে নিবন্ধিত রোহিঙ্গার সংখ্যা সাড়ে ১১ লাখ।

ভাসানচরের পথে আরও ১৭৭৮ রোহিঙ্গা

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৯ জানুয়ারি ২০২১, ১০:১৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আরও এক হাজার ৭৭৮ রোহিঙ্গাকে নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার ভাসানচরে নেওয়া হচ্ছে।

শুক্রবার সকালে চট্টগ্রাম বোট ক্লাব থেকে চারটি জাহাজে ভাসানচরের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন রোহিঙ্গারা। 

এর আগে বৃহস্পতিবার প্রায় এক হাজার ৮০০ রোহিঙ্গা রওনা হয়ে গেছেন। 

কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফ থেকে ভাসানচরে এটি হচ্ছে তৃতীয় দফা ও বৃহৎ সংখ্যায় রোহিঙ্গা স্থানান্তর। 

এ ছাড়া ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে রোহিঙ্গাদের আরও একটি দলকে চতুর্থ দফায় ভাসানচরে স্থানান্তরের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

২০২০ সালের ৪ ও ২৯ ডিসেম্বর দুই দফায় তিন হাজার ৪৪৬ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হত্যা ও নির্যাতনের মুখে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট থেকে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় আট লাখ রোহিঙ্গা। এর আগে আসে আরও কয়েক লাখ। বর্তমানে উখিয়া ও টেকনাফের ৩৪টি আশ্রয় শিবিরে নিবন্ধিত রোহিঙ্গার সংখ্যা সাড়ে ১১ লাখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রোহিঙ্গা বর্বরতা