বীমার টাকা যেন গ্রাহক সঠিকভাবে পায়: প্রধানমন্ত্রী
jugantor
বীমার টাকা যেন গ্রাহক সঠিকভাবে পায়: প্রধানমন্ত্রী

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০১ মার্চ ২০২১, ১৫:৪৭:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

গ্রাহক স্বার্থ প্রাধান্য দিয়ে বীমা কোম্পানিগুলোকে সেবা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
সোমবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে জাতীয় বীমা দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, গ্রাহকের স্বার্থকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বীমা কোম্পানিগুলোকে বীমা সেবা দিতে হবে। বীমা নিয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতি এড়াতে এ খাতের সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।
বীমা দাবি নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, এটির প্রচার খুব বেশি দরকার। গ্রাহকরা বীমার ক্ষেত্রে প্রিমিয়ামটা যাতে সঠিকভাবে দেন, সেটিও যেমন প্রয়োজন, আবার বীমার টাকাও যেন সঠিকভাবে পান, সেই বিষয়েও যত্নবান হওয়া প্রয়োজন।
বীমার ক্ষতিপূরণ সঠিক খাতে ব্যবহারের তাগিদ দেন শেখ হাসিনা। ‘আমাদের দেশের মানুষের কিছু অভ্যাস আছে। তারা ব্যবসা করতে গিয়ে বীমা হয়তো করছে, কিন্তু অনেক সময় কোনো ক্ষতি না হলেও নিজেরা আর্টিফিশিয়ালি কিছু ক্ষতি করে। কোথাও একটু আগুন লাগাল বা কোথাও একটা ঘটনা ঘটাল এভাবে একটা মোটা অঙ্কের বীমার প্রিমিয়াম থেকে টাকা চায়।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ রকম কয়েকটি ঘটনা তিনি ‘হাতেনাতে ধরতে’ পেরেছেন, সে কারণেই বিষয়টি অনুষ্ঠানে বললেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল অনুষ্ঠানে বীমা খাতে বিশেষ অবদানের জন্য বীমা ব্যক্তিত্ব এবং তাদের প্রতিনিধিদের হাতে সম্মাননা এবং শিক্ষার্থীদের হাতে বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বীমা পলিসির সনদ তুলে দেন।
অর্থমন্ত্রী ছাড়াও অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আসাদুল ইসলামসহ ঊর্ধতন কর্মকর্তারা বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট শেখ কবির হোসেন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত ছিলেন।

বীমার টাকা যেন গ্রাহক সঠিকভাবে পায়: প্রধানমন্ত্রী

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০১ মার্চ ২০২১, ০৩:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গ্রাহক স্বার্থ প্রাধান্য দিয়ে বীমা কোম্পানিগুলোকে সেবা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
সোমবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে জাতীয় বীমা দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, গ্রাহকের স্বার্থকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বীমা কোম্পানিগুলোকে বীমা সেবা দিতে হবে। বীমা নিয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতি এড়াতে এ খাতের সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।
বীমা দাবি নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, এটির প্রচার খুব বেশি দরকার। গ্রাহকরা বীমার ক্ষেত্রে প্রিমিয়ামটা যাতে সঠিকভাবে দেন, সেটিও যেমন প্রয়োজন, আবার বীমার টাকাও যেন সঠিকভাবে পান, সেই বিষয়েও যত্নবান হওয়া প্রয়োজন।  
বীমার ক্ষতিপূরণ সঠিক খাতে ব্যবহারের তাগিদ দেন শেখ হাসিনা। ‘আমাদের দেশের মানুষের কিছু অভ্যাস আছে। তারা ব্যবসা করতে গিয়ে বীমা হয়তো করছে, কিন্তু অনেক সময় কোনো ক্ষতি না হলেও নিজেরা আর্টিফিশিয়ালি কিছু ক্ষতি করে। কোথাও একটু আগুন লাগাল বা কোথাও একটা ঘটনা ঘটাল এভাবে একটা মোটা অঙ্কের বীমার প্রিমিয়াম থেকে টাকা চায়।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ রকম কয়েকটি ঘটনা তিনি ‘হাতেনাতে ধরতে’ পেরেছেন, সে কারণেই বিষয়টি অনুষ্ঠানে বললেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল অনুষ্ঠানে বীমা খাতে বিশেষ অবদানের জন্য বীমা ব্যক্তিত্ব এবং তাদের প্রতিনিধিদের হাতে সম্মাননা এবং শিক্ষার্থীদের হাতে বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বীমা পলিসির সনদ তুলে দেন।  
অর্থমন্ত্রী ছাড়াও অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আসাদুল ইসলামসহ ঊর্ধতন কর্মকর্তারা বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। 
বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট শেখ কবির হোসেন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত ছিলেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন