ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতিসহ ৮ জন রিমান্ডে
jugantor
ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতিসহ ৮ জন রিমান্ডে

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৮ মার্চ ২০২১, ১৭:৪৫:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু

যুবদলের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি রফিকুল আলম মজনুসহ আটজনের ২ দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। এর আগে পুলিশের সঙ্গে সংর্ঘষের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছিল।

সোমবার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশীদ এই আদেশ দেন।

আসামিরা হলেন—রফিকুল আলম মজনু, আব্দুল খালেক টিপু, সৌরভ রাসেল, দিল গনি, শহিদুল ইসলাম, মোশারফ, আবুল কাশেম ও ওয়াহিদ।

৫ মার্চ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসামিদের হাজির করে ১০ দিন করে রিমান্ডের আবেদন করেন। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক রিমান্ড শুনানির জন্য সোমবার দিন নির্ধারণ করেন। শুনানির সময় এদিন আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। তাদের উপস্থিতিতে এই রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি প্রেসক্লাবের সামনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় শাহবাগ থানার এসআই পলাশ সাহা বাদী হয়ে ৪৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। মামলায় অজ্ঞাতপরিচয় ২৫০ জনকে আসামি করা হয়।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতিসহ ৮ জন রিমান্ডে

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৮ মার্চ ২০২১, ০৫:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু
ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু। ছবি: সংগৃহীত

যুবদলের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি রফিকুল আলম মজনুসহ আটজনের ২ দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।  এর আগে পুলিশের সঙ্গে সংর্ঘষের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছিল। 

সোমবার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশীদ এই আদেশ দেন।

আসামিরা হলেন—রফিকুল আলম মজনু, আব্দুল খালেক টিপু, সৌরভ রাসেল, দিল গনি, শহিদুল ইসলাম, মোশারফ, আবুল কাশেম ও ওয়াহিদ।

৫ মার্চ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসামিদের হাজির করে ১০ দিন করে রিমান্ডের আবেদন করেন। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক রিমান্ড শুনানির জন্য সোমবার দিন নির্ধারণ করেন। শুনানির সময় এদিন আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। তাদের উপস্থিতিতে এই রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি প্রেসক্লাবের সামনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় শাহবাগ থানার এসআই পলাশ সাহা বাদী হয়ে ৪৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। মামলায় অজ্ঞাতপরিচয় ২৫০ জনকে আসামি করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন