দেশে কখন কোথায় হবে ঈদ জামাত
jugantor
দেশে কখন কোথায় হবে ঈদ জামাত

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৪ মে ২০২১, ০১:০৬:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে গতবছরের মত এবারও ঈদুল ফিতরের জামাত মসজিদে পড়তে হবে।

মহামারির কারণে গতবছরের মতো এবারও ঈদের প্রধান জামাতটি ঢাকায় জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে হবে না।

এবার ঈদের প্রধান জামাত হবে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে শুক্রবার সকাল ৭টায়।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, বায়তুল মোকাররমে এবার মোট পাঁচটি জামাত হবে। প্রথম জামাতটি হবে সকাল ৭টায়। এর পর ১ ঘণ্টা পর পর বাকি তিনটি জমাত অনুষ্ঠিত হবে। শেষ জামাত হবে ১০টা ৪৫ মিনিটে।

অর্থাৎ বাকি চার জামাত হবে - সকাল ৮টা, ৯টা, ১০টা এবং ১০টা ৪৫ মিনিটে।

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে ঈদের প্রধান জামাত হবে জমিয়াতুল ফালাহ জাতীয় মসজিদে শুক্রবার সকাল ৮টায় । তাতে ইমামতি করবেন মসজিদের খতিব সৈয়দ আবু তালেব মোহাম্মদ আলাউদ্দীন আল কাদেরী।

খুলনায় ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত হবে সকাল ৮টায় টাউন জামে মসজিদে। এরপর সকাল ৯টা এবং ১০টায় আরও দুটি জামাত হবে এ মসজিদে। এতে ইমামতি করবেন টাউন জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোহাম্মদ সালেহ।

রাজশাহী শহরের ঈদের প্রধান জামাত হবে সকাল ৮টায় হযরত শাহ মখদুম (র.) দরগা জামে মসজিদে। সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে হবে দ্বিতীয় জামাত হবে সেখানে।

সিলেটে এবার ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত হবে হযরত শাহজালাল (র.) দরগাহ জামে মসজিদে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় জমাত হবে বলে জানিয়েছেন এ মসজিদের খতীব মাওলানা মুহিব্বুল হক গাছবাড়ী।

এবারও দেশের সর্ববৃহৎ ঈদ জামাতের ময়দান কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ফাঁকা থাকবে। মহামারির মধ্যে খোলা মাঠে ঈদ জামাত আয়োজনে নিষেধাজ্ঞা থাকায় এবারও জামাত হচ্ছে না সেখানে।

রাজধানীর পুরান ঢাকার চকবাজার শাহী মসজিদে সকাল ৮টা ও ৯টায় দুটি জামাত হবে। বড় কাটরা মাদ্রাসা মসজিদে একটি ঈদ জামাত হবে সকাল ৮টায়। লালবাগ শাহী মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টায় একটি জামাত হবে।

নবাবগঞ্জ বড় মসজিদে ঈদের জামাত হবে তিনটি- সকাল ৭ টায় , ৮ টায় ও ৯ টায়।

আজিমপুর কবরস্থান মসজিদে সকাল ৭টা, ৮টা, ৯টা ও ১০টায় চারটি জামাত হবে। আর ছাপড়া মসজিদে তিনটি জামাত হবে সকাল সাড়ে ৭টা, সাড়ে ৮টা ও সাড়ে ৯টায়।

পুরান ঢাকা তারা মসজিদে ঈদ জামাত হবে সকাল সাড়ে ৮টা ও ৯ টায়। রায়সাহেব বাজার জামে মসজিদে সাড়ে ৮টায়; নিমতলী ছাতা মসজিদে সকাল ৮টা ও ৯টায়, আগামছি লেইন জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টা ও সাড়ে ৮টায় এবং বায়তুল মামুর জামে মসজিদে সকাল সোয়া ৮টা ও ৯টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ এবং শহীদুল্লাহ হল জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদ জামাত হবে।

গুলশান সেন্ট্রাল মসজিদে তিনটি জামাত আয়োজন করা হবে। সকাল ৬টা, সাড়ে ৭টা এবং সাড়ে ৯টায় হবে এই তিন জামাত।

গত বছরের ন্যায় এবারের ঈদেও একই নির্দেশনা দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

সবাইকে বাসা থেকে ওজু করে মসজিদে যেতে হবে। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। দূরত্ব রেখে কাতারে দাঁড়াতে হবে। হাত মেলানো, কোলাকুরি করা যাবে না।

দেশে কখন কোথায় হবে ঈদ জামাত

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৪ মে ২০২১, ০১:০৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে গতবছরের মত এবারও ঈদুল ফিতরের জামাত মসজিদে পড়তে হবে। 

মহামারির কারণে গতবছরের মতো এবারও ঈদের প্রধান জামাতটি ঢাকায় জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে হবে না।

এবার ঈদের প্রধান জামাত হবে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে শুক্রবার সকাল ৭টায়।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, বায়তুল মোকাররমে এবার মোট পাঁচটি জামাত হবে। প্রথম জামাতটি হবে সকাল ৭টায়। এর পর ১ ঘণ্টা পর পর বাকি তিনটি জমাত অনুষ্ঠিত হবে। শেষ জামাত হবে ১০টা ৪৫ মিনিটে। 

অর্থাৎ বাকি চার জামাত হবে - সকাল ৮টা, ৯টা, ১০টা এবং ১০টা ৪৫ মিনিটে।

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে ঈদের প্রধান জামাত হবে জমিয়াতুল ফালাহ জাতীয় মসজিদে শুক্রবার সকাল ৮টায় । তাতে ইমামতি করবেন মসজিদের খতিব সৈয়দ আবু তালেব মোহাম্মদ আলাউদ্দীন আল কাদেরী।

খুলনায় ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত হবে সকাল ৮টায় টাউন জামে মসজিদে। এরপর সকাল ৯টা এবং ১০টায় আরও দুটি জামাত হবে এ মসজিদে। এতে ইমামতি করবেন টাউন জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোহাম্মদ সালেহ। 

রাজশাহী শহরের ঈদের প্রধান জামাত হবে সকাল ৮টায় হযরত শাহ মখদুম (র.) দরগা জামে মসজিদে। সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে হবে দ্বিতীয় জামাত হবে সেখানে।

সিলেটে এবার ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত হবে হযরত শাহজালাল (র.) দরগাহ জামে মসজিদে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় জমাত হবে বলে জানিয়েছেন এ মসজিদের খতীব মাওলানা মুহিব্বুল হক গাছবাড়ী।

এবারও দেশের সর্ববৃহৎ ঈদ জামাতের ময়দান কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ফাঁকা থাকবে। মহামারির মধ্যে খোলা মাঠে ঈদ জামাত আয়োজনে নিষেধাজ্ঞা থাকায় এবারও জামাত হচ্ছে না সেখানে।

রাজধানীর পুরান ঢাকার চকবাজার শাহী মসজিদে সকাল ৮টা ও ৯টায় দুটি জামাত হবে। বড় কাটরা মাদ্রাসা মসজিদে একটি ঈদ জামাত হবে সকাল ৮টায়। লালবাগ শাহী মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টায় একটি জামাত হবে।

নবাবগঞ্জ বড় মসজিদে ঈদের জামাত হবে তিনটি- সকাল ৭ টায় , ৮ টায় ও ৯ টায়। 

আজিমপুর কবরস্থান মসজিদে সকাল ৭টা, ৮টা, ৯টা ও ১০টায় চারটি জামাত হবে। আর ছাপড়া মসজিদে তিনটি জামাত হবে সকাল সাড়ে ৭টা, সাড়ে ৮টা ও সাড়ে ৯টায়।

পুরান ঢাকা তারা মসজিদে ঈদ জামাত হবে সকাল সাড়ে ৮টা ও ৯ টায়। রায়সাহেব বাজার জামে মসজিদে সাড়ে ৮টায়; নিমতলী ছাতা মসজিদে সকাল ৮টা ও ৯টায়, আগামছি লেইন জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টা ও সাড়ে ৮টায় এবং বায়তুল মামুর জামে মসজিদে সকাল সোয়া ৮টা ও ৯টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ এবং শহীদুল্লাহ হল জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদ জামাত হবে। 

গুলশান সেন্ট্রাল মসজিদে তিনটি জামাত আয়োজন করা হবে। সকাল ৬টা, সাড়ে ৭টা এবং সাড়ে ৯টায় হবে এই তিন জামাত।

গত বছরের ন্যায় এবারের ঈদেও একই নির্দেশনা দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

সবাইকে বাসা থেকে ওজু করে মসজিদে যেতে হবে। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। দূরত্ব রেখে কাতারে দাঁড়াতে হবে। হাত মেলানো, কোলাকুরি করা যাবে না। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন