ছাতক সুনামগঞ্জ ও মোহনগঞ্জ রেলপথ স্থাপনে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি
jugantor
ছাতক সুনামগঞ্জ ও মোহনগঞ্জ রেলপথ স্থাপনে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১১ জুন ২০২১, ১৩:০০:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

ছাতক, সুনামগঞ্জ ও মোহনগঞ্জের মধ্যে রেলপথ স্থাপন করার দাবি জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজনের কাছে দেওয়া এক চিঠিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ দাবি জানান।

রেলমন্ত্রীর উদ্দেশে লেখা চিঠিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেন, ছাতক-সুনামগঞ্জ-মোহনগঞ্জ অঞ্চলগুলোতে রেলপথ স্থাপনের লক্ষ্যে সুনামগঞ্জের পাঁচ সংসদ সদস্য গত ৬ জুন আপনার নিকট যে আধাসরকারি পত্র প্রেরণ করেছেন, তা আমার কাছে যৌক্তিক মনে হয়েছে। বর্তমান সরকার ক্ষমতা নেওয়ার পর দেশের প্রত্যেকটি জেলায় রেলপথের অবিচ্ছিন্ন যোগাযোগ স্থাপনের কাজ শুরু করেছে। এর মাধ্যমে দেশের যোগাযোগব্যবস্থার এক নতুনমাত্রা যোগ করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় এসব স্থানে (ছাতক-সুনামগঞ্জ-মোহনগঞ্জ) রেলপথ স্থাপন করা হলে তা দেশের সামগ্রিক যোগাযোগব্যবস্থাকে আরও উন্নত করবে বলে আমি আশাবাদ ব্যক্ত করছি।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে তৎকালীন রেলমন্ত্রী প্রয়াত সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত ছাতক-সুনামগঞ্জ-মোহনগঞ্জ রেলপথ স্থাপনের ঘোষণা দেন এবং পরে রেলওয়ের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা কয়েক দফা এলাকাটি সরেজমিন পরিদর্শন ও সমীক্ষা করেন। সমীক্ষা অনুযায়ী, এ এলাকায় লাইনমেন্টও তৈরি করা হয়েছিল। পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানও ছাতকের সঙ্গে সুনামগঞ্জ ও মোহনগঞ্জে রেলপথ স্থাপনের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন।

চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, এ অবস্থায় সুনামগঞ্জের পাঁচ সংসদ সদস্যের সঙ্গে একমত পোষণ করে ছাতক সদর-দোয়ারাবাজার-সুনামগঞ্জ সদর থেকে মোহনগঞ্জ পর্যন্ত রেলপথ স্থাপনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করছি।

চিঠির অনুলিপি সুনামগঞ্জের পাঁচ সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, ড. জয়া সেনগুপ্তা, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, ছামিনা আক্তার খানমের কাছেও দেওয়া হয়েছে।

অনেকে মনে করেন রেলপথে এমন কানেকটিভিটি বৃহত্তর সিলেটের সঙ্গে নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জের মাধ্যমে সংযোগ স্থাপন ভারতের উত্তর-পূর্ব ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের আঞ্চলিক যোগাযোগের ক্ষেত্রেও বিশেষ অবদান রাখবে।

ছাতক সুনামগঞ্জ ও মোহনগঞ্জ রেলপথ স্থাপনে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১১ জুন ২০২১, ০১:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ছাতক, সুনামগঞ্জ ও মোহনগঞ্জের মধ্যে রেলপথ স্থাপন করার দাবি জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন।  রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজনের কাছে দেওয়া এক চিঠিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ দাবি জানান।

রেলমন্ত্রীর উদ্দেশে লেখা চিঠিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেন, ছাতক-সুনামগঞ্জ-মোহনগঞ্জ অঞ্চলগুলোতে রেলপথ স্থাপনের লক্ষ্যে সুনামগঞ্জের পাঁচ সংসদ সদস্য গত ৬ জুন আপনার নিকট যে আধাসরকারি পত্র প্রেরণ করেছেন, তা আমার কাছে যৌক্তিক মনে হয়েছে। বর্তমান সরকার ক্ষমতা নেওয়ার পর দেশের প্রত্যেকটি জেলায় রেলপথের অবিচ্ছিন্ন যোগাযোগ স্থাপনের কাজ শুরু করেছে। এর মাধ্যমে দেশের যোগাযোগব্যবস্থার এক নতুনমাত্রা যোগ করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় এসব স্থানে (ছাতক-সুনামগঞ্জ-মোহনগঞ্জ) রেলপথ স্থাপন করা হলে তা দেশের সামগ্রিক যোগাযোগব্যবস্থাকে আরও উন্নত করবে বলে আমি আশাবাদ ব্যক্ত করছি।  

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে তৎকালীন রেলমন্ত্রী প্রয়াত সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত ছাতক-সুনামগঞ্জ-মোহনগঞ্জ রেলপথ স্থাপনের ঘোষণা দেন এবং পরে রেলওয়ের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা কয়েক দফা এলাকাটি সরেজমিন পরিদর্শন ও সমীক্ষা করেন। সমীক্ষা অনুযায়ী, এ এলাকায় লাইনমেন্টও তৈরি করা হয়েছিল।  পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানও ছাতকের সঙ্গে সুনামগঞ্জ ও মোহনগঞ্জে রেলপথ স্থাপনের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন।

চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, এ অবস্থায় সুনামগঞ্জের পাঁচ সংসদ সদস্যের সঙ্গে একমত পোষণ করে ছাতক সদর-দোয়ারাবাজার-সুনামগঞ্জ সদর থেকে মোহনগঞ্জ পর্যন্ত রেলপথ স্থাপনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করছি।

চিঠির অনুলিপি সুনামগঞ্জের পাঁচ সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, ড. জয়া সেনগুপ্তা, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, ছামিনা আক্তার খানমের কাছেও দেওয়া হয়েছে।

অনেকে মনে করেন রেলপথে এমন কানেকটিভিটি বৃহত্তর সিলেটের সঙ্গে নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জের মাধ্যমে সংযোগ স্থাপন ভারতের উত্তর-পূর্ব ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের আঞ্চলিক যোগাযোগের ক্ষেত্রেও বিশেষ অবদান রাখবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন