বিকল্প পদ্ধতিতে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা: দীপু মনি  
jugantor
বিকল্প পদ্ধতিতে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা: দীপু মনি  

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৩ জুন ২০২১, ১৫:২৪:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা কীভাবে নেওয়া হবে সে বিষয়ে সরকার চিন্তাভাবনা করছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি৷

রোববার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষ্যে স্বপ্ন ফাউন্ডেশন আয়োজিত আলোচনাসভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

দীপু মনি বলেন, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা কোন পদ্ধতিতে নেওয়া যায়, কিংবা অন্য কোনোভাবে সেটি করা যায় কিনা, সেটি চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ১৩ জুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতিও ছিল, কিন্তু সীমান্ত এলাকায় করোনা বেড়ে যাওয়ায় বাধ্য হয়ে ৩০ জুন পর্যন্ত ছুটি বাড়িয়েছি। পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে। অনলাইনে শিক্ষা দেওয়ার বিষয়টি চলমান রয়েছে। নতুন পদ্ধতি বের করার চেষ্টা করছি।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিক পড়ালেখা যেন বাড়িতে চালিয়ে যেতে হবে। এমন কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে না যাতে শিক্ষার্থীদের ক্ষতি হয়। নিজেরা নিজেদের পড়াশোনার সঙ্গে সংযুক্ত রাখতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, পরীক্ষা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই, তোমরা বাসায় বসে নিয়মিত পড়ালেখা করে সিলেবাস শেষ করবে। সেই সঙ্গে সুস্থ থাকতে হবে।

‘জীবন থেকে এক বছর চলে গেলেও কিছু হবে না, তার চেয়ে সুস্থ থাকাটা বড় বিষয়’ বলে মন্তব্য করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী ও সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির৷ সভায় সভাপতিত্ব করেন স্বপ্ন ফাউন্ডেশনের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ।

বিকল্প পদ্ধতিতে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা: দীপু মনি  

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৩ জুন ২০২১, ০৩:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা কীভাবে নেওয়া হবে সে বিষয়ে সরকার চিন্তাভাবনা করছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি৷

রোববার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষ্যে স্বপ্ন ফাউন্ডেশন আয়োজিত আলোচনাসভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

দীপু মনি বলেন, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা কোন পদ্ধতিতে নেওয়া যায়, কিংবা অন্য কোনোভাবে সেটি করা যায় কিনা, সেটি চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ১৩ জুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতিও ছিল, কিন্তু সীমান্ত এলাকায় করোনা বেড়ে যাওয়ায় বাধ্য হয়ে ৩০ জুন পর্যন্ত ছুটি বাড়িয়েছি। পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে।  অনলাইনে শিক্ষা দেওয়ার বিষয়টি চলমান রয়েছে।  নতুন পদ্ধতি বের করার চেষ্টা করছি।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিক পড়ালেখা যেন বাড়িতে চালিয়ে যেতে হবে।  এমন কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে না যাতে শিক্ষার্থীদের ক্ষতি হয়।  নিজেরা নিজেদের পড়াশোনার সঙ্গে সংযুক্ত রাখতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, পরীক্ষা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই, তোমরা বাসায় বসে নিয়মিত পড়ালেখা করে সিলেবাস শেষ করবে। সেই সঙ্গে সুস্থ থাকতে হবে।

‘জীবন থেকে এক বছর চলে গেলেও কিছু হবে না, তার চেয়ে সুস্থ থাকাটা বড় বিষয়’ বলে মন্তব্য করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী ও সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির৷ সভায় সভাপতিত্ব করেন স্বপ্ন ফাউন্ডেশনের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন