৫ হাজার ১০০ কোটি ডলারের রপ্তানি আয়ের লক্ষ্য
jugantor
৫ হাজার ১০০ কোটি ডলারের রপ্তানি আয়ের লক্ষ্য

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৬ জুলাই ২০২১, ১৪:২৪:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

৫ হাজার ১০০ কোটি ডলারের রপ্তানি আয়ের লক্ষ্য

নতুন অর্থবছরে পণ্য ও সেবা খাতে রপ্তানি বাড়িয়ে ৫ হাজার ১০০ কোটি ডলার আয়ের লক্ষ্য ঠিক করেছে বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার প্রধান রপ্তানি খাতের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের সঙ্গে নিয়ে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে ২০২১-২২ অর্থবছরে রপ্তানি আয়ের এই লক্ষ্যমাত্রা ঘোষণা করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

চলমান মহামারির মধ্যেও রপ্তানিমুখী খাতগুলো যেভাবে কাজ করে যাচ্ছে তাতে এই লক্ষ্যমাত্রা ‘খুবই বাস্তব সম্মত এবং অর্জন করার মত’ বলে মন্তব্য করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, গত বছর ১৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি, চলতি অর্থবছরের বাজেটে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ নাম দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ শিল্পে বিশেষ নীতি সহায়তা, রপ্তানিপণ্যের বৈচিত্র্যকরণে সরকারি নানা উদ্যোগ বিবেচনায় এ লক্ষ্যমাত্র ঠিক করা হয়েছে।

আগের ২০১৯-২০ অর্থবছরে ৩ হাজার ৩৬৭ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছিল। সেই হিসেবে এবার প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১৫ দশমিক ১০ শতাংশ।

বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ, বিকেএমইএ সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম, বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান শাহিন আহমেদ, ফিনিশ লেদার এক্মপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাইফুল ইসলাম এবং বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে যুক্ত ছিলেন।

৫ হাজার ১০০ কোটি ডলারের রপ্তানি আয়ের লক্ষ্য

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৬ জুলাই ২০২১, ০২:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
৫ হাজার ১০০ কোটি ডলারের রপ্তানি আয়ের লক্ষ্য
ফাইল ছবি

নতুন অর্থবছরে পণ্য ও সেবা খাতে রপ্তানি বাড়িয়ে ৫ হাজার ১০০ কোটি ডলার আয়ের লক্ষ্য ঠিক করেছে বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার প্রধান রপ্তানি খাতের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের সঙ্গে নিয়ে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে ২০২১-২২ অর্থবছরে রপ্তানি আয়ের এই লক্ষ্যমাত্রা ঘোষণা করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।  

চলমান মহামারির মধ্যেও রপ্তানিমুখী খাতগুলো যেভাবে কাজ করে যাচ্ছে তাতে এই লক্ষ্যমাত্রা ‘খুবই বাস্তব সম্মত এবং অর্জন করার মত’ বলে মন্তব্য করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, গত বছর ১৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি, চলতি অর্থবছরের বাজেটে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ নাম দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ শিল্পে বিশেষ নীতি সহায়তা, রপ্তানিপণ্যের বৈচিত্র্যকরণে সরকারি নানা উদ্যোগ বিবেচনায় এ লক্ষ্যমাত্র ঠিক করা হয়েছে।

আগের ২০১৯-২০ অর্থবছরে ৩ হাজার ৩৬৭ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছিল। সেই হিসেবে এবার প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১৫ দশমিক ১০ শতাংশ।

বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ, বিকেএমইএ সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম, বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান শাহিন আহমেদ, ফিনিশ লেদার এক্মপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাইফুল ইসলাম এবং বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে যুক্ত ছিলেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন