৫ বছর ধরে মাদকাসক্ত পরীমনি, সরবরাহ করতেন রাজ
jugantor
৫ বছর ধরে মাদকাসক্ত পরীমনি, সরবরাহ করতেন রাজ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৫ আগস্ট ২০২১, ১৭:০৭:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকাই ছবির আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি ২০১৬ সাল থেকে (পাঁচ বছর) মাদক সেবন করতেন। ভয়ঙ্কর মাদক এলএসডি ও আইসও সেবন করতেন এ নায়িকা। তাছাড়া মদে মাত্রাতিক্তি আসক্তি তার। নিজ বাসায় একটি মিনি বারও রয়েছে তার। চলচ্চিত্র প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজ পরীমনির বাসায় এসব মাদক সরবরাহ করতেন। মিনিবার থাকায় তার বাসায় পার্টির আয়োজন করা হতো। সেই পার্টিতে বিভিন্ন প্রকার মাদক সরবরাহ করতেন রাজ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে র‍্যাব সদরদফতরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

র‌্যাব কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, পরীমনির নাম শামসুর নাহার স্মৃতি ওরফে স্মৃতিমনি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে চাঞ্চল্যকর তথ্য মিলেছে। জানা গেছে, তিনি ২০১৪ সালে সিনেমা জগতে আসেন। এপর্যন্ত ৩০টি সিনেমা ও ৫/৭ টি টিভিসিতে অভিনয় করেছেন। তাকে পিরোজপুর থেকে ঢাকায় সিনেমা জগতে আনে গ্রেফতার হওয়া নজরুল ইসলাম রাজ।

জিজ্ঞাসাবাদে পরীমণি জানান, ২০১৬ থেকে তিনি নিয়মিত অ্যালকোহল সেবন করেন। মাত্রাতিরিক্ত চাহিদা মেটাতে তিনি বাসায় একটি মিনিবার করেছেন। মিনিবার থাকায় তার বাসায় পার্টির আয়োজন করা হতো। সেই পার্টিতে বিভিন্ন প্রকার মাদক সরবরাহ করতেন রাজ।

এর আগে বনানীর বাসা থেকে মাদকসহ আটক পরীমনি ও প্রযোজক রাজসহ চার জনকে গ্রেফতার দেখায় র‍্যাব।

সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার বিকেল ৪টার দিকে পরীমনির বাসায় অভিযান যায় র‌্যাব-১ এর সদস্যরা। এ সময় তাৎক্ষণিক ফেসবুক লাইভে এসে পরীমনি বিষয়টি সবাইকে জানান। তিনি বলেন, অজ্ঞাত বিভিন্ন পোশাকের কয়েকজন ব্যক্তি বাসার বাইরে থেকে কলিং বেল দিয়ে দরজা খুলতে বলছে। আমি ভয় পাচ্ছি।

র‌্যাবের বিরুদ্ধে ভাঙচুরের মিথ্যা অভিযোগ আনেন। পরে পরীমনিকে বিপুল পরিমান মাদকসহ আটক করে বুধবার রাতে র‍্যাব সদরদফতরে নিয়ে যাওয়া হয়। রাতভর সেখানেই রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় পরীমনিকে। বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আবারও তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

৫ বছর ধরে মাদকাসক্ত পরীমনি, সরবরাহ করতেন রাজ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৫ আগস্ট ২০২১, ০৫:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকাই ছবির আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি ২০১৬ সাল থেকে (পাঁচ বছর) মাদক সেবন করতেন। ভয়ঙ্কর মাদক এলএসডি ও আইসও সেবন করতেন এ নায়িকা। তাছাড়া মদে মাত্রাতিক্তি আসক্তি তার। নিজ বাসায় একটি মিনি বারও রয়েছে তার। চলচ্চিত্র প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজ পরীমনির বাসায় এসব মাদক সরবরাহ করতেন। মিনিবার থাকায় তার বাসায় পার্টির আয়োজন করা হতো। সেই পার্টিতে বিভিন্ন প্রকার মাদক সরবরাহ করতেন রাজ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে র‍্যাব সদরদফতরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

র‌্যাব কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, পরীমনির নাম শামসুর নাহার স্মৃতি ওরফে স্মৃতিমনি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে চাঞ্চল্যকর তথ্য মিলেছে। জানা গেছে, তিনি ২০১৪ সালে সিনেমা জগতে আসেন। এপর্যন্ত ৩০টি সিনেমা ও ৫/৭ টি টিভিসিতে অভিনয় করেছেন। তাকে পিরোজপুর থেকে ঢাকায় সিনেমা জগতে আনে গ্রেফতার হওয়া নজরুল ইসলাম রাজ।

জিজ্ঞাসাবাদে পরীমণি জানান, ২০১৬ থেকে তিনি নিয়মিত অ্যালকোহল সেবন করেন। মাত্রাতিরিক্ত চাহিদা মেটাতে তিনি বাসায় একটি মিনিবার করেছেন। মিনিবার থাকায় তার বাসায় পার্টির আয়োজন করা হতো। সেই পার্টিতে বিভিন্ন প্রকার মাদক সরবরাহ করতেন রাজ।

এর আগে বনানীর বাসা থেকে মাদকসহ আটক পরীমনি ও প্রযোজক রাজসহ চার জনকে গ্রেফতার দেখায় র‍্যাব।

সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার বিকেল ৪টার দিকে পরীমনির বাসায় অভিযান যায় র‌্যাব-১ এর সদস্যরা। এ সময় তাৎক্ষণিক ফেসবুক লাইভে এসে পরীমনি বিষয়টি সবাইকে জানান। তিনি বলেন, অজ্ঞাত বিভিন্ন পোশাকের কয়েকজন ব্যক্তি বাসার বাইরে থেকে কলিং বেল দিয়ে দরজা খুলতে বলছে। আমি ভয় পাচ্ছি।

র‌্যাবের বিরুদ্ধে ভাঙচুরের মিথ্যা অভিযোগ আনেন। পরে পরীমনিকে বিপুল পরিমান মাদকসহ আটক করে বুধবার রাতে র‍্যাব সদরদফতরে নিয়ে যাওয়া হয়। রাতভর সেখানেই রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় পরীমনিকে। বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আবারও তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন