কেরানীগঞ্জে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন
jugantor
কেরানীগঞ্জে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ আগস্ট ২০২১, ১৫:৫২:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

কেরানীগঞ্জের শাক্তা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার ও কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সভাপতি মোহাম্মদ হানিফের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ও গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে এলাকাবাসীর উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার সকালে ঘাটারচর সড়কে এ মানববন্ধন হয়।

মানববন্ধনে হানিফ মেম্বারের পরিবার, রাজনৈতিক নেতা ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন।

মানববন্ধনে অংশ নিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ঢাকা জেলার (দক্ষিণ) সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম বলেন, মোহাম্মদ হানিফ রাজনীতির পাশাপাশি বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজে জড়িত। তিনি মেম্বার নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকায় ভূমিদস্যুতা, মাদক কেনাবেচা ও চাঁদাবাজি নিয়ন্ত্রণে নানা পদক্ষেপ নিয়েছেন। এতে একটি গোষ্ঠী তার উপর চরমভাবে ক্ষুব্ধ হয়। আর ওই গোষ্ঠীর নেতৃত্ব দিচ্ছেন স্থানীয় ভূমিদস্যু সজিব বেপারী। সজিব বেপারী হানিফ মেম্বারকে ঘায়েল করতে কিছুদিন পূর্বে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা করেন। সেই মামলায় হানিফ মেম্বার পরদিনই আদালত থেকে জামিন পান। কেরানীগঞ্জে মামলা করার রেশ না শেষ হতেই সজিব বেপারী শুক্রবার তেজগাঁও থানায় তাকে অপহরণের অভিযোগে হানিফ মেম্বারের বিরুদ্ধে আরও একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি কারাগারে রয়েছেন।

জহিরুল ইসলাম আরও অভিযোগ করেন, পরিকল্পিতভাবে হানিফ মেম্বারকে র্যা ব পরিচয়ে তেজগাঁও থানা এলাকায় ডেকে নিয়ে যায় সজিব। কিন্তু হানিফ মেম্বার সেটা জানতেন না। হানিফ মেম্বার সেই কথা বিশ্বাস করে কেরানীগঞ্জ থেকে তেজগাঁও আসলে সজিব বেপারী ও সহযোগীরা পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক তাকে অপহরণের চেষ্টা করে। এসময় তার চিৎকারে লোকজন এগিয়ে আসলে সজিব ও তার সহযোগীরা উল্টো হানিফ মেম্বারকে অপহরণকারী বলে আখ্যা দেয়। পরে তেজগাঁও থানা যুবলীগের এক নেতার প্রভাবে পুলিশ হানিফ মেম্বারকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। সেখানে সজিব বেপারী বাদী হয়ে হানিফ মেম্বারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপহরণের মামলা করে। সেই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে হানিফ মেম্বারকে কারাগারে পাঠানো হয়। আমরা এই মিথ্যা মামলার তীব্র প্রতিবাদ জানাই এবং অবিলম্বে হানিফে মেম্বারের মুক্তির দাবি জানাই।

ঝাউচরের বাসিন্দা জসিম উদ্দিন, ইউসুফ ইকবাল, আব্দুল কাইয়ুম, মোহাম্মদ আলাউদ্দিনসহ একাধিক ব্যক্তি মানববন্ধনে অংশ নিয়ে বলেন, হানিফ বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান। এলাকায় তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়। ভূমিদস্যু সজিব বেপারী সামাজিকভাবে তাকে হেয় করতে একের পর এক মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। আমরা এর প্রতিবাদ জানাই।

কেরানীগঞ্জে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ আগস্ট ২০২১, ০৩:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কেরানীগঞ্জের শাক্তা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার ও কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সভাপতি মোহাম্মদ হানিফের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ও গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে এলাকাবাসীর উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

বুধবার সকালে ঘাটারচর সড়কে এ মানববন্ধন হয়। 

মানববন্ধনে হানিফ মেম্বারের পরিবার, রাজনৈতিক নেতা ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন। 

মানববন্ধনে অংশ নিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ঢাকা জেলার (দক্ষিণ) সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম বলেন, মোহাম্মদ হানিফ রাজনীতির পাশাপাশি বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজে জড়িত। তিনি মেম্বার নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকায় ভূমিদস্যুতা, মাদক কেনাবেচা ও চাঁদাবাজি নিয়ন্ত্রণে নানা পদক্ষেপ নিয়েছেন। এতে একটি গোষ্ঠী তার উপর চরমভাবে ক্ষুব্ধ হয়। আর ওই গোষ্ঠীর নেতৃত্ব দিচ্ছেন স্থানীয় ভূমিদস্যু সজিব বেপারী। সজিব বেপারী হানিফ মেম্বারকে ঘায়েল করতে কিছুদিন পূর্বে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা করেন। সেই মামলায় হানিফ মেম্বার পরদিনই আদালত থেকে জামিন পান। কেরানীগঞ্জে মামলা করার রেশ না শেষ হতেই সজিব বেপারী শুক্রবার তেজগাঁও থানায় তাকে অপহরণের অভিযোগে হানিফ মেম্বারের বিরুদ্ধে আরও একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি কারাগারে রয়েছেন। 

জহিরুল ইসলাম আরও অভিযোগ করেন, পরিকল্পিতভাবে হানিফ মেম্বারকে র্যা ব পরিচয়ে তেজগাঁও থানা এলাকায় ডেকে নিয়ে যায় সজিব। কিন্তু হানিফ মেম্বার সেটা জানতেন না। হানিফ মেম্বার সেই কথা বিশ্বাস করে কেরানীগঞ্জ থেকে তেজগাঁও আসলে সজিব বেপারী ও সহযোগীরা পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক তাকে অপহরণের চেষ্টা করে। এসময় তার চিৎকারে লোকজন এগিয়ে আসলে সজিব ও তার সহযোগীরা উল্টো হানিফ মেম্বারকে অপহরণকারী বলে আখ্যা দেয়। পরে তেজগাঁও থানা যুবলীগের এক নেতার প্রভাবে পুলিশ হানিফ মেম্বারকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। সেখানে সজিব বেপারী বাদী হয়ে হানিফ মেম্বারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপহরণের মামলা করে। সেই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে হানিফ মেম্বারকে কারাগারে পাঠানো হয়। আমরা এই মিথ্যা মামলার তীব্র প্রতিবাদ জানাই এবং অবিলম্বে হানিফে মেম্বারের মুক্তির দাবি জানাই।

ঝাউচরের বাসিন্দা জসিম উদ্দিন, ইউসুফ ইকবাল, আব্দুল কাইয়ুম, মোহাম্মদ আলাউদ্দিনসহ একাধিক ব্যক্তি মানববন্ধনে অংশ নিয়ে বলেন, হানিফ বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান। এলাকায় তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়। ভূমিদস্যু সজিব বেপারী সামাজিকভাবে তাকে হেয় করতে একের পর এক মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। আমরা এর প্রতিবাদ জানাই।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন