ঢাকা বিভাগেই সাড়ে ৩ হাজার মাদককারবারি
jugantor
ঢাকা বিভাগেই সাড়ে ৩ হাজার মাদককারবারি

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:০২:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা বিভাগেই সাড়ে ৩ হাজার মাদককারবারি

শুধু ঢাকা বিভাগেই সাড়ে তিন হাজার মাদককারবারি রয়েছে বলে জানিয়েছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। তালিকা ধরে তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হচ্ছে।

শুক্রবার দুপুরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঢাকা মেট্রো উত্তর কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর একাধিক এলাকা থেকে ক্রিস্টাল মেথ (আইস) ও ইয়াবাবড়ি উদ্ধারের ঘটনা নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে বক্তব্য রাখেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগের প্রধান ও অতিরিক্ত পরিচালক ফজলুর রহমান।

দুই মাস আগে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের করা এক হালনাগাদ তালিকায় ঢাকা বিভাগেই তিন হাজার মাদক ব্যবসায়ীর তথ্য উঠে আসে।

ফজলুর রহমান বলেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর আগেও মাদককারবারিদের তালিকা তৈরি করেছিল। সম্প্রতি এ তালিকা হালনাগাদ করা হয়েছে। এখন ঢাকা বিভাগের মাদককারবারিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক বলেন, অভিযান চালাতে লোকবল ও সক্ষমতা আগের তুলনায় বাড়ানো হয়েছে। ফলে অভিযানের সংখ্যা বেড়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে ফজলুর রহমান জানান, ২১ আগস্ট বনানী ও উত্তরা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫০০ গ্রাম আইসসহ ১০ মাদককারবারিকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার গুলশান, ভাটারা, কুড়িল ও রমনা এলাকায় অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে ৫৬০ গ্রাম ক্রিস্টাল মেথ (আইস) ও ১ হাজার ২০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার গ্রেফতার পাঁচ ব্যক্তি হলেন— জাকারিয়া আহমেদ (৩২), তারেক আহম্মেদ (৫৫), সাদ্দাম হোসেন (৩১), শহিদুল ইসলাম খান (৪৮) ও জসিম উদ্দিন (৫০)।

ঢাকা বিভাগেই সাড়ে ৩ হাজার মাদককারবারি

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ঢাকা বিভাগেই সাড়ে ৩ হাজার মাদককারবারি
ছবি: সংগৃহীত

শুধু ঢাকা বিভাগেই সাড়ে তিন হাজার মাদককারবারি রয়েছে বলে জানিয়েছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।  তালিকা ধরে তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হচ্ছে। 

শুক্রবার দুপুরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঢাকা মেট্রো উত্তর কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর একাধিক এলাকা থেকে ক্রিস্টাল মেথ (আইস) ও ইয়াবাবড়ি উদ্ধারের ঘটনা নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে বক্তব্য রাখেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগের প্রধান ও অতিরিক্ত পরিচালক ফজলুর রহমান।

দুই মাস আগে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের করা এক হালনাগাদ তালিকায় ঢাকা বিভাগেই তিন হাজার মাদক ব্যবসায়ীর তথ্য উঠে আসে। 

ফজলুর রহমান বলেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর আগেও মাদককারবারিদের তালিকা তৈরি করেছিল। সম্প্রতি এ তালিকা হালনাগাদ করা হয়েছে। এখন ঢাকা বিভাগের মাদককারবারিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক বলেন, অভিযান চালাতে লোকবল ও সক্ষমতা আগের তুলনায় বাড়ানো হয়েছে। ফলে অভিযানের সংখ্যা বেড়েছে। 
সংবাদ সম্মেলনে ফজলুর রহমান জানান, ২১ আগস্ট বনানী ও উত্তরা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫০০ গ্রাম আইসসহ ১০ মাদককারবারিকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার গুলশান, ভাটারা, কুড়িল ও রমনা এলাকায় অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে ৫৬০ গ্রাম ক্রিস্টাল মেথ (আইস) ও ১ হাজার ২০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। 

বৃহস্পতিবার গ্রেফতার পাঁচ ব্যক্তি হলেন— জাকারিয়া আহমেদ (৩২), তারেক আহম্মেদ (৫৫), সাদ্দাম হোসেন (৩১), শহিদুল ইসলাম খান (৪৮) ও জসিম উদ্দিন (৫০)। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন