মাদক মামলায় অস্থায়ী জামিন পেলেন পরীমনি
jugantor
মাদক মামলায় অস্থায়ী জামিন পেলেন পরীমনি

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১০ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৫৪:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

অস্থায়ী জামিন পেলেন পরীমনি

বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় আবারও জামিন পেয়েছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী পরীমনি ও তার দুই সহযোগী। রোববার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদারের আদালত তাদের জামিনের আদেশ দেন।

এ দিন পরীমনির জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় এবং মামলাটির ধার্য তারিখ থাকায় পরীমনি আদালতে হাজির হন। আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্থন করে আবারও স্বায়ীভাবে জামিনের আবেদন করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত তাদের অস্থায়ী জামিন মঞ্জুর করেন।

গত ৪ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক কাজী মোস্তফা কামাল পরীমনিসহ তিন জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। অভিযুক্ত অপর দুই আসামি হলেন— আশরাফুল ইসলাম দিপু ও কবির হোসেন।

চলতি বছর ১৪ জুন দুপুরে সাভার থানায় নির্যাতন ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছয় জনের নামে মামলা করেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। মামলায় ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদকে প্রধান আসামি করা হয়। এরপর বেশ কিছু সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ হলে ব্যাপক আলোচনায় আসেন পরীমনি। এরই ধারাবাহিকতায় ৪ আগস্ট রাতে বনানীর বাসায় অভিযান চালিয়ে সহযোগীসহ পরীমনিকে আটক করে র‍্যাব। এসময় তার বাসা থেকে বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয় বলে জানানো হয়।

পরে র‍্যাব-১ বাদী হয়ে মাদক আইনে পরীমনির বিরুদ্ধে মামলা করে। ৩১ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশের আদালত ৫০ হাজার টাকার মুচলেকায় পরীমনির জামিন মঞ্জুর করেন।

মাদক মামলায় অস্থায়ী জামিন পেলেন পরীমনি

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১০ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
অস্থায়ী জামিন পেলেন পরীমনি
ফাইল ছবি

বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় আবারও জামিন পেয়েছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী পরীমনি ও তার দুই সহযোগী।  রোববার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদারের আদালত তাদের জামিনের আদেশ দেন।

এ দিন পরীমনির জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় এবং মামলাটির ধার্য তারিখ থাকায় পরীমনি আদালতে হাজির হন।  আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্থন করে আবারও স্বায়ীভাবে জামিনের আবেদন করেন।  অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়।  উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত তাদের অস্থায়ী জামিন মঞ্জুর করেন।

গত ৪ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক কাজী মোস্তফা কামাল পরীমনিসহ তিন জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। অভিযুক্ত অপর দুই আসামি হলেন— আশরাফুল ইসলাম দিপু ও কবির হোসেন।

চলতি বছর ১৪ জুন দুপুরে সাভার থানায় নির্যাতন ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছয় জনের নামে মামলা করেন চিত্রনায়িকা পরীমনি।  মামলায় ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদকে প্রধান আসামি করা হয়। এরপর বেশ কিছু সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ হলে ব্যাপক আলোচনায় আসেন পরীমনি।  এরই ধারাবাহিকতায় ৪ আগস্ট রাতে বনানীর বাসায় অভিযান চালিয়ে সহযোগীসহ পরীমনিকে আটক করে র‍্যাব।  এসময় তার বাসা থেকে বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয় বলে জানানো হয়। 

পরে র‍্যাব-১ বাদী হয়ে মাদক আইনে পরীমনির বিরুদ্ধে মামলা করে।  ৩১ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশের আদালত ৫০ হাজার টাকার মুচলেকায় পরীমনির জামিন মঞ্জুর করেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : পরীমনি কাণ্ড