রামপুরায় বাসে অগ্নিসংযোগ-ভাঙচুরের ঘটনায় গ্রেফতার ২
jugantor
রামপুরায় বাসে অগ্নিসংযোগ-ভাঙচুরের ঘটনায় গ্রেফতার ২

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ২১:৫৯:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর রামপুরায় শিক্ষার্থী মৃত্যু কেন্দ্র করে বাসে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকে জানান, শনিবার (৪ ডিসেম্বর) রাতে রামপুরা থেকে স্বপন রেজা (২৫) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। আর শহিদ ব্যাপারী (২২) নামে আরেক ব্যক্তিকে আগেই গ্রেফতার করা হয়েছে।

বাসে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনায় রামপুরা থানা–পুলিশের করা মামলায় তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি। মঙ্গলবার রামপুরা থানায় করা মামলা দুটিতে অজ্ঞাত ৮০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

একই ঘটনায় হাতিরঝিল থানায় পুলিশ বাদী হয়ে আরেকটি মামলা করে। এ মামলায় এক কিশোরকে ঘটনার পরের দিন হাতিরঝিলের মীরেরবাগ এলাকা থেকে আটক করে পুলিশ। তাকে থানা হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত গত সোমবার রাত পৌনে ১১টার দিকে রাজধানীর রামপুরা এলাকায় গ্রিন অনাবিল পরিবহণের বাসের চাপায় মাঈনুদ্দিন নিহত হন। এ ঘটনায় রাতে সড়ক অবরোধ করে উত্তেজিত জনতা। এ সময় ঘাতক বাসসহ আটটি বাসে আগুন দেওয়া হয়। ভাঙচুর করা হয় আরও চারটি বাস।


রামপুরায় বাসে অগ্নিসংযোগ-ভাঙচুরের ঘটনায় গ্রেফতার ২

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর রামপুরায় শিক্ষার্থী মৃত্যু কেন্দ্র করে বাসে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকে জানান, শনিবার (৪ ডিসেম্বর) রাতে রামপুরা থেকে স্বপন রেজা (২৫) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। আর শহিদ ব্যাপারী (২২) নামে আরেক ব্যক্তিকে আগেই গ্রেফতার করা হয়েছে। 

বাসে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনায় রামপুরা থানা–পুলিশের করা মামলায় তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি। মঙ্গলবার রামপুরা থানায় করা মামলা দুটিতে অজ্ঞাত ৮০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

একই ঘটনায় হাতিরঝিল থানায় পুলিশ বাদী হয়ে আরেকটি মামলা করে। এ মামলায় এক কিশোরকে ঘটনার পরের দিন হাতিরঝিলের মীরেরবাগ এলাকা থেকে আটক করে পুলিশ। তাকে থানা হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত গত সোমবার রাত পৌনে ১১টার দিকে রাজধানীর রামপুরা এলাকায় গ্রিন অনাবিল পরিবহণের বাসের চাপায় মাঈনুদ্দিন নিহত হন। এ ঘটনায় রাতে সড়ক অবরোধ করে উত্তেজিত জনতা। এ সময় ঘাতক বাসসহ আটটি বাসে আগুন দেওয়া হয়। ভাঙচুর করা হয় আরও চারটি বাস।


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন