ঢাবিতে জুতা মিছিল, মুরাদের কুশপুতুল দাহ
jugantor
ঢাবিতে জুতা মিছিল, মুরাদের কুশপুতুল দাহ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৩৩:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির সঙ্গে ফোনালাপ ফাঁস হওয়ার পর তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ডা. মুরাদ হাসানের কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যের প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) জুতা মিছিল ও কুশপুতুল দাহ করেছে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ।

মিছিলটি সোমবার (৬ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে টিএসসি থেকে শুরু হয়ে রাজু ভাস্কর্যে গিয়ে শেষ হয়।

এ সময় বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের কর্মীরা ডা. মুরাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্লোগান দেন।

ছাত্র অধিকার পরিষদের সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা ও সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম আদীবের নেতৃত্বে মিছিলেন অংশ নেন পরিষদের কেন্দ্রীয় ও ঢাবি শাখার নেতাকর্মীরা।

মিছিল শেষে রাজু ভাস্কর্যের সামনে প্রতিমন্ত্রীর কুশপুতুল দাহ করা হয়।

মঙ্গলবারের মধ্যে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সোমবার রাত ৮ টায় ডা. মুরাদ হাসানকে প্রধানমন্ত্রীর এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

রোববার রাতে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের একটি ফোনালাপ ফাঁস হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নতুন করে তোপের মুখে পড়েন তিনি।

নারীর প্রতি ‘অবমাননাকর’ ও ‘বর্ণবাদী’ মন্তব্য করে আগে থেকেই তীব্র সমালোচনার মধ্যে আছেন এই প্রতিমন্ত্রী।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পরিবারের এক সদস্যকে নিয়ে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের ‘নারীবিদ্বেষী’ বক্তব্য নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা সৃষ্টি হয়। এরই মধ্যে ফাঁস হয় একটি ফোনালাপ।

জানা যায়, এই কথোপকথনটি ডা. মুরাদ হাসান ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির। ফোনালাপে থাকা চিত্রনায়ক ইমন ইতোমধ্যে সেটি স্বীকারও করেছেন। ফাঁস হওয়া ওই কথোপকথনে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মাহিকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় তুলে আনার হুমকি দেন। পুরো বক্তব্যে ‘অশ্রাব্য’ কিছু শব্দ উচ্চারিত হয়েছে। বিষয়টি এখন ‘টক অব দ্য কান্ট্রি’।

ঢাবিতে জুতা মিছিল, মুরাদের কুশপুতুল দাহ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৩৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির সঙ্গে ফোনালাপ ফাঁস হওয়ার পর তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ডা. মুরাদ হাসানের কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যের প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) জুতা মিছিল ও কুশপুতুল দাহ করেছে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ।

মিছিলটি সোমবার (৬ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে টিএসসি থেকে শুরু হয়ে রাজু ভাস্কর্যে গিয়ে শেষ হয়।

এ সময় বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের কর্মীরা ডা. মুরাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্লোগান দেন।

ছাত্র অধিকার পরিষদের সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা ও সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম আদীবের নেতৃত্বে মিছিলেন অংশ নেন পরিষদের কেন্দ্রীয় ও ঢাবি শাখার নেতাকর্মীরা।

মিছিল শেষে রাজু ভাস্কর্যের সামনে প্রতিমন্ত্রীর কুশপুতুল দাহ করা হয়।

মঙ্গলবারের মধ্যে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সোমবার রাত ৮ টায় ডা. মুরাদ হাসানকে প্রধানমন্ত্রীর এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। 

রোববার রাতে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের একটি ফোনালাপ ফাঁস হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নতুন করে তোপের মুখে পড়েন তিনি। 

নারীর প্রতি ‘অবমাননাকর’ ও ‘বর্ণবাদী’ মন্তব্য করে আগে থেকেই তীব্র সমালোচনার মধ্যে আছেন এই প্রতিমন্ত্রী।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পরিবারের এক সদস্যকে নিয়ে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের ‘নারীবিদ্বেষী’ বক্তব্য নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা সৃষ্টি হয়। এরই মধ্যে ফাঁস হয় একটি ফোনালাপ। 

জানা যায়, এই কথোপকথনটি ডা. মুরাদ হাসান ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির। ফোনালাপে থাকা চিত্রনায়ক ইমন ইতোমধ্যে সেটি স্বীকারও করেছেন। ফাঁস হওয়া ওই কথোপকথনে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মাহিকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় তুলে আনার হুমকি দেন। পুরো বক্তব্যে ‘অশ্রাব্য’ কিছু শব্দ উচ্চারিত হয়েছে। বিষয়টি এখন ‘টক অব দ্য কান্ট্রি’।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন