আমলাতান্ত্রিক জটিলতা নিয়ে সংসদে এমপি নাজিমের ক্ষোভ
jugantor
আমলাতান্ত্রিক জটিলতা নিয়ে সংসদে এমপি নাজিমের ক্ষোভ

  সংসদ প্রতিবেদন  

১৭ জানুয়ারি ২০২২, ২২:৫৪:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

আমলাতান্ত্রিক জটিলতা নিয়ে জাতীয় সংসদে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) আসনের সরকারদলীয় এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ।

জাতীয় সংসদে সোমবার রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন এমপি নাজিম বলেন, ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় আমরা ভুগছি। একজন এমপির কোনো মূল্য নেই আমলার কাছে। জাতীয় সংসদ সদস্য হিসেবে একজন সচিবের কাছে গেলে মূল্যায়ন নেই। নিয়ম অনুযায়ী তারা আমাদের শ্রদ্ধা করবেন, সেই শ্রদ্ধাবোধ তাদের নেই। তাদের পিয়ন পর্যন্ত আমাদের দাম দেন না।

তিনি আরও বলেন, সত্য কথা বলতে কি, আজ আপনার যারা সংসদ অধিবেশনে রয়েছেন, তাদের কাউকে আমলারা কোনো মূল্যায়ন করেন না।

সরকারদলীয় এই সাংসদ বলেন, এমপি হিসেবে একজন সচিবের কাছে গেলে তারা যেভাবে শ্রদ্ধা করবেন, সেই শ্রদ্ধাবোধ নাই। পিয়ন পর্যন্ত আমাদের দাম দেয় না। স্যারডা না বইলা পারে না। আমলাতন্ত্রের হাতে আমরা জিম্মি হয়ে গেছি। কাজেই আমলাতন্ত্রের হাত থেকে বাঁচার জন্য আমাদের সবাইকে সোচ্চার হতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ন্যায়-অন্যায়ের ভিত্তিতে কাজ করতে হবে। ন্যায়-অন্যায়ের ভিত্তিতে এগিয়ে যেতে হবে।আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় এলাকার যে উন্নয়ন কাজগুলো স্থবির হয়ে আছে, সেগুলো এগিয়ে নিতে স্পিকারের মাধ্যমে অনুরোধ করতে চাই।

এর আগে গত ৩০ ডিসেম্বর পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে আমলাতান্ত্রিক কর্তৃত্ববাদ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছিলেন, বিদেশিরাও এ দেশে বিনিয়োগ করতে গিয়ে আমলাতন্ত্রের মধ্যে পড়ে যান। এই অঞ্চলে রাজনীতিবিদদের তুলনায় আমলারা অনেক বেশি কর্তৃত্ববাদী।

আমলাতান্ত্রিক জটিলতা নিয়ে সংসদে এমপি নাজিমের ক্ষোভ

 সংসদ প্রতিবেদন 
১৭ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আমলাতান্ত্রিক জটিলতা নিয়ে জাতীয় সংসদে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন  ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) আসনের সরকারদলীয় এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ।

জাতীয় সংসদে সোমবার রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন এমপি নাজিম বলেন, ‘আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় আমরা ভুগছি। একজন এমপির কোনো মূল্য নেই আমলার কাছে। জাতীয় সংসদ সদস্য হিসেবে একজন সচিবের কাছে গেলে মূল্যায়ন নেই। নিয়ম অনুযায়ী তারা আমাদের শ্রদ্ধা করবেন, সেই শ্রদ্ধাবোধ তাদের নেই। তাদের পিয়ন পর্যন্ত আমাদের দাম দেন না।

তিনি আরও বলেন, সত্য কথা বলতে কি, আজ আপনার যারা সংসদ অধিবেশনে রয়েছেন, তাদের কাউকে আমলারা কোনো মূল্যায়ন করেন না।

সরকারদলীয় এই সাংসদ বলেন, এমপি হিসেবে একজন সচিবের কাছে গেলে তারা যেভাবে শ্রদ্ধা করবেন, সেই শ্রদ্ধাবোধ নাই। পিয়ন পর্যন্ত আমাদের দাম দেয় না। স্যারডা না বইলা পারে না। আমলাতন্ত্রের হাতে আমরা জিম্মি হয়ে গেছি। কাজেই আমলাতন্ত্রের হাত থেকে বাঁচার জন্য আমাদের সবাইকে সোচ্চার হতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ন্যায়-অন্যায়ের ভিত্তিতে কাজ করতে হবে। ন্যায়-অন্যায়ের ভিত্তিতে এগিয়ে যেতে হবে।আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় এলাকার যে উন্নয়ন কাজগুলো স্থবির হয়ে আছে, সেগুলো এগিয়ে নিতে স্পিকারের মাধ্যমে অনুরোধ করতে চাই।

এর আগে গত ৩০ ডিসেম্বর পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে আমলাতান্ত্রিক কর্তৃত্ববাদ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছিলেন, বিদেশিরাও এ দেশে বিনিয়োগ করতে গিয়ে আমলাতন্ত্রের মধ্যে পড়ে যান। এই অঞ্চলে রাজনীতিবিদদের তুলনায় আমলারা অনেক বেশি কর্তৃত্ববাদী।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন