পিকে হালদারকে দেশে আনা নিয়ে রুলের শুনানি ১২ জুন
jugantor
পিকে হালদারকে দেশে আনা নিয়ে রুলের শুনানি ১২ জুন

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৭ মে ২০২২, ১৩:৫০:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ থেকে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় ভারতে আটক এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক ও রিলায়েন্স ফিন্যান্স লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার হালদারকে (পিকে হালদার) দেশে ফেরানো প্রশ্নে রুলের ওপর ১২ জুন শুনানির দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার শুনানির এই তারিখ ধার্য করেন।

পাশাপাশি পিকে হালদারের বিরুদ্ধে করা মামলাগুলোর হালনাগাদ তথ্য জানাতে দুদককে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এসব তথ্য জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন। তিনি আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন। আর দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

পিকে হালদারকে গ্রেফতার ও দেশে ফিরিয়ে আনার প্রশ্নে দেড় বছর আগে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদারের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত রুলসহ অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দিয়েছিলেন।

গত শনিবার ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থনৈতিক গোয়েন্দা সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) পশ্চিমবঙ্গ থেকে পলাতক পিকে হালদারকে গ্রেফতার করে। ইডির বরাত দিয়ে ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যম জানায়, পিকে হালদার রেশন কার্ড, ভারতের জাতীয় পরিচয়পত্র, আয়কর দপ্তরের পরিচয়পত্র পিএএন (প্যান) ও আধার কার্ডের মতো ভারতীয় বিভিন্ন সরকারি পরিচয়পত্র জালিয়াতি করে পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে অবস্থান করছিলেন। সেখানে তিনি শিব শংকর হালদার নাম নিয়েছিলেন।

পিকে হালদারকে দেশে আনা নিয়ে রুলের শুনানি ১২ জুন

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৭ মে ২০২২, ০১:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ থেকে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় ভারতে আটক এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক ও রিলায়েন্স ফিন্যান্স লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার হালদারকে (পিকে হালদার) দেশে ফেরানো প্রশ্নে রুলের ওপর ১২ জুন শুনানির দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার শুনানির এই তারিখ ধার্য করেন।

পাশাপাশি পিকে হালদারের বিরুদ্ধে করা মামলাগুলোর হালনাগাদ তথ্য জানাতে দুদককে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এসব তথ্য জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন।  তিনি আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন।  আর দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

পিকে হালদারকে গ্রেফতার ও দেশে ফিরিয়ে আনার প্রশ্নে দেড় বছর আগে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদারের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত রুলসহ অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দিয়েছিলেন।

গত শনিবার ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থনৈতিক গোয়েন্দা সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) পশ্চিমবঙ্গ থেকে পলাতক পিকে হালদারকে গ্রেফতার করে। ইডির বরাত দিয়ে ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যম জানায়, পিকে হালদার রেশন কার্ড, ভারতের জাতীয় পরিচয়পত্র, আয়কর দপ্তরের পরিচয়পত্র পিএএন (প্যান) ও আধার কার্ডের মতো ভারতীয় বিভিন্ন সরকারি পরিচয়পত্র জালিয়াতি করে পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে অবস্থান করছিলেন। সেখানে তিনি শিব শংকর হালদার নাম নিয়েছিলেন। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন