মন্ত্রিসভায় আইনের খসড়া অনুমোদন, সাংবাদিকদের জরিমানা করতে পারবে প্রেস কাউন্সিল
jugantor
মন্ত্রিসভায় আইনের খসড়া অনুমোদন, সাংবাদিকদের জরিমানা করতে পারবে প্রেস কাউন্সিল

  যুগান্তর ডেস্ক  

২০ জুন ২০২২, ১৮:০৮:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

মন্ত্রিসভায়

সাংবাদিকদের জরিমানার বিধান রেখে প্রেস কাউন্সিল সংশোধন আইন ২০২২ এর খসড়া মন্ত্রিসভায় নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

বৈঠক শেষে বিকালে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, জরিমানা হিসেবে সুনির্দিষ্ট পরিমাণ টাকার অংক রাখার বিষয়টি বাতিল করা হয়েছে। প্রেস কাউন্সিলই জরিমানার অংক নির্ধারণ করবে।

আইনটি মন্ত্রিসভায় নিয়ে আসে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়। তাদের প্রস্তাবে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা, জনশৃঙ্খলা, নৈতিকতা ইত্যাদি ক্ষুণ্ন বা ভঙ্গের অপরাধে সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ডের প্রস্তাব করা হলে তাতে সায় দেয়নি মন্ত্রি

আইন মন্ত্রণালয়ের যাচাই বাছাইয়ের পর আইনটিকে আবারও মন্ত্রিসভায় তোলা হবে বলে জানান খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি বলেন, এটা ১৯৭৪ সালে একটা প্রেস কাউন্সিল অ্যাক্ট ছিল, সেটার সংশোধনী নিয়ে আসা হয়েছিল আজ। আগে প্রেস কাউন্সিলের সদস্য সংখ্যা ১৪ ছিল, সেটা ১৭ করা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, অর্থদণ্ড আলোচনার ওপর ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত এটা ফাইনাল অনুমোদন দেয়া হয়নি। এটা আলাপ আলোচনার বিষয় আছে, তাই প্রাথমিক অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এটা ভেটিং হয়ে আবার আসবে। ফাইনালি এটা আবার কেবিনেটে আসবে। যদিও ছোট একটি সংশোধন তারপরও এটাকে চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়নি। এটা আবার আসবে।

মন্ত্রিসভায় আইনের খসড়া অনুমোদন, সাংবাদিকদের জরিমানা করতে পারবে প্রেস কাউন্সিল

 যুগান্তর ডেস্ক 
২০ জুন ২০২২, ০৬:০৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মন্ত্রিসভায়
ছবি: সংগৃহীত

সাংবাদিকদের জরিমানার বিধান রেখে প্রেস কাউন্সিল সংশোধন আইন ২০২২ এর খসড়া মন্ত্রিসভায় নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

বৈঠক শেষে বিকালে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য জানান। 

তিনি বলেন, জরিমানা হিসেবে সুনির্দিষ্ট পরিমাণ টাকার অংক রাখার বিষয়টি বাতিল করা হয়েছে। প্রেস কাউন্সিলই জরিমানার অংক নির্ধারণ করবে।

আইনটি মন্ত্রিসভায় নিয়ে আসে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়। তাদের প্রস্তাবে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা, জনশৃঙ্খলা, নৈতিকতা ইত্যাদি ক্ষুণ্ন বা ভঙ্গের অপরাধে সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ডের প্রস্তাব করা হলে তাতে সায় দেয়নি মন্ত্রি

আইন মন্ত্রণালয়ের যাচাই বাছাইয়ের পর আইনটিকে আবারও মন্ত্রিসভায় তোলা হবে বলে জানান খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। 

তিনি বলেন, এটা ১৯৭৪ সালে একটা প্রেস কাউন্সিল অ্যাক্ট ছিল, সেটার সংশোধনী নিয়ে আসা হয়েছিল আজ। আগে প্রেস কাউন্সিলের সদস্য সংখ্যা ১৪ ছিল, সেটা ১৭ করা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, অর্থদণ্ড আলোচনার ওপর ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত এটা ফাইনাল অনুমোদন দেয়া হয়নি। এটা আলাপ আলোচনার বিষয় আছে, তাই প্রাথমিক অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এটা ভেটিং হয়ে আবার আসবে। ফাইনালি এটা আবার কেবিনেটে আসবে। যদিও ছোট একটি সংশোধন তারপরও এটাকে চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়নি। এটা আবার আসবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন