শীর্ষ আলেম আল্লামা আবদুল হালিম বোখারীর ইন্তেকাল
jugantor
শীর্ষ আলেম আল্লামা আবদুল হালিম বোখারীর ইন্তেকাল

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২১ জুন ২০২২, ১৮:০১:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

দেশের শীর্ষ আলেম আল্লামা আবদুল হালিম বোখারীর ইন্তেকাল

দেশের শীর্ষ আলেম ও চট্টগ্রামের আল-জামিয়া আল-ইসলামিয়া পটিয়ার মহাপরিচালক আল্লামা মুফতি আবদুল হালিম বোখারী (৭৭) ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় চট্টগ্রাম শহরের সিএসসিআর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন তিনি।

এর আগে রোববার বিকালে হঠাৎ শ্বাস কষ্টজনিত রোগে অসুস্থ হয়ে পড়েন মুফতি আবদুল হালিম বোখারী। পরে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরে তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করেন। সেখানে দু’দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

আল্লামা আব্দুল হালিম বোখারী দেশের দ্বিতীয় শীর্ষ ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আল জামিয়া আল ইসলামিয়া পটিয়ার মহাপরিচালক, সম্মিলিত কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড আঞ্জুমানে ইত্তেহাদুল মাদারিস বাংলাদেশের মহাসচিব।

এছাড়াও তিনি শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের শরীয়াহ সুপারভাইজারি কমিটির সভাপতি, ইসলামি সম্মেলন সংস্থা বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ তাহফিজুল কুরআন সংস্থার সভাপতি এবং জামিয়া পটিয়ার মুখপাত্র মাসিক আত তাওহীদের প্রধান সম্পাদক ছিলেন।

২০১৮ সালে সরকার কর্তৃক কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসের সনদকে মাস্টার্সের স্বীকৃতি প্রদানের নিমিত্তে আল হাইআতুল উলয়া গঠিত হলে তিনি এর স্থায়ী কমিটির সদস্য মনোনীত হন।

মুফতি আবদুল হালিম বোখারী ছিলেন দেশের একজন প্রথিতযশা আলেমে দ্বীন। মাদ্রাসা শিক্ষার উভয় ধারায় তিনি সর্বোচ্চ ডিগ্রী অর্জন করেন। সাধারণ শিক্ষাব্যবস্থায়ও তিনি ডিগ্রীপ্রাপ্ত হন। ইলমে হাদিস ও ফিকাহ শাস্ত্রের উপর তিনি গভীর জ্ঞান রাখতেন এবং যুগ সমস্যার উপযোগী সমাধান দিতে পারতেন। তিনি দেশের আলেমদের উল্লেখযোগ্য অংশের দীর্ঘদিন নেতৃত্ব দিয়েছেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৪ ছেলে, ৩ মেয়েসহ বহু আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন। মঙ্গলবার রাত ১০টায় পটিয়া মাদ্রাসায় মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে তার লাশ দাফন করা হবে।

শীর্ষস্থানীয় আলেম ও কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ সংস্থা আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের সদস্য আল্লামা আল্লামা মুফতি আবদুল হালীম বোখারী ইন্তেকালে দেশের ধর্মীয় অঙ্গনে শোকের ছায়া বিরাজ করছে।

তার ইন্তেকালে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

আজ এক শোক বার্তায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মরহুমের রূহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এছাড়া দেশের বিভিন্ন ইসলামী সংগঠন ও ধর্মীয় ব্যক্তিরাও গণমাধ্যমে শোকবার্তা পাঠিয়েছেন।

বেফাক নেতৃবৃন্দের শোক

আল্লামা আবদুল হালিম বোখারীর ইন্তেকালে বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ-এর সভাপতি আল্লামা মাহমুদুল হাসান ও মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হকসহ বেফাক নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেন। সারাদেশের ওলামায়ে কেরাম ও ছাত্রদের কাছে তার জন্য বিশেষ দোয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন তারা।

আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদের শোক

গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান ও ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহের গ্র্যান্ড ইমাম শাইখুল ইসলাম আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ।

তিনি বলেন, আল্লামা আবদুল হালিম বোখারী একজন প্রাজ্ঞ হাদীস বিশারদ ও বিজ্ঞ আলেমেদ্বীন ছিলেন। ইলমী ও বিনয়াবনত সদাচরণ ও কথাবার্তায় তিনি সবাইকে খুব সহজেই মুগ্ধ করতে পারতেন। আদর্শবান মানুষ গড়ার লক্ষ্যে তিনি আজীবন দরস-তাদরিসের কাজ আঞ্জাম দিয়েছেন। আজ তাঁর মৃত্যুতে শিক্ষার্থীরা একজন পথপ্রদর্শক, আদর্শ শিক্ষককে হারালো, আমরা একজন মহৎপ্রাণ আলেমকে হারালাম।

জাতীয় মসজিদের খতিবের শোক

সম্মিলিত কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান আল্লামা আবদুল হালিম বোখারীর ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের খতিব ও কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড গওহরডাঙ্গা বাংলাদেশের সভাপতি আল্লামা মুফতি রুহুল আমিন।

এক শোকবার্তায় তিনি বলেন, কওমি মাদ্রাসা সনদের সরকারি স্বীকৃতিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে তার অবদানের কারনে জাতী তাকে কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ রাখবে।

এছাড়া ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম, খেলাফত মজলিসের আমির প্রিন্সিপাল মাওলানা মো. ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আব্দুল কাদের, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সভাপতি আল্লামা শায়খ জিয়া উদ্দীন ও আল্লামা আহমদ শফীর ছেলে মাওলানা আনাস মাদানি শোক প্রকাশ করেছেন।


শীর্ষ আলেম আল্লামা আবদুল হালিম বোখারীর ইন্তেকাল

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২১ জুন ২০২২, ০৬:০১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
দেশের শীর্ষ আলেম আল্লামা আবদুল হালিম বোখারীর ইন্তেকাল
আল্লামা মুফতি আবদুল হালিম বোখারী। ছবি: সংগৃহীত

দেশের শীর্ষ আলেম ও চট্টগ্রামের আল-জামিয়া আল-ইসলামিয়া পটিয়ার মহাপরিচালক আল্লামা মুফতি আবদুল হালিম বোখারী (৭৭) ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। 

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় চট্টগ্রাম শহরের সিএসসিআর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন তিনি।

এর আগে রোববার বিকালে হঠাৎ শ্বাস কষ্টজনিত রোগে অসুস্থ হয়ে পড়েন মুফতি আবদুল হালিম বোখারী। পরে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরে তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করেন। সেখানে দু’দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

আল্লামা আব্দুল হালিম বোখারী দেশের দ্বিতীয় শীর্ষ ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আল জামিয়া আল ইসলামিয়া পটিয়ার মহাপরিচালক, সম্মিলিত কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড আঞ্জুমানে ইত্তেহাদুল মাদারিস বাংলাদেশের মহাসচিব।

এছাড়াও তিনি শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের শরীয়াহ সুপারভাইজারি কমিটির সভাপতি, ইসলামি সম্মেলন সংস্থা বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ তাহফিজুল কুরআন সংস্থার সভাপতি এবং জামিয়া পটিয়ার মুখপাত্র মাসিক আত তাওহীদের প্রধান সম্পাদক ছিলেন।

২০১৮ সালে সরকার কর্তৃক কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসের সনদকে মাস্টার্সের স্বীকৃতি প্রদানের নিমিত্তে আল হাইআতুল উলয়া গঠিত হলে তিনি এর স্থায়ী কমিটির সদস্য মনোনীত হন।

মুফতি আবদুল হালিম বোখারী ছিলেন দেশের একজন প্রথিতযশা আলেমে দ্বীন। মাদ্রাসা শিক্ষার উভয় ধারায় তিনি সর্বোচ্চ ডিগ্রী অর্জন করেন। সাধারণ শিক্ষাব্যবস্থায়ও তিনি ডিগ্রীপ্রাপ্ত হন। ইলমে হাদিস ও ফিকাহ শাস্ত্রের উপর তিনি গভীর জ্ঞান রাখতেন এবং যুগ সমস্যার উপযোগী সমাধান দিতে পারতেন। তিনি দেশের আলেমদের উল্লেখযোগ্য অংশের দীর্ঘদিন নেতৃত্ব দিয়েছেন। 

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৪ ছেলে, ৩ মেয়েসহ বহু আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন। মঙ্গলবার রাত ১০টায় পটিয়া মাদ্রাসায় মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে তার লাশ দাফন করা হবে।

শীর্ষস্থানীয় আলেম ও কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ সংস্থা আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের সদস্য আল্লামা আল্লামা মুফতি আবদুল হালীম বোখারী ইন্তেকালে দেশের ধর্মীয় অঙ্গনে শোকের ছায়া বিরাজ করছে। 

তার ইন্তেকালে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

আজ এক শোক বার্তায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মরহুমের রূহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এছাড়া দেশের বিভিন্ন ইসলামী সংগঠন ও ধর্মীয় ব্যক্তিরাও গণমাধ্যমে শোকবার্তা পাঠিয়েছেন।

বেফাক নেতৃবৃন্দের শোক

আল্লামা আবদুল হালিম বোখারীর ইন্তেকালে বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ-এর সভাপতি আল্লামা মাহমুদুল হাসান ও মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হকসহ বেফাক নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেন। সারাদেশের ওলামায়ে কেরাম ও ছাত্রদের কাছে তার জন্য বিশেষ দোয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন তারা।

আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদের শোক

গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান ও ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহের গ্র্যান্ড ইমাম শাইখুল ইসলাম আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ।

তিনি বলেন, আল্লামা আবদুল হালিম বোখারী একজন প্রাজ্ঞ হাদীস বিশারদ ও বিজ্ঞ আলেমেদ্বীন ছিলেন। ইলমী ও বিনয়াবনত সদাচরণ ও কথাবার্তায় তিনি সবাইকে খুব সহজেই মুগ্ধ করতে পারতেন। আদর্শবান মানুষ গড়ার লক্ষ্যে তিনি আজীবন দরস-তাদরিসের কাজ আঞ্জাম দিয়েছেন। আজ তাঁর মৃত্যুতে শিক্ষার্থীরা একজন পথপ্রদর্শক, আদর্শ শিক্ষককে হারালো, আমরা একজন মহৎপ্রাণ আলেমকে হারালাম।

জাতীয় মসজিদের খতিবের শোক

সম্মিলিত কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান আল্লামা আবদুল হালিম বোখারীর ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের খতিব ও কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড গওহরডাঙ্গা বাংলাদেশের সভাপতি আল্লামা মুফতি রুহুল আমিন। 

এক শোকবার্তায় তিনি বলেন, কওমি মাদ্রাসা সনদের সরকারি স্বীকৃতিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে তার অবদানের কারনে জাতী তাকে কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ রাখবে।

এছাড়া ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম, খেলাফত মজলিসের আমির প্রিন্সিপাল মাওলানা মো. ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আব্দুল কাদের, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সভাপতি আল্লামা শায়খ জিয়া উদ্দীন ও আল্লামা আহমদ শফীর ছেলে মাওলানা আনাস মাদানি শোক প্রকাশ করেছেন।


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন