সন্ত্রাস নির্মূলে পুলিশ প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করেছে: আইজিপি
jugantor
সন্ত্রাস নির্মূলে পুলিশ প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করেছে: আইজিপি

  চারঘাট (রাজশাহী) প্রতিনিধি   

৩০ জুন ২০২২, ১৫:২৯:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার) বলেছেন, জাতির জনক শেখ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব স্বাধীনতার পর পরই দেশের পুলিশ বাহিনীকে জনগণের পুলিশ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য নানা উদ্যোগ নিয়েছিলেন। বর্তমানে জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে পুলিশ প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমি সারদায় ১৬৪তম ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআসি) ২০২১ ব্যাচের ৪৫৩ শিক্ষানবিশ টিআরসিদের ছয় মাস মেয়াদি মৌলিক প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

আইজিপি বলেন, পুলিশ সদস্যদের আধুনিকায়নে অপরাধী শনাক্তকরণ ও মামলা তদন্তে প্রকৃত তথ্য উদ্ঘাটনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ পুলিশের সাইবার সেন্টার, ডিএনও ল্যাব, পুলিশ সদস্যদের কল্যাণের জন্য পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্ট, পুলিশের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে বিট পুলিশিং, কমিউনিটি পুলিশিং গঠন করা হয়েছে, যা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল।

তিনি পুলিশ বাহিনীর উদ্দেশে বলেন, স্বাধীন দেশের পুলিশ হিসাবে পুলিশ বাহিনীর কর্তব্য জনগণকে সেবা করা, জনগণকে ভালোবাসা, দুর্দিনে জনগণকে সাহায্য করা, পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় জনগণের মৌলিক অধিকার ও আইনের শাসনকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া।

এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমি সারদার প্রিন্সিপাল ও এআইজি আবু হাসান মুহম্মদ তারিক বিপিএম, পুনাকের সভানেত্রী বেগম জীশান মির্জাসহ উচ্চ পদস্থ পুলিশ কর্মকর্তা এবং রাজশাহী বিভাগের পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা।

সন্ত্রাস নির্মূলে পুলিশ প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করেছে: আইজিপি

 চারঘাট (রাজশাহী) প্রতিনিধি  
৩০ জুন ২০২২, ০৩:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার) বলেছেন, জাতির জনক শেখ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব স্বাধীনতার পর পরই দেশের পুলিশ বাহিনীকে জনগণের পুলিশ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য নানা উদ্যোগ নিয়েছিলেন। বর্তমানে জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে পুলিশ প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করেছে। 

বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমি সারদায় ১৬৪তম ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআসি) ২০২১ ব্যাচের ৪৫৩ শিক্ষানবিশ টিআরসিদের ছয় মাস মেয়াদি মৌলিক প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। 

আইজিপি বলেন, পুলিশ সদস্যদের আধুনিকায়নে অপরাধী শনাক্তকরণ ও মামলা তদন্তে প্রকৃত তথ্য উদ্ঘাটনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ পুলিশের সাইবার সেন্টার, ডিএনও ল্যাব, পুলিশ সদস্যদের কল্যাণের জন্য পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্ট, পুলিশের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে বিট পুলিশিং, কমিউনিটি পুলিশিং গঠন করা হয়েছে, যা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল। 

তিনি পুলিশ বাহিনীর উদ্দেশে বলেন, স্বাধীন দেশের পুলিশ হিসাবে পুলিশ বাহিনীর কর্তব্য জনগণকে সেবা করা, জনগণকে ভালোবাসা, দুর্দিনে জনগণকে সাহায্য করা, পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় জনগণের মৌলিক অধিকার ও আইনের শাসনকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া। 

এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমি সারদার প্রিন্সিপাল ও এআইজি আবু হাসান মুহম্মদ তারিক বিপিএম, পুনাকের সভানেত্রী বেগম জীশান মির্জাসহ উচ্চ পদস্থ পুলিশ কর্মকর্তা এবং রাজশাহী বিভাগের পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন