চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় এখনই প্রস্তুতি নিতে হবে: সাইফুল আলম
jugantor
চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় এখনই প্রস্তুতি নিতে হবে: সাইফুল আলম

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৭ জুলাই ২০২২, ২১:৪৬:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

দৈনিক যুগান্তর সম্পাদক সাইফুল আলম বলেছেন, অন্যান্য শিল্পবিপ্লবের চেয়ে চতুর্থ শিল্পবিপ্লব দ্রুত সবকিছুতে পরিবর্তন আনছে। প্রিন্ট মিডিয়াসহ সবকিছুই নতুন জগতে প্রবেশ করছে। তাই এখন আমরা যেভাবে রয়েছি, সেভাবে পড়ে থাকলে ভবিষ্যতে একটা চ্যালেঞ্জের মধ্যে পড়ে যাব। তাই টিকে থাকতে হলে আমাদের প্রশিক্ষিত হতে হবে।

বুধবার প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ-পিআইবি সেমিনার কক্ষে আয়োজিত তিন দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের (ডিএসইসি) সদস্যদের নিয়ে ২৫-২৭ জুলাই কর্মশালার আয়োজন করা হয়। এতে বিভিন্ন পত্রিকা, অনলাইন পোর্টাল ও টিভি চ্যানেলের ৩৫ জন সহসম্পাদক ও সিনিয়র সহসম্পাদক অংশ নেন।

সাইফুল আলম বলেন, সাংবাদিকতা একটি ঝুঁকিপূর্ণ ও দ্রুত পরিবর্তনশীল পেশা। একবার এ পেশায় জড়িয়ে গেলে বেরিয়ে আসা কঠিন। তাই নিজেদের দক্ষতা বাড়িয়ে এ পেশাকে উপভোগ করতে হবে।

তিনি বলেন, পিআইবি এখন বহুমাত্রিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। গণমাধ্যমকর্মীদের মানোন্নয়নে পিআইবি অনেক সুযোগ করে দিয়েছে। এসব সুযোগ গ্রহণ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে পিআইবির মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ বলেন, সাব-এডিটররা হলেন পত্রিকার চালিকাশক্তি। তাদের হাত দিয়ে একটি রিপোর্ট পাঠযোগ্য হয়ে ওঠে। তাই তাদের অনেক বেশি জানা দরকার। পড়াশোনা করা দরকার। পর্যায়ক্রমে আমরা ঢাকার সব সাব-এডিটরকে প্রশিক্ষণ দেব।

কর্মশালা সমন্বয়কারী জিলহাজ উদ্দিন নিপুণের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন পিআইবি পরিচালক (প্রশাসন) মো. আফরাজুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের সভাপতি মামুন ফরাজী।

চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় এখনই প্রস্তুতি নিতে হবে: সাইফুল আলম

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৭ জুলাই ২০২২, ০৯:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দৈনিক যুগান্তর সম্পাদক সাইফুল আলম বলেছেন, অন্যান্য শিল্পবিপ্লবের চেয়ে চতুর্থ শিল্পবিপ্লব দ্রুত সবকিছুতে পরিবর্তন আনছে। প্রিন্ট মিডিয়াসহ সবকিছুই নতুন জগতে প্রবেশ করছে। তাই এখন আমরা যেভাবে রয়েছি, সেভাবে পড়ে থাকলে ভবিষ্যতে একটা চ্যালেঞ্জের মধ্যে পড়ে যাব। তাই টিকে থাকতে হলে আমাদের প্রশিক্ষিত হতে হবে। 

বুধবার প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ-পিআইবি সেমিনার কক্ষে আয়োজিত তিন দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের (ডিএসইসি) সদস্যদের নিয়ে ২৫-২৭ জুলাই কর্মশালার আয়োজন করা হয়। এতে বিভিন্ন পত্রিকা, অনলাইন পোর্টাল ও টিভি চ্যানেলের ৩৫ জন সহসম্পাদক ও সিনিয়র সহসম্পাদক অংশ নেন।

সাইফুল আলম বলেন, সাংবাদিকতা একটি ঝুঁকিপূর্ণ ও দ্রুত পরিবর্তনশীল পেশা। একবার এ পেশায় জড়িয়ে গেলে বেরিয়ে আসা কঠিন। তাই নিজেদের দক্ষতা বাড়িয়ে এ পেশাকে উপভোগ করতে হবে। 

তিনি বলেন, পিআইবি এখন বহুমাত্রিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। গণমাধ্যমকর্মীদের মানোন্নয়নে পিআইবি অনেক সুযোগ করে দিয়েছে। এসব সুযোগ গ্রহণ করতে হবে। 

অনুষ্ঠানে পিআইবির মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ বলেন, সাব-এডিটররা হলেন পত্রিকার চালিকাশক্তি। তাদের হাত দিয়ে একটি রিপোর্ট পাঠযোগ্য হয়ে ওঠে। তাই তাদের অনেক বেশি জানা দরকার। পড়াশোনা করা দরকার। পর্যায়ক্রমে আমরা ঢাকার সব সাব-এডিটরকে প্রশিক্ষণ দেব।

কর্মশালা সমন্বয়কারী জিলহাজ উদ্দিন নিপুণের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন পিআইবি পরিচালক (প্রশাসন) মো. আফরাজুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের সভাপতি মামুন ফরাজী।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন