হাইকোর্টে জিতলেন সামিয়া, সব সুযোগ-সুবিধা ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ
jugantor
হাইকোর্টে জিতলেন সামিয়া, সব সুযোগ-সুবিধা ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৪ আগস্ট ২০২২, ১৩:১৬:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

হাইকোর্টের রায়ে জিতলেনঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক সামিয়া রহমান।

গবেষণায় চৌর্যবৃত্তির দায়ে তার পদাবনতির আদেশ অবৈধ ঘোষণা করে সামিয়া রহমানকে সব সুযোগ-সুবিধাসহ পদ ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি জাফর আহমেদ ও বিচারপতি মো. আখতারুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এ রায় দেন।

সামিয়া রহমানের আইনজীবী ব্যারিস্টার হাসান এমএস আজিম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রায় শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আদালত জারি করা রুল অ্যাবসুলেট করে আজকে রায় দিয়েছেন। রায়ে তাকে সব সুযোগ-সুবিধা ফিরিয়ে দিতে বলেছেন আদালত।’

এর আগে সামিয়া রহমানকে পদাবনতি দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে গত বছরের ৫ সেপ্টেম্বর রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট। ওই রুল যথাযথ ঘোষণা করে বৃহস্পতিবার রায় দিয়েছেন উচ্চ আদালত।

গত বছরের ৩১ আগস্ট পদাবনতি দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন সামিয়া রহমান।

গবেষণায় চৌর্যবৃত্তির দায়ে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের এ শিক্ষককে সহযোগী অধ্যাপক থেকে একধাপ নামিয়ে সহকারী অধ্যাপক করে দেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট।

একই অপরাধে সামিয়ার গবেষণা প্রবন্ধের সহলেখক অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সৈয়দ মাহফুজুল হক মারজানের দুই বছর পদোন্নতি রহিত করা হয়।

বিষয়টি গণমাধ্যমে উঠে এলে আলোচনায় আসেন সামিয়া রহমান।

হাইকোর্টে জিতলেন সামিয়া, সব সুযোগ-সুবিধা ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৪ আগস্ট ২০২২, ০১:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হাইকোর্টের রায়ে জিতলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক সামিয়া রহমান।

গবেষণায় চৌর্যবৃত্তির দায়ে তার পদাবনতির আদেশ অবৈধ ঘোষণা করে সামিয়া রহমানকে সব সুযোগ-সুবিধাসহ পদ ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি জাফর আহমেদ ও বিচারপতি মো. আখতারুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এ রায় দেন।

সামিয়া রহমানের আইনজীবী ব্যারিস্টার হাসান এমএস আজিম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রায় শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আদালত জারি করা রুল অ্যাবসুলেট করে আজকে রায় দিয়েছেন। রায়ে তাকে সব সুযোগ-সুবিধা ফিরিয়ে দিতে বলেছেন আদালত।’

এর আগে সামিয়া রহমানকে পদাবনতি দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে গত বছরের ৫ সেপ্টেম্বর রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট। ওই রুল যথাযথ ঘোষণা করে বৃহস্পতিবার রায় দিয়েছেন উচ্চ আদালত।

গত বছরের ৩১ আগস্ট পদাবনতি দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন সামিয়া রহমান।

গবেষণায় চৌর্যবৃত্তির দায়ে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের এ শিক্ষককে সহযোগী অধ্যাপক থেকে একধাপ নামিয়ে সহকারী অধ্যাপক করে দেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট।

একই অপরাধে সামিয়ার গবেষণা প্রবন্ধের সহলেখক অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সৈয়দ মাহফুজুল হক মারজানের দুই বছর পদোন্নতি রহিত করা হয়।

বিষয়টি গণমাধ্যমে উঠে এলে আলোচনায় আসেন সামিয়া রহমান।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর