‘আমার লাইনে চলার মুহূর্তে কারো ধাক্কার নিরাপত্তা দিতে রাজি নই’
jugantor
‘আমার লাইনে চলার মুহূর্তে কারো ধাক্কার নিরাপত্তা দিতে রাজি নই’

  যুগান্তর প্রতিবেদন, গাজীপুর  

০৯ আগস্ট ২০২২, ১৯:২২:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

‘রেলপথে যে গেট দেওয়া তা মূলত রেলের নিরাপত্তার জন্য । এলজিইডি, সিটি করপোরেশন, সড়ক বিভাগ কিংবা পৌরসভা যারাই সড়ক ক্রস করে রাস্তা বানাচ্ছেন, তারা তাদের দায়িত্ব পালন করবে, তাদের সড়কের নিরাপত্তার জন্য তারাই চিন্তা করবেন। শুধুমাত্র রেলের নিরাপত্তার দায়িত্ব আমার। আমাকে ক্রস করতে গিয়ে কেউ যদি দুর্ঘটনার শিকার হন সে দায়-দায়িত্ব আমি কিংবা রেল কর্তৃপক্ষ নিবে না। আমি তো আমার লাইন দিয়েই চলেছি। রেলপথে গেট দেওয়া হয় আমাদের নিরাপত্তার জন্য, যাতে আপনি আমাকে ধাক্কা দিতে না পারেন।’

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) দুপুরের দিকে টঙ্গী-গাজীপুরে চলমান ডাবল লাইনের কাজ পরিদর্শনে গিয়ে জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন এসব কথা বলেন।

আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে টঙ্গী থেকে জয়দেবপুর জংশন পর্যন্ত ডাবল লেনটি চালু হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, নৌপথ এবং সড়কপথে পরিবহণের ভাড়া নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনা করে ভাড়া সমন্বয় করা হলেও তেলের দাম বৃদ্ধির কারণে ট্রেন ভাড়া বাড়ানোর এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে এনিয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা চলছে। শিগগিরই সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

এসময় বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অবকাঠামো) মো. কামরুল ইসলাম, ডাবল লেন প্রকল্পের পরিচালক নাজনীন আরা কেয়া, গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক নাসরীন পারভীন ও এনডিসি মো. মাসুদুর রহমানসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

‘আমার লাইনে চলার মুহূর্তে কারো ধাক্কার নিরাপত্তা দিতে রাজি নই’

 যুগান্তর প্রতিবেদন, গাজীপুর 
০৯ আগস্ট ২০২২, ০৭:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

‘রেলপথে যে গেট দেওয়া তা মূলত রেলের নিরাপত্তার জন্য । এলজিইডি, সিটি করপোরেশন, সড়ক বিভাগ কিংবা পৌরসভা যারাই সড়ক ক্রস করে রাস্তা বানাচ্ছেন, তারা তাদের দায়িত্ব পালন করবে, তাদের সড়কের নিরাপত্তার জন্য তারাই চিন্তা করবেন। শুধুমাত্র রেলের নিরাপত্তার দায়িত্ব আমার। আমাকে ক্রস করতে গিয়ে কেউ যদি দুর্ঘটনার শিকার হন সে দায়-দায়িত্ব আমি কিংবা রেল কর্তৃপক্ষ নিবে না। আমি তো আমার লাইন দিয়েই চলেছি। রেলপথে গেট দেওয়া হয় আমাদের নিরাপত্তার জন্য, যাতে আপনি আমাকে ধাক্কা দিতে না পারেন।’

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) দুপুরের দিকে টঙ্গী-গাজীপুরে চলমান ডাবল লাইনের কাজ পরিদর্শনে গিয়ে জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন এসব কথা বলেন।

আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে টঙ্গী থেকে জয়দেবপুর জংশন পর্যন্ত ডাবল লেনটি চালু হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, নৌপথ এবং সড়কপথে পরিবহণের ভাড়া নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনা করে ভাড়া সমন্বয় করা হলেও তেলের দাম বৃদ্ধির কারণে ট্রেন ভাড়া বাড়ানোর এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে এনিয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা চলছে। শিগগিরই সিদ্ধান্ত জানানো হবে। 

এসময় বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অবকাঠামো) মো. কামরুল ইসলাম, ডাবল লেন প্রকল্পের পরিচালক নাজনীন আরা কেয়া, গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক নাসরীন পারভীন ও এনডিসি মো. মাসুদুর রহমানসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন