বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক পুস্তক প্রদর্শনী শুরু
jugantor
বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক পুস্তক প্রদর্শনী শুরু

  সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক  

১২ আগস্ট ২০২২, ১৩:৫৪:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

চলছে শোকের মাস আগস্ট। নানাভাবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করছে জাতি। জাতির পিতার ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তরের আয়োজনে 'বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক পুস্তক প্রদর্শনী' শুরু হয়েছে।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে তিন দিনব্যাপী এ পুস্তক প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। এতে বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক নানা পুস্তক প্রদর্শন করছে গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর, বাংলা একাডেমি, জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্র, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, আর্কাইভস ও গ্রন্থাগার অধিদপ্তর, বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর, কবি নজরুল ইনস্টিটিউট ও বাংলাদেশের কপিরাইট অফিস।

প্রধান অতিথি হিসেবে এ পুস্তক প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি সচিব আবুল মনসুর।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক মো. কামরুজ্জামান, কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক মো. জাকীর হোসেন, আর্কাইভস ও গ্রন্থাগারের মহাপরিচালক ফরিদ আহমেদ ভুঁইয়া, বাংলাদেশের শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অসীম কুমার দে, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের মহাপরিচালক রতন চন্দ্র পণ্ডিত, জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক মিনার মনসুর। সভাপতিত্ব করেন গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আবুবকর সিদ্দিক।

কেএম খালিদ বলেন, ভারতবর্ষের সব ইতিহাসকে ছাপিয়ে গেছে বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস। তিনি তার সারাটি জীবন জাতির জন্য ত্যাগ স্বীকার করে গেছেন।
তিনি আরও বলেন, এই আয়োজনটি গতানুগতিক আয়োজনের বিশেষ আয়োজন। আমরা চাইব এমন আয়োজন আগামীতে ৬৪ জেলায় হোক।

মো. আবুল মনসুর বলেন, আগামী প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানাতে বইয়ের কোনো বিকল্প নেই। সেদিক থেকে এই আয়োজন অনন্য।
আগামী ১৪ আগস্ট পর্যন্ত চলবে এ প্রদর্শনী। সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক পুস্তক প্রদর্শনী শুরু

 সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক 
১২ আগস্ট ২০২২, ০১:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চলছে শোকের মাস আগস্ট। নানাভাবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করছে জাতি। জাতির পিতার ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তরের আয়োজনে 'বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক পুস্তক প্রদর্শনী' শুরু হয়েছে।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে তিন দিনব্যাপী এ পুস্তক প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। এতে বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক নানা পুস্তক প্রদর্শন করছে গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর, বাংলা একাডেমি, জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্র, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, আর্কাইভস ও গ্রন্থাগার অধিদপ্তর, বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর, কবি নজরুল ইনস্টিটিউট ও বাংলাদেশের কপিরাইট অফিস। 

প্রধান অতিথি হিসেবে এ পুস্তক প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি সচিব আবুল মনসুর। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক মো. কামরুজ্জামান, কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক মো. জাকীর হোসেন, আর্কাইভস ও গ্রন্থাগারের মহাপরিচালক ফরিদ আহমেদ ভুঁইয়া, বাংলাদেশের শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অসীম কুমার দে, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের মহাপরিচালক রতন চন্দ্র পণ্ডিত, জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক মিনার মনসুর। সভাপতিত্ব করেন গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আবুবকর সিদ্দিক।

কেএম খালিদ বলেন, ভারতবর্ষের সব ইতিহাসকে ছাপিয়ে গেছে বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস। তিনি তার সারাটি জীবন জাতির জন্য ত্যাগ স্বীকার করে গেছেন। 
তিনি আরও বলেন, এই আয়োজনটি গতানুগতিক আয়োজনের বিশেষ আয়োজন। আমরা চাইব এমন আয়োজন আগামীতে ৬৪ জেলায় হোক। 

মো. আবুল মনসুর বলেন, আগামী প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানাতে বইয়ের কোনো বিকল্প নেই। সেদিক থেকে এই আয়োজন অনন্য।
আগামী ১৪ আগস্ট পর্যন্ত চলবে এ প্রদর্শনী। সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন